Sunday , 25 October 2020
E- mail: news@dainiksakalbela.com/ sakalbela1997@gmail.com
Home » খেলাধুলা » ফুটবল সুপারস্টার লিওনেল মেসিকে ২১ মাসের কারাদণ্ড
ফুটবল সুপারস্টার লিওনেল মেসিকে ২১ মাসের কারাদণ্ড

ফুটবল সুপারস্টার লিওনেল মেসিকে ২১ মাসের কারাদণ্ড

স্পেন সরকারকে কর ফাঁকি দেওয়ার অভিযোগ আর্জেন্টিনা ও স্প্যানিশ ক্লাব বার্সেলোনার ফুটবল সুপারস্টার লিওনেল মেসিকে ২১ মাসের কারাদণ্ড দিয়েছে একটি স্প্যানিশ আদালত।

একই অপরাধে মেসির বাবা জর্জ মেসিকেও কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে। সঙ্গে মেসিকে ২ মিলিয়ন এবং জর্জ মেসিকে দেড় মিলিয়ন ইউরো জরিমানা করা হয়েছে। বাংলাদেশ সময় বুধবার (৬ জুলাই) বিকালে এই রায় দিয়েছে স্পেনের বার্সেলোনার একটি আদালত।
তবে স্পেনের আইন অনুসারে, ২ বছরের কম সময়ের কারাদণ্ডের ক্ষেত্রে সরাসরি জেল খাটার বাধ্যবাধকতা নেই। প্রোবেশন প্রক্রিয়ায় এই শাস্তি ভোগ করার সুযোগ পান দণ্ডিত ব্যক্তি। সেই হিসেবে মেসি বা তার বাবাকে কারাগারের ভিতরে থেকে জেল খাটতে হবে না বলে জানিয়েছে স্প্যানিশ মিডিয়া ও আন্তর্জাতিক সংবাদ মাধ্যমগুলো।
মেসি ও তার বাবার বিরুদ্ধে অভিযোগ ছিল ২০০৭ থেকে ২০০৯ সাল পর্যন্ত তাদের অর্জিত আয় থেকে স্পেন সরকারকে কর ফাঁকি দেওয়ার। এই করের পরিমাণ ৪.১ মিলিয়ন ইউরো (৪.৫ মিলিয়ন মার্কিন ডলার)। কর ফাঁকি দেওয়ার উদ্দেশ্যে তারা বেলিজ ও উরুগুয়েতে বেআইনী অফসোর কোম্পানিকে ব্যবহার করেছিলেন বলেও অভিযোগ রয়েছে।
তবে মেসি ও তার পিতা বরাবরই এই অভিযোগ অস্বীকার করে আসছিলেন।
আদালতে মেসি বলেছিলেন, ‘আর্থিক কোনো বিষয়-আশায়ে তিনি সরাসরি জড়িত নন। একজন পেশাদার ফুটবলার হিসেবে তিনি সারাক্ষণ ফুটবলেই মনোযোগী থাকেন। আর্থিক বিষয়গুলো তার বাবা জর্জ মেসি দেখাশুনা করেন। বাবাকে তিনি বিশ্বাস করেন। তাই কোনো কাগজপত্রে স্বাক্ষর দেওয়ার প্রয়োজন হলে তা না পড়েই তিনি স্বাক্ষর করেন। তাই আর্থিক ক্ষেত্রে কোনো অনিয়ম হয়ে থাকলে তা তার অজান্তেই হয়েছে।’
এদিকে, জর্জ মেসি নিজের বক্তব্যে দাবি করেছিলেন যে স্পেন সরকারকে ট্যাক্স বা আয়কর ফাঁকি দেওয়ার বিষয়ে তিনি নিজেও কিছু জানেন না। যদি এই ক্ষেত্রে কোনো অনিয়ম ঘটে থাকে তাহলে এর জন্য দায়ী তাদের আয়কর উপদেষ্টারা।
তবে বার্সেলোনার ওই আদালতের বিচারকরা মেসি ও জর্জ মেসি দু’জনকেই এই অপরাধে দোষী সাব্যস্ত করেছে। যে কারণে দু’জনকেই কারাদণ্ড ও আর্থিক জরিমানা করা হয়েছে।
রেকর্ড ৫ বার ফিফার বর্ষসেরা ফুটবলারের পদক জয়ী ২৯ বছর বয়সী মেসি সম্প্রতি আর্জেন্টিনা জাতীয় দল থেকে অবসর নিয়েছেন। তাকে এই সিদ্ধান্ত পাল্টে ফের আর্জেন্টিনা জাতীয় দলে ফেরার অনুরোধ চলছে আর্জেন্টিনাসহ বিশ্বজুড়ে। এদিকে, স্প্যানিশ ক্লাব বার্সেলোনা গত বছর মেসির নৈপুণ্যে ট্রেবল শিরোপা জয় করার পর সর্বশেষ মৌসুমেও দুটি শিরোপা জিতেছে। আগামী মৌসুমে সাফল্য পেতে দলটি মেসির ওপর মূল ভরসা রাখছে। ঠিক এমন মুহূর্তে মেসির এমন আইনী দণ্ড আর্জেন্টিনা ও বার্সেলোনাসহ বিশ্বের সব মেসি ভক্তের জন্যেই বড় এক দুঃসংবাদ।
এ রিপোর্ট লেখা অব্দি আদালতের এই রায় সম্পর্কে মেসি বা তার পরিবারের কোনো বক্তব্য পাওয়া যায়নি। আর্জেন্টিনা বা বার্সেলোনার পক্ষ থেকেও কোনো প্রকার বক্তব্য আসেনি।

About Expert

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*