Wednesday , 8 February 2023
E- mail: news@dainiksakalbela.com/ sakalbela1997@gmail.com
ব্রেকিং নিউজ
সমাবেশের স্থানের বিষয়ে ছাড় দেবে না আ. লীগ

সমাবেশের স্থানের বিষয়ে ছাড় দেবে না আ. লীগ

অনলাইন ডেস্ক:

আগামী ১০ ডিসেম্বর রাজধানী ঢাকায় বিএনপির সমাবেশ সোহরাওয়ার্দী উদ্যানেই হতে হবে। এ বিষয়ে কোনো ছাড় দিতে রাজি নয় ক্ষমতাসীন দল আওয়ামী লীগ। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর পক্ষ থেকেও সমাবেশের স্থানের বিষয়ে সরকারের অনড় অবস্থানের কথা জানানো হয়েছে। বিএনপি তাদের ইচ্ছামতো নয়াপল্টনে সমাবেশ করার বিষয়ে অনড় অবস্থানে থাকলে সরকারও কঠোর হবে।

kalerkantho

আওয়ামী লীগের নীতিনির্ধারণী পর্যায়ের একাধিক নেতা এমন তথ্য জানিয়েছেন। দলীয় একাধিক সূত্র জানায়, বিএনপির সমাবেশে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সহযোগিতামূলক মনোভাব দেখানোর পরও ভেন্যু নিয়ে তাদের অনড় অবস্থানকে সন্দেহের চোখে দেখছে আওয়ামী লীগ। তাদের নাশকতা সৃষ্টির কোনো পরিকল্পনা আছে কি না, সে বিষয়ে দল ও সরকারের উচ্চ পর্যায়ে নানা আলোচনা চলছে।

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, ‘পার্টি অফিসের সামনে সমাবেশ করার জন্য বিএনপির এত দৃঢ়তা কেন? এখানে তাদের কি কোনো বদ উদ্দেশ্য আছে? কোন মতলবে তারা এটা চায়? বিএনপি সমাবেশ ঘিরে আন্দোলনের নামে যদি সহিংসতার উপাদান যুক্ত করে, তাহলে জনগণকে সঙ্গে নিয়ে আওয়ামী লীগ সমুচিত জবাব দেবে। আওয়ামী লীগ সতর্ক পাহারায় থাকবে। ’

ওবায়দুল কাদের গতকাল বুধবার সচিবালয়ে ব্রিফিংয়ে এসব কথা বলেন। ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘১৯৭১ সালের ১০ ডিসেম্বর বুদ্ধিজীবী হত্যার নীলনকশা বাস্তবায়নের প্রক্রিয়া শুরু হয়। ১০ থেকে ১৪ ডিসেম্বর পর্যন্ত এই বুদ্ধিজীবী হত্যার মতো নৃশংসতম ঘটনা বাংলাদেশে সংঘটিত হয়। সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে কেন বিএনপি যেতে চায় না? সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে পাক-হানাদার বাহিনী আত্মসমর্পণ করে। সোহরাওয়ার্দী উদ্যান ঐতিহাসিক স্থান। বিশাল জায়গা সেখানে। আওয়ামী লীগ সব সমাবেশ, জাতীয় সম্মেলন করে এখানে। তাহলে বিএনপি কেন তাদের পার্টি অফিসের সামনে, ছোট এলাকায়, যেখানে ৩৫ হাজার স্কয়ার ফুটের মতো জায়গা, সেখানে তাদের সমাবেশের জন্য বেছে নিল?’

এদিকে সোহরাওয়ার্দী উদ্যানের বাইরে অন্য কোনো স্থানে অনুমতি ছাড়া বিএনপি সমাবেশ করার চেষ্টা করলে আইনি ব্যবস্থা নেবে পুলিশ। সরকার এ বিষয়ে কঠোর অবস্থানে রয়েছে। ডিসেম্বর পর্যন্ত ঢাকা মেট্রোপলিটনের সব বিভাগের পুলিশ সদস্যদের ছুটি বাতিল করা হচ্ছে।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান জানিয়েছেন, বিএনপি সরকার নির্ধারিত স্থানে সমাবেশ না করে যদি তাদের পছন্দমতো স্থানে সমাবেশ করে তা হলে ভুল করবে।

স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের একটি সূত্র জানায়, সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে সমাবেশের অনুমতি দেওয়ার পরও বিএনপি কেন নয়াপল্টনের দলীয় কার্যালয়ের সামনে সমাবেশ করার গোঁ ধরেছে সে বিষয়টি খতিয়ে দেখছে সরকারের গোয়েন্দা সংস্থা। বিএনপিই বা এত শক্তি কোথা থেকে পাচ্ছে সে বিষয়টিও খতিয়ে দেখছে সরকার।

ডিএমপি কমিশনার খন্দকার গোলাম ফারুক বলেন, ‘কোনো সমাবেশ করতে হলে পুলিশের অনুমতি নিতে হবে। অনুমোদনহীন কোনো জায়গায় সমাবেশ করতে দেওয়া হবে না। ’

আওয়ামী লীগের একাধিক সূত্র জানায়, বিএনপির অনড় অবস্থানের কারণে দলের নেতাকর্মীদের বিশেষ সতর্ক থাকার তাগিদ দেওয়া হচ্ছে।

আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আ ফ ম বাহাউদ্দিন নাছিম বলেন, ‘বিএনপি সোহরাওয়ার্দীতে সমাবেশ করতে চায় না, কারণ হলো তারা নাশকতা, সন্ত্রাস করতে চায়। আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতির অবনতি ঘটিয়ে বাঁকা পথে ক্ষমতায় যেতে চায়। তারা যদি কোনো ধরনের রক্তপাত ঘটানোর চেষ্টা করে তবে আমরা কোনো ছাড় দেব না। আমরা ঘরে বসে থাকব না। দলের নেতাকর্মী ও জনগণকে সঙ্গে নিয়ে আমরা তাদের প্রতিহত করব। ’

সূত্র: কালের কন্ঠ অনলাইন

About Syed Enamul Huq

Leave a Reply