ব্রেকিং নিউজ
Home » ইসলাম » যুক্তরাষ্ট্রে চাঁদ দেখার আগেই সোমবার ঈদের ঘোষনা
যুক্তরাষ্ট্রে চাঁদ দেখার আগেই সোমবার ঈদের ঘোষনা

যুক্তরাষ্ট্রে চাঁদ দেখার আগেই সোমবার ঈদের ঘোষনা

নিউ ইয়র্ক প্রতিনিধি: সৌদি আরবে চাঁদ দেখার আগেই এবার ঈদের দিন ঘোষণা করেছে যুক্তরাষ্ট্র। আগামী সোমবার (২ মে) একসাথে দেশটির বিভিন্ন অঙ্গরাজ্যে পবিত্র ঈদুল ফিতর উদযাপিত হবে।
যুক্তরাষ্ট্রের মুসলিম অধুষ্যিত অঙ্গরাজ্যগুলোতে প্রায় এক সপ্তাহ আগেই সোমবার (২ মে) ঈদুল ফিতর উদযাপনের জন্য ফ্লায়ার ও পোষ্টার তৈরি করে মসজিদের মুস্ললিদের হাতে বিতরণ করা হয়। এ খবর জানিয়েছে মার্কিন সংবাদমাধ্যম বাংলা প্রেস।

