Tuesday , 22 September 2020
Home » বিনোদন » ধ্রুব মিউজিক স্টেশন এর বিশেষ বুলেটিন ‘সঙ্গীত মেলা প্রতিদিন’!
ধ্রুব মিউজিক স্টেশন এর বিশেষ বুলেটিন ‘সঙ্গীত মেলা প্রতিদিন’!

ধ্রুব মিউজিক স্টেশন এর বিশেষ বুলেটিন ‘সঙ্গীত মেলা প্রতিদিন’!

সম্পাদনায়- অবাক নিউজ ২৪: গতকাল থেকেই শুরু হলো সঙ্গীতের মহা মিলন মেলা- সঙ্গীত মেলা-২০১৬। এবার সঙ্গীত মেলার বিশেষ আকর্ষন ধ্রুব মিউজিক স্টেশন সঙ্গীত মেলা প্রতিদিন। ধ্রুব মিউজিক স্টেশন এর আয়োজনে প্রতিদিনই প্রকাশিত হচ্ছে আর্ট প্রেপারে রঙ্গীন ছাপায় ধ্রুব মিউজিক স্টেশন এর পক্ষ থেকে বিশেষ বুলেটিন “সঙ্গীত মেলা প্রতিদিন”। সঙ্গীত মেলার প্রতিদিনের সকল কার্যক্রম নিয়ে চলবে এই আয়োজন।

ধ্রুব মিউজিক স্টেশন এর কর্ণধার, সংগীত মেলা প্রতিদিন বুলেটিনের উপদেষ্টা সম্পাদক জনপ্রিয় কন্ঠশিল্পী ধ্রুব গুহ এর সাথে আলাপনে স্বদেশ নিউজ২৪ সম্পাদক আরজে সাইমুরকে জানান- বাংলা গানকে ভালবাসি। ভালবাসি আমার প্রিয় শ্রোতাদের। যাদের ভালবাসায় আমি সিক্ত। সঙ্গীত ভুবনের মহামিলন মেলায় ধ্রুব মিউজিক স্টেশন এর বিশেষ বুলেটিন ‌সংগীত মেলা প্রতিদিন সুস্থ ধারার বাংলা গানের সকল তথ্য সবার মাঝে পৌছে দিতে বদ্ধপরিকর। সঙ্গীত মেলা প্রানের মেলা, গানের মেলা সকল গীতিকার, সঙ্গীত শিল্পী, মিউজিক ডিরেক্টর সবার সম্মিলিত প্রচেষ্টার ফসল। সঙ্গীত মেলা সফল হোক। শ্রোতাদের মনের ঘরই হউক আমার ঘর। যতদিন বাঁচব সুস্থ ধারার বাংলা গান গাবো, শুনবো ও বাংলা গান এবং স্বদেশের সাথেই থাকব। স্বদেশ পরিবারকে আন্তরিক অভিনন্দন ও শুভেচ্ছা। এভাবেই এগিয়ে যাক আমার ও সবার প্রিয় স্বদেশ…..

‘সঙ্গীত মেলা প্রতিদিন’ এর সম্পাদক হলেন গীতিকার ওমর ফারুক, নির্বাহী সম্পাদক-ইসাক ফারুক, ব্যবস্থাপনা সম্পাদক- কাজী সাজু ও জিয়াউর রহমান সুমন।

উল্লেখ্য ‘গানে হোক জীবন সুন্দর’ এই সেøাগান নিয়ে গতকাল বিকেলে শুরু হয় আটদিনের এই ‘সঙ্গীত মেলা’।
সম্মিলিত সঙ্গীত শিল্পী সোসাইটির আয়োজনের এই ‘সঙ্গীত মেলা’য় প্রধান অতিথি ছিলেন তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু।

মেলা উদযাপন কমিটির আহ্বায়ক হাসান মতিউর রহমানের সভাপতিত্বে এ সময় আরো উপস্থিত ছিলেন সঙ্গীত শিল্পী আশরাফ উদাস।
প্রধান অতিথির বক্তব্যে তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু বলেন, সঙ্গীত মনকে পরিশীলিত করে। সংগ্রামে, বিজয়ে, প্রেমে, বিরহে, জয়ে, পরাজয়ে সঙ্গীতের কাছে আমাদের যেতেই হয়। যারা সঙ্গীতের চর্চা করেন তারা আমাদের মনকে সবুজ করে। এ সময় তথ্যমন্ত্রী রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক হত্যার তীব্র নিন্দা জানান ও বিচার দাবি করেন।
মেলার উদ্বোধনীতে গীতিকার কুটি মনসুর, শিল্পী মো. আবদুল জব্বার, সাদী মহম্মদ ও সুরকার সুজেয় শ্যামকে সম্মাননা প্রদান করা হয়।
মেলায় প্রতিদিন বিকেল ৩টা থেকে রাত ৯টা পর্যন্ত গান গাইবে দেশবরেণ্য শিল্পী ও প্রতিশ্রুতিশীল শিল্পীরা।
৩০ এপ্রিল শেষ হবে আটদিনের এই সঙ্গীত মেলা।

About Expert

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*