ব্রেকিং নিউজ
Home » দৈনিক সকালবেলা » বিভাগীয় সংবাদ » ঢাকা বিভাগ » বিনম্র শ্রদ্ধায় স্মরণ করি
বিনম্র শ্রদ্ধায় স্মরণ করি

বিনম্র শ্রদ্ধায় স্মরণ করি

স্টাফ রিপোটার:
সৈয়দ এনামুল হক এর আজ প্রথম মৃত্যু বার্ষিকী। তিনি বিগত ২৭ অক্টোবর ২০২০খ্রিঃ, ১১ কার্তিক ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ৯ রবিউল আউয়াল, বিকাল ৪ ঘটিকায় রাজধানীর ইউনাইটেড হাসপাতাল, গুলশান, ঢাকায় চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যুবরণ করেন। তিনি ঢাকা হতে প্রকাশিত দুটি জাতীয় দৈনিক,
দৈনিক সকালবেলা ও The Daily Morning Times এর প্রতিষ্ঠাতা সম্পাদক ও প্রকাশক ছিলেন। তিনি বাংলাদেশ এর সংবাদপত্র মালিকদের সর্ববৃহৎ সংগঠন, বাংলাদেশ সংবাদপত্র পরিষদ (বিএসপি)’র মহাসচিব ছিলেন। তিনি বাংলাদেশ বেতার, ঢাকা এর ইংরেজি সংবাদ পাঠক ছিলেন। তিনি ৯০’এর দশকের গোড়ার দিকে লন্ডনে বিবিসি বাংলা বিভাগে কাজ করে ছিলেন। তিনি দেশের স্বনামধন্য শীর্ষ স্থানীয় সংবাদপত্র দৈনিক আজাদ, দৈনিক ইত্তেফাক, দৈনিক গণকন্ঠ ও জনকন্ঠ, বাংলাদেশ অবজারভার এ কাজ করেছেন লায়ন এ্যাডভোকেট সৈয়দ এনামুল হক। তাঁর জন্ম ১৬ এপ্রিল ১৯৫৬ সালে মাদারীপুর জেলার শিবচর উপজেলার উমেদপুর গ্রামে। বাবা মরহুম ডাঃ সৈয়দ আব্দুল মজিদ। মাতা বেগম মজিদুননেছা। তিনি বাংলাদেশ সংবাদ পাঠক সমিতির সহ-সভাপতি ছিলেন। শিক্ষাগত যোগ্যতা বি.এ (অর্নাস) এম.এ (রাষ্ট্রবিজ্ঞান) এল.এল.বি। অত্যন্ত সদালাপী ও মিষ্টভাষী জনাব হক সকলের কাছে প্রিয় একজন মানুষ ছিলেন। প্রিন্ট ও ইলেক্ট্রনিকস মিডিয়া দু’জায়গায়ই ছিল তার সমান পদচারণা। ছাত্রজীবন থেকেই ১৯৭৪ সালে তিনি মুলতঃ লেখালেখি শুরু করেন। সংবর্ত সাহিত্য মাসিক প্রকাশনার সাথে সংশ্লিষ্টতার মধ্য দিয়ে যাত্রা শুরু করেন প্রকাশনা জগতে। সম্পাদনা করেন “নিরিবিলি” সাহিত্য মাসিক ও রংধনু সাহিত্য মাসিক। সাংবাদিকতা ছিল তাঁর নেশা ও পেশা। তিনি বাংলাদেশ বেতার, ঢাকা, ইংরেজি সংবাদ পাঠক ছিলেন। স্ব স্ব ক্ষেত্রে সাফল্যও আকাশ ছোঁয়া। সে সময় ফারাক্কা বাঁধের উপর একটি তথ্য ও উপাত্ত সমৃদ্ধ একটি প্রতিবেদন শ্রোতা নন্দিত হয়েছিল। সাংবাদিকতায় রয়েছে তার এক গৌরব উজ্জল অধ্যায়। কিংবদন্তীতুল্য জনাব হক ৮০’এর দশকের মাঝামাঝি বেতার সংবাদ পাঠকদের নিয়ে খুলনায় সংবাদ পাঠক সমিতি গঠন করেন এবং প্রতিষ্ঠাতা সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হন। ৮০র, দশকে দুটি জাতীয় দৈনিকের খুলনা ব্যুরো প্রধান হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। দু’ দু’বার করে খুলনা সাংবাদিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক ও সভাপতি নির্বাচিত হয়েছেন। পেশাগত মান উন্নয়নে সাংবাদিক সমাজকে সঠিক নেতৃত্ব দিয়ে উজ্জীবিত করেন। সাংবাদিকদের পেশাগত মান উন্নয়নে, সাংবাদিকতায় বিশেষ অবদানের জন্য বিভিন্ন সংগঠন তাঁকে স্বর্ণপদক ক্রেষ্ট ও সম্মাননা প্রদান করেন। তিনি লাভ করেন বাংলাদেশ ফেডারেল সাংস্কৃতিক পরিষদ পদক, বাংলাদেশ ইয়ুথ বিজনেস ফোরাম স্বর্ণপদক ও ফেডারেল অব বেসরকারী সংগঠন পদক। সর্বোপরি তিনি লায়নস ক্লাব ইন্টান্যাশনাল এর একজন সক্রিয় সদস্য ছিলেন। তিনি ঐতিহ্যবাহী ঢাকা আইনজীবি সমিতির একজন সক্রিয় সদস্য এবং দুটি আইন গ্রন্থের প্রণেতা ছিলেন। তাঁকে আজ বিনম্র শ্রদ্বাভরে স্মরণ করছি। সাদা মনের সদাহাস্যোজ্জ্বল, বন্ধু বৎসল এই মহান মানুষটির প্রতি জানাই বিনম্র শ্রদ্ধা ও গভীর ভালবাসা। আমরা তাঁর বিদেহী আত্নার মাগফেরাত কামনা করছি।

About Syed Enamul Huq

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com