নিউ ইয়র্কে ঈদের জামাত
জ্যামাইকা মুসলিম সেন্টার জেএমসির উদ্যোগে ১৬৫ স্ট্রিটের টমাস এডিসন হাইস্কুলের মাঠে অনুষ্ঠিত হবে ঈদুল ফিতরের বৃহৎ জামাত। সেখানে খোলা মাঠে বিশেষ ব্যবস্থায় এই জামাত অনুষ্ঠিত হবে সকাল নয়টায়। নামাজের আগে অনুষ্ঠানে যোগ দেওয়ার জন্য গভর্নর ক্যাথি হোকুলকে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে। তিনি এর আগে লেফটেন্যান্ট গভর্নর থাকাকালে জেএমসির ঈদের নামাজের অনুষ্ঠানে যোগ দিয়েছেন। গত ২১ এপ্রিল তিনি জেএমসি পরিদর্শন করেছেন এবং সেখানকার নেতাদের সাথে কথা বলেছেন।
জ্যামাইকার দারুস সালাম মসজিদে ঈদের জামাত অনুষ্ঠিত হবে চারটি। সেখানে পুরুষদের পাশাপাশি নারীদের জন্যও নামাজের ব্যবস্থা করা হয়েছে। ঈদের প্রথম জামাত অনুষ্ঠিত হবে সকাল সাতটায়, দ্বিতীয় জামাত সকাল আটটায়, তৃতীয় জামাত সকাল নয়টায় এবং চতুর্থ জামাত অনুষ্ঠিত হবে সকাল ১০টায়। দারুস সালাম মসজিদে মনোরম পরিবেশে নবনির্মিত ভবনে ঈদের নামাজ অনুষ্ঠিত হবে। কেবল প্রথম জামাতে পুরুষেরা নামাজে অংশ নেবেন। বাকি তিনটি জামাতে মহিলারাও অংশ নিতে পারবেন। এটি জ্যামাইকার ১৪৮ স্ট্রিটে অবস্থিত।
এস্টোরিয়ার আল আমিন জামে মসজিদ অ্যান্ড ইসলামিক সেন্টারে ঈদের জামাত অনুষ্ঠিত হবে তিনটি। ৩৬ স্ট্রিটে এই জামাত অনুষ্ঠিত হবে। প্রথম জামাত সকাল সাতটায়, দ্বিতীয় জামাত সকাল আটটায় এবং তৃতীয় জামাত সকাল নয়টায় অনুষ্ঠিত হবে। তৃতীয় জামাতে মহিলারা নামাজে অংশ নিতে পারবেন। বৃষ্টি হলে মসজিদের ভেতরে তিনটি জামাত অনুষ্ঠিত হবে। মসজিদের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, নামাজে অংশগ্রহণকারীদের মাস্ক ও জায়নামাজ সাথে নিয়ে আসতে হবে।
আরাফা ইসলামিক সেন্টারের উদ্যোগে সুসান বি এন্থনি স্কুলের মাঠে সকাল নয়টায় ঈদের একটি জামাত অনুষ্ঠিত হবে। যদি বৃষ্টি হয়, তাহলে চারটি জামাত অনুষ্ঠিত হবে ১৮১ স্ট্রিটে মসজিদের ভেতরে। সেখানে সকাল সাতটা, আটটা, নয়টা এবং ১০টায় এই চারটি জামাত হবে। সেখানে মহিলা ও শিশুদের জন্য বিশেষ ব্যবস্থা থাকবে।
ইস্ট এলমহার্স্ট জামে মসজিদ অ্যান্ড মুসলিম সেন্টারে ঈদের প্রথম জামাত হবে সকাল নয়টায়। এটি হবে পিএস ১২৭ স্কুল প্লে গ্রাউন্ডে। বৃষ্টি না হলে খোলা মাঠে জামাত হবে আর বৃষ্টি হলে দুটি জামাত মসজিদে অনুষ্ঠিত হবে। প্রথম জামাত হবে সকাল আটটায়, দ্বিতীয় জামাত সকাল নয়টায়।
নিউ ইয়র্ক ঈদগাহর উদ্যোগে ঈদের নামাজের আয়োজন করা হয়েছে। সকাল সাতটা থেকে বেলা ১১টা পর্যন্ত পাঁচটি ঈদের জামাত জ্যাকসন হাইটসের ডাইভারসিটি প্লাজায় অনুষ্ঠিত হবে। সেখানে প্রথম জামাত হবে সকাল সাতটায়, দ্বিতীয় জামাত সকাল আটটায়, তৃতীয় জামাত সকাল নয়টায়, চতুর্থ জামাত সকাল ১০টায় এবং বেলা ১১টায় শেষ জামাত অনুষ্ঠিত হতে হবে। পুরুষদের পাশাপাশি নারী ও শিশুদের জন্য নামাজের বিশেষ ব্যবস্থা থাকবে। ২০১১ সাল থেকে নিউ ইয়র্ক ঈদগাহে প্রতিবছর ঈদের পাঁচটি জামাত অনুষ্ঠিত হচ্ছে। গত দুই বছর করোনার কারণে ডাইভারসিটি প্লাজায় ঈদের নামাজ হয়নি। তবে তারা অনলাইনে ও ফেসবুকে নামাজের ব্যবস্থা করেছে। এবার বড় পরিসরে নামাজের ব্যবস্থা করা হয়েছে।
আল নুর ইসলামিক সেন্টারের উদ্যোগে জ্যাকসন হাইটস ও উডসাইডে ঈদুল ফিতরের দুটি জামাতের ব্যবস্থা করা হয়েছে। উডসাইডে ৭৪ স্ট্রিটে আল নুর ইসলামিক কালচারাল সেন্টারের সামনে সকাল সাড়ে সাতটায় খোলা স্থানে রাস্তার ওপর ঈদের নামাজ অনুষ্ঠিত হবে। আর জ্যাকসন হাইটসের ৭২ স্ট্রিটে সকাল সাড়ে আটটায় ঈদের দ্বিতীয় জামাত অনুষ্ঠিত হবে।
