ব্রেকিং নিউজ
Home » জাতীয় » বঙ্গবন্ধুর জন্ম হয়েছিল বলেই বাংলাদেশ স্বাধীন সার্বভৌম দেশ
বঙ্গবন্ধুর জন্ম হয়েছিল বলেই বাংলাদেশ স্বাধীন সার্বভৌম দেশ
--সংগৃহীত ছবি

বঙ্গবন্ধুর জন্ম হয়েছিল বলেই বাংলাদেশ স্বাধীন সার্বভৌম দেশ

অনলাইন ডেস্ক:

পানি সম্পদ উপমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক এ কে এম এনামুল হক শামীম এমপি বলেছেন, এ দেশের স্বাধীনতার প্রথম স্বপ্ন দেখেছিলেন জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান। বঙ্গবন্ধুর জন্মই হয়েছিলো বলেই বাংলাদেশ স্বাধীন সার্বভৌম দেশ। আজ দুপুরে টুঙ্গিপাড়ায় জাতির পিতার সমাধিসৌধে শ্রদ্ধা নিবেদন শেষে তিনি এসব কথা বলেন।

আওয়ামী লীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক সম্পাদক এনামুল হক শামীম বলেন, আগস্ট মাস শোকের মাস। আমাদের বেদনার মাস। যারা স্বাধীনতাকে মেনে নিতে পারেনি তারা জাতির পিতাকে সপরিবারে হত্যা করেছে। তারা ভেবেছিল বঙ্গবন্ধুকে হত্যার মধ্যে দিয়ে দেশকে আবার পাকিস্তানি ভাবধারায় নিয়ে যাবে। কিন্ত ঘাতকরা সফল হয়নি। মুজিব চেতনায় জাগ্রত, হৃদয়ে স্পন্দিত, শোকাহত-প্রতিবাদী-মুজিব বিপ্লবী জনতা কোটি কোটি। মুজিব মরেনি; মরতে পারে না; শতবর্ষে শেখ মুজিব শতকোটি গুণ শক্তিশালী। তিনি বলেন, প্রকৃতপক্ষে বঙ্গবন্ধু আমাদের অনুভূতি ও অন্তরাত্মায় মিশে আছেন। শেখ মুজিব মানেই বাংলাদেশ। জাতির পিতার প্রতি আমাদের ঋণ, শ্রদ্ধা, ভালোবাসা অশেষ। শেখ মুজিব মানেই বাংলার মুক্ত আকাশ। শেখ মুজিব মানেই বাঙালির অবিরাম মুক্তির সংগ্রাম। শেখ মুজিব মানেই বাঙালি জাতির অস্তিত্ব। শেখ মুজিব মানেই বাঙালির ঠিকানা। শেখ মুজিব মানেই বাঙালি জাতির আশ্রয়-ভরসা। শেখ মুজিব মানেই বাঙালির আদর্শ। শেখ মুজিব মানেই ঝড়-ঝঞ্ঝার মাঝে মাথা উঁচু করে বাঙালির সঠিক পথে চলা।

kalerkantho

শেখ মুজিব মানেই বাঙালির মৃত্যুঞ্জয়ী চেতনা। শেখ মুজিব মানেই সাম্য-অধিকার-গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠা। শেখ মুজিব মানেই দেশের জনগণের প্রতি মানুষের প্রতি ভালোবাসা। শেখ মুজিব মানেই নিজ নিজ ধর্ম পালনের স্বাধীনতা। শেখ মুজিব মানেই বাঙালির দিশা- আলোর দিশারী। শেখ মুজিব মানেই তো বাংলাদেশ, স্বপ্নের সোনার বাংলাদেশ।ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি শামীম বলেন, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানই স্বাধীনতার ঘোষক। তার নেতৃত্বে তৎকালীন সাড়ে সাত কোটি বাঙালি মহান মুক্তিযুদ্ধে ঝাঁপিয়ে পড়েছিলো। মহান মুক্তিযুদ্ধ, স্বাধীনতা ও বাংলাদেশ এবং বঙ্গবন্ধু একই সূত্রে গাঁথা। বঙ্গবন্ধুর কালজয়ী সংগ্রামের ফসল হচ্ছে বাংলাদেশ। কারণ বিশ্বের মানুষ বঙ্গবন্ধুর নামেই বাংলাদেশকে চেনে।

পানি সম্পদ উপমন্ত্রী বলেন, পাকিস্তানের দোসর স্বাধীনতা বিরোধীরা ‘৭১-এ পরাজিত হয়ে ‘৭৫-এ জাতির পিতাকে স্বপরিবারে হত্যা করেছে। আল্লাহর অশেষ রহমতে বিদেশে থাকায় বেঁচে গেছেন তার দুই কন্যা শেখ হাসিনা ও শেখ রেহানা। বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনা স্বাধীনতা বিরোধীদের রক্তচক্ষুকে উপেক্ষা করে ১৯৮১ সালে দেশে ফিরে এসে দেশের সেবায় আত্মনিয়োগ করেন। বাংলাদেশকে একটি মর্যাদা সম্পন্ন দেশে রুপান্তরিত করেছেন, গণতন্ত্রকে প্রাতিষ্ঠানিক রুপ দিয়েছেন। দেশকে উন্নয়নের মহাসড়কে নিয়ে গেছেন। তার কারণেই বাংলাদেশ আজ বিশ্বসভায় অনন্য মর্যাদায় আসীন।  তিনি বলেন, শোককে শক্তিতে রুপান্তিত করে আমাদের এগিয়ে যেতে হবে।

নদী ভাঙ্গন থেকে গোপালগঞ্জকে রক্ষার সব ধরনের পদক্ষেপ গ্রহন করা হয়েছে জানিয়ে পানি সম্পদ উপমন্ত্রী বলেন, সারাদেশকেই নদী ভাঙ্গন থেকে রক্ষা করতে পদক্ষেপ নেয়া হয়েছে। বিশেষ করে জাতির জন্মভূমি গোপালগঞ্জে বিশেষ পদক্ষেপ নিয়েছি।

পরে পানি সম্পদ মন্ত্রণালয়ের অধীনে নির্মানাধীন টুঙ্গিপাড়া হ্যালিপ্যাড, টুঙ্গিপাড়া খাল, বর্নি বাওর, পাটগাতী খাল পরিদর্শন করেন উপমন্ত্রী শামীম। এ সময় জেলা প্রশাসক শাহিদা সুলতানা, জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান চৌধুরী এমদাদুল হক, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মাহবুব আলী খান, পানি উন্নয়ন বোর্ড এর মহাপরিচালক ফজলুর রশিদ, ফরিদপুর পাউবোর প্রধান প্রকৌশলী আব্দুল হেকিম, গোপালগঞ্জ পাউবোর নির্বাহী প্রকৌশলী মোঃ ফইজুল রহমান, গোপালগঞ্জ কোটালিপাড়ার পৌরসভার মেয়র বদরুল আলম বদর, কোটালীপাড়া থানা আওয়ামী লীগ সভাপতি আবুল বাশার খায়ের, সাধারণ সম্পাদক মোঃ বাবুল হোসেন, উপজেলা চেয়ারম্যান সোলায়মান বিশ্বাস, টুঙ্গিপাড়ার পৌর মেয়র তোফাজ্জেল হোসেন টুটুল সহ আওয়ামী লীগ ও অঙ্গ সংগঠনের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

About Syed Enamul Huq

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*