ব্রেকিং নিউজ
Home » প্রচ্ছদ » ব্যালট বাক্স ছিনতাই ও ভোট জালিয়াতির অভিযোগে বিএনপির কাউন্সিল পণ্ড
ব্যালট বাক্স ছিনতাই ও ভোট জালিয়াতির অভিযোগে বিএনপির কাউন্সিল পণ্ড
--মানচিত্রে সিলেট বিভাগ

ব্যালট বাক্স ছিনতাই ও ভোট জালিয়াতির অভিযোগে বিএনপির কাউন্সিল পণ্ড

অনলাইন ডেস্ক:

ব্যালট বাক্স ছিনতাই ও ভোট জালিয়াতির অভিযোগে দুই পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষে পণ্ড হয়েছে সিলেটের বিয়ানীবাজার পৌর বিএনপির দ্বি-বার্ষিক সম্মেলন। এ সময় সম্মেলনে উপস্থিত থাকা কেন্দ্রীয় ও সিলেট জেলা বিএনপির নেতৃবৃন্দরা সম্মেলন স্থগিত ঘোষণা করে চলে যান। এ ঘটনায় পৌর বিএনপির বিবদমান দুই পক্ষের মধ্যে উত্তেজনা বিরাজ করছে।

জানা গেছে, দীর্ঘদিন পর অনুষ্ঠেয় সম্মেলনকে ঘিরে উজ্জীবিত ছিলেন পৌর বিএনপির নেতাকর্মীরা। সম্মেলনের আগেই বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় সভাপতি পদে নির্বাচিত হন সভাপতি প্রার্থী মিজানুর রহমান রুমেল।

শনিবার সকালে পৌরশহরের একটি কমিউনিটি সেন্টারে আলোচনা সভা শেষে দুপুর দেড়টার দিকে শুরু হয় কাউন্সিল। ৪ সম্পাদকীয় পদের বিপরীতে ৮ প্রার্থীর ভোটগ্রহণ প্রায় ৭০ শতাংশ শেষ ঠিক সেই মুহূর্তে দুটি পক্ষের সমর্থকদের সংঘর্ষ প্রথমে বাকবিতণ্ডা, এরপর হাতাহাতি থেকে চেয়ার ছোড়াছুঁড়িতে গড়ায়। এতে সম্মেলনের দুইজন সাধারণ ভোটারও আহত হয়েছেন। তবে সংঘর্ষ নয়, দুইটি পক্ষের মধ্যে বাকবিতণ্ডার ঘটনা ঘটেছে বলে জানান সম্মেলনের প্রধান নির্বাচন কমিশনার আবু নাসের পিন্টু।

তিনি বলেন, ভোটারদের মধ্যে ধাক্কাধাক্কির ঘটনায় সম্মেলনের স্বাভাবিক পরিস্থিতিতে কিছুটা বিশৃঙ্খা সৃষ্টি হয়। সেজন্য কেন্দ্রীয় ও জেলা নেতৃবৃন্দরা সম্মেলন স্থগিত ঘোষণা করেছেন। আগামী এক মাসের মধ্যে এই সম্মেলন পুনরায় অনুষ্ঠিত হবে বলেও জানান তিনি।

আহত কয়েকজন ভোটার জানান, কাউন্সিল চলাকালে নির্বাচন কমিশনের অব্যবস্থাপনা, অদক্ষ এজেন্ট, কাউন্সিলরদের আইডি কার্ড না থাকার সুযোগে একটি পক্ষ নামে বেনামে ভোট প্রদান শুরু করলে সংঘর্ষ বাধে। এক পর্যায়ে ব্যালট বাক্স ছিনতাই এবং দুই পক্ষের নেতাকর্মীরা চেয়ার ছোড়াছুড়ি করেন। পরে পরিস্থিতি অনুকূলে না থাকায় সিলেট জেলা বিএনপির নেতৃবৃন্দরা সম্মেলন স্থগিত ঘোষণা করে সম্মেলনস্থল ত্যাগ করেন।

সম্মেলনের নির্বাচন কমিশন সূত্রে জানা গেছে, বিয়ানীবাজার পৌর বিএনপির সভাপতি পদে একমাত্র প্রার্থী ছিলেন মিজানুর রহমান রুমেল। সম্মেলনের আগেই তিনি বিনাপ্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হয়েছেন। এ ছাড়া সম্মেলনে সহ সভাপতি পদে কবির আহমদ ও আতাউর রহমান কটন, সাধারণ সম্পাদক পদে জসিম উদ্দিন জুয়েল ও গিয়াস উদ্দিন, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক পদে নজমুল হোসেন ও এমদাদুল হক ইমন, সাংগঠনিক সম্পাদক পদে তাজ উদ্দিন কুটি ও কামাল উদ্দিন প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন।

এর আগে সকালে পৌর বিএনপির দ্বিবার্ষিক সম্মেলন উদ্বোধন করেন সিলেট জেলা বিএনপির আহ্বান কামরুল হুদা জায়গিরদার। উদ্বোধন শেষে প্রথম অধিবেশনে পৌর বিএনপির আহ্বায়ক নুরুল হুদার সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি ছিলেন কেন্দ্রীয় বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক ডা. শাখাওয়াত হোসেন জীবন।

About Syed Enamul Huq

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com