দারুল উলুম নিউ ইয়র্কের উদ্যোগে ঈদের নামাজ অনুষ্ঠিত হবে মসজিদের ভেতরে এবং সামনের খোলা স্থানে। সেখানে সকাল সাতটা থেকে আটটার মধ্যে ঈদের নামাজের ব্যবস্থা করা হয়েছে। সেখানে একটি জামাতই হবে। সকাল সাতটা এবং সকাল আটটায় দুটি সময় ধরা হয়েছে। এর মধ্যে একটি চূড়ান্ত করা হবে। এলাকাবাসীর সুবিধা চিন্তা করেই সেটি করা হবে।
ব্রঙ্কসের বায়তুল ইসলাম মসজিদ অ্যান্ড কমিউনিটি সেন্টারের উদ্যোগে ঈদের দুটি জামাত অনুষ্ঠিত হবে। এখনো সময় চূড়ান্ত হয়নি। পরিকল্পনা রয়েছে খোলা মাঠে পার্কে নামাজের আয়োজন করার।
আমেরিকান মুসলিম সেন্টারের উদ্যোগে পারসন্সের ১৫০ স্ট্রিটে ৯০ অ্যাভিনিউতে মসজিদের ভেতরে ঈদের প্রথম জামাত অনুষ্ঠিত হবে সকাল সাড়ে ছয়টায়। এরপর রুফুলস কিং থিম পার্কে ঈদের দুটি জামাত অনুষ্ঠিত হবে। এর একটি হবে সকাল আটটায়, অন্যটি সকাল ১০টায়। মোট তিনটি জামাত হবে। দুটি পার্কে আর একটি মসজিদে।
ব্রুকলিনে দারুল জান্না মসজিদ অ্যান্ড ইসলামিক সেন্টারে ঈদের জামাত অনুষ্ঠিত হবে মোট চারটি। তবে সময়সূচি দু-এক দিনের মধ্যেই ঠিক করা হবে। এর আগের বছরগুলোতেও সেখানে চারটি করে জামায়াতের আয়োজন করা হয়েছে। সাধারণত এখানে সকাল সাড়ে ছয়টা থেকে সাড়ে নয়টার মধ্যে জামাত অনুষ্ঠিত হয়, এবারও সে রকম পরিকল্পনাই রয়েছে।
বাংলাদেশ মুসলিম সেন্টার অ্যান্ড ইসলামিক সেন্টারে ঈদের একটি জামাত অনুষ্ঠিত হবে। ব্রুকলিনে মসজিদ ভবনটি অনেক বড়। এ কারণে এখানে চার থেকে পাঁচ হাজার মানুষের ঈদের নামাজের ব্যবস্থা রয়েছে।
ব্রুকলিনের হযরত বেলাল মসজিদের ভবনে ঈদের নামাজের আয়োজন করা হয়েছে। এখানে মোট তিনটি ঈদের জামাত অনুষ্ঠিত হবে। বেলাল মসজিদে প্রথম জামাত হবে সকাল সাতটায়, দ্বিতীয় জামাত আটটায় এবং তৃতীয় জামাত হবে নয়টায়। প্রায় এক হাজার মানুষ এখানে নামাজ পড়তে পারবেন। যারা মসজিদে আসবেন তাদেরকে মাস্ক পরে আসার অনুরোধ করা হয়েছে।
এদিকে, যুক্তরাষ্ট্রের ম্যাসাচুসেটস অঙ্গরাজ্যের বোস্টনে ধর্মপ্রাণ প্রবাসী বাংলাদেশিরাদের প্রচেষ্টায় এবার খোলা মাঠে সর্ববৃহৎ ঈদ জামাত অনুষ্ঠিত হবে। ইসলামিক কালচারাল সেন্টার অব মেডফোর্ড (আইসিসিএম) আগামী সোমবার (২ মে) ঈদুল ফিতরের জামাতে ঘোষনা দিয়েছেন। বোস্টনের পার্শ্ববর্তী মেডফোর্ডের হোরমেল স্টেডিয়াম (৯০ লোকাস স্ট্রিট)-এ জামাত অনুষ্ঠিত হবে।
বোস্টনে গত ৩ বছর ধরে দেশীয় আমেজে ঈদের জামাতের আয়োজন করে আসছেন আইসিসিএম। কিন্তু এবারের প্রথম স্টেডিয়ামের খোলা মাঠে সর্ববৃহৎ ঈদ জামাত অনুষ্ঠিত হবে। আগামী সোমবার (২ মে) খোলা মাঠে সর্ববৃহৎ ঈদুল ফিতরের উক্ত জামাতে অংশ নিতে ম্যাসাচুসেটস প্রবাসী সকল বাংলাদেশি নারী-পুরুষদের বিশেষভাবে অনুরোধ জানিয়েছেন আইসিসিএম কর্মকর্তারা।
এছাড়াও, যুক্তরাষ্ট্রের জনবহুল ও বাংলাদেশি অধুষ্যিত নিউ ইয়র্ক, নিউ জার্সি, ম্যাসাচুসেটস, কানেকটিকাট, পেনসিলভানিয়া, ওয়াশিংটন ডিসি, ভার্জিনিয়া, ক্যালিফোর্নিয়া, টেক্সাস, ফ্লোরিডা, ওহাইও, ইলিনয়স, কলারাডো, ডেলাওয়ার, জর্জিয়া, কানসাস, ম্যারিল্যান্ড, মিশিগান, সাউথ ক্যারোলিনা, ওয়াশিংটন ডিসি ও কেন্টাকির প্রবাসী বাংলাদেশিরা ভিন্ন ভিন্ন সময়ে ঈদের জামাতের কর্মসূচি ঘোষনা করেছেন।

About Syed Enamul Huq

Leave a Reply

WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com