Saturday , 31 October 2020
E- mail: news@dainiksakalbela.com/ sakalbela1997@gmail.com
Home » দৈনিক সকালবেলা » বিভাগীয় সংবাদ » জেলার-খবর » প্রকাশ্যে স্ত্রীর সামনে স্বামীকে কুপিয়ে হত্যা
প্রকাশ্যে স্ত্রীর সামনে স্বামীকে কুপিয়ে হত্যা

প্রকাশ্যে স্ত্রীর সামনে স্বামীকে কুপিয়ে হত্যা

বরগুনা প্রতিনিধি:
বরগুনা সরকারি কলেজের সামনে সকাল সাড়ে ১০টার দিকে শত শত পথচারীর উপস্থিতিতে স্ত্রীর সামনে শাহ নেয়াজ রিফাত শরীফ (২৫) নামে এক যