ব্রেকিং নিউজ
Home » দৈনিক সকালবেলা » বিভাগীয় সংবাদ » জেলার-খবর » সরাইল তৃতীয় শ্রেণীর শিক্ষার্থীকে ধর্ষণের অভিযোগ

সরাইল তৃতীয় শ্রেণীর শিক্ষার্থীকে ধর্ষণের অভিযোগ

ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধি।।

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সরাইলে মামার বিরুদ্ধে ১২ বছর বয়সী তৃতীয় শ্রেণীতে পড়ুয়া এক শিক্ষার্থীকে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে।

সোমবার (২ আগস্ট) বিকেল সাড়ে ৩টার দিকে ব্রাহ্মণবাড়িয়া ২৫০ শয্যাবিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালের গাইণী বিভাগের নার্স আসমা খাতুন ভিকটিমের ভর্তির বিষয়টি সাংবাদিকদের নিশ্চিত করেন।

এর আগে শুক্রবার বিকেলে উপজেলার চুন্টা ইউনিয়নের রসুলপুর গ্রামের হানিফ মিয়ার ছেলে উজ্জ্বল ওই শিক্ষার্থীকে ধর্ষণ করেন। ঘটনার দুইদিন ব্রাহ্মণবাড়িয়া ২৫০ শয্যাবিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালের গাইণী বিভাগে করা হয়।

ভিকটিমের পরিবার জানান, গত ৩০ জুলাই বিকেলে ভিকটিমের বাবার সাথে দেখা করানোর কথা বলে একই এলাকার হানিফ মিয়ার ছেলে উজ্জ্বল মিয়া ভিকটিমকে ডেকে নিয়ে যায়। পরে তাকে ঘরে নিয়ে দরজা লাগিয়ে দেন। পরে ভিকটিম চিল্লাচিল্লি শুরু করেল তার মুখে গামছা পেছিয়ে লাগাতার ধর্ষণ করেন। উজ্জ্বলের চাচী লাইলী তা জেনে গেলে পরে ভিকটিমকে বাড়িতে পাঠিয়ে দেন উজ্জ্বল।

ভিকটিমের মা কান্তা বেগম জানান, উজ্জ্বল তার মেয়েকে ঘরে নিয়ে ধর্ষণ করেন। ঘটনার সময় কান্তা বাড়িতে ছিলাম না। ধর্ষণের পর তার মেয়ে অনেক কষ্ট করে পালিয়ে আসছে। দুইদিন হয়ে গেলেও তার মেয়ে এসব বিষয় কাউকে কিছু বলেনি। আজকে তার দাদু তারাবানুর কাছ থেকে এগুলো জানেন। যখন তার মেয়ের গোপনস্থান দিয়ে রক্তক্ষরণ ও জালাপোড়া শুরু হয় তার মেয়েকে দ্রুত হাসপাতালে এনে ভর্তি করেন।

এব্যাপারে সরাইল থানার পরিদর্শক (তদন্ত) কবির হোসেন, এ ধরনের একটি ঘটনা শুনেছি। তবে এখনও কোন অভিযোগ পাইনি। মেয়েটি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। বিস্তারিত জেনে পরবর্তীতে আপনাদেরকে জানাবো।

About Syed Enamul Huq

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*