ব্রেকিং নিউজ
Home » দৈনিক সকালবেলা » বিভাগীয় সংবাদ » জেলার-খবর » বীর মুক্তিযোদ্ধা প্রবীরের ৩ মাসের সম্মানিভাতা স্থগিত প্রত্যাহার ও দোয়ারাবাজারের কুখ্যাত আলাউদ্দিন রাজাকারের নাম তালিকা হতে বাতিলের দাবীতে সুনামগঞ্জে মানববন্ধন,সংবাদ সম্মেলন
বীর মুক্তিযোদ্ধা প্রবীরের ৩ মাসের সম্মানিভাতা স্থগিত প্রত্যাহার ও দোয়ারাবাজারের  কুখ্যাত আলাউদ্দিন রাজাকারের নাম তালিকা হতে বাতিলের দাবীতে সুনামগঞ্জে মানববন্ধন,সংবাদ সম্মেলন
--প্রেরিত ছবি

বীর মুক্তিযোদ্ধা প্রবীরের ৩ মাসের সম্মানিভাতা স্থগিত প্রত্যাহার ও দোয়ারাবাজারের কুখ্যাত আলাউদ্দিন রাজাকারের নাম তালিকা হতে বাতিলের দাবীতে সুনামগঞ্জে মানববন্ধন,সংবাদ সম্মেলন

সুনামগঞ্জ প্রতিনিধিঃ
বীর মুক্তিযোদ্ধা প্রবীর চন্দ্র সরকারের ৩ মাসের সম্মানি ভাতা স্থগিত প্রত্যাহার ও সুনামগঞ্জের দোয়ারাবাজার উপজেলার বীরসিং গ্রামের মৃত গোলাম ফকিরের পূত্র কুখ্যাত আলাউদ্দিন রাজাকারের নাম মুক্তিযোদ্ধা তালিকা হতে বাতিলের দাবীতে মুক্তিযোদ্ধাদের মানববন্ধন,সংবাদ সম্মেলন ও স্মারকলিপি প্রদান করা হয়েছে।
রবিবার দুপুরে দোয়ারাবাজার উপজেলা মুক্তিযোদ্ধাবৃন্দ ও মুক্তিযোদ্ধা প্রজন্মের আয়োজনে সুনামগঞ্জ শহরের ট্রাফিক পয়েন্টে এ মানববন্ধন কর্মসূচী অনুষ্ঠিত হয়। পরে জেল রোডস্থ মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্স এ সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়।
এ সময় লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন দোয়ারাবাজার উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা ইদ্রিছ আলী বীর প্রতীক,জেলা মুক্তিযোদ্ধা ইউনিটের সাবেক জেলা কমান্ডার হাজী নুরুল মোমেন,জেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার আব্দুল মজিদ,দোয়ারাবাজার উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার মো. সফর আলী, বীর মুক্তিযোদ্ধা বিনোদ রঞ্জন তালুকদার, বীর মুক্তিযোদ্ধা ডা. আব্দুর রশিদ,পিজিস রঞ্জন চক্রবর্তী, বীর মুক্তিযোদ্ধা হাজী সৈয়দুর রহমান, বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল মালেক, বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল বারেক ও মুক্তিযোদ্ধা সন্তান জহির আহমেদ সোহেল প্রমুখ।
নেতৃবৃন্দরা বলেন, সুনামগঞ্জের দোয়ারাবাজার উপজেলার বীরসিং গ্রামের মৃত গোলাম ফকিরের পূত্র কুখ্যাত আলাউদ্দিন রাজাকার মুক্তিযুদ্ধের পরে এলাকা ছেড়ে পালিয়ে যায় এবং পরবর্তীতে সে সেনাবাহিনীতে যোগদান করলেও এলাকার কেহ জানতেন না। কিন্ত এই আলাউদ্দিন রাজাকার মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রনালয়ের ২০১২ সালের ১৪ই আগষ্টে ইস্যুকৃত সাময়িক সনদপ্রাপ্ত হলে মুক্তিযোদ্ধারা বিক্ষুব্ধ হন। সে ১৯৭১ সালে পাকিস্তানী হানাদার বাহিনীর পক্ষ অবলম্বন করে দেশের মুক্তিযোদ্ধাদের হত্যা,ধর্ষন ও লুন্টনের মতো জঘন্য অপরাধ সংগঠিত করে সে এখন মুক্তিযোদ্ধা কিভাবে হলো সেই প্রশ্ন ও রাখেন। এদিকে প্রকৃত মুক্তিযোদ্ধা প্রবীর এই আলাউদ্দিন রাজাকারের বিরুদ্ধে তার মুক্তিযোদ্ধা সনদপত্র বাতিলের দাবী জানানোর কারণে গত তিনমাস ধরে প্রবীর চন্দ্র সরকারের ৩ মাসের সম্মানি ভাতা স্থগিত প্রত্যাহার করে সম্মানীভাতা প্রদানের দাবীও জানান মুক্তিযোদ্ধারা। পরে দোয়ারাবাজার উপজেলার বীরসিং গ্রামের মৃত গোলাম ফকিরের পূত্র মৃত কুখ্যাত আলাউদ্দিন রাজাকারের নাম মুক্তিযোদ্ধা তালিকা হতে বাতিলের দাবীতে জেলা প্রশাসক মো. জাহাঙ্গীর হোসেনের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রীর নিকট স্মারকলিপি প্রদান করেন ।

About Syed Enamul Huq

Leave a Reply

WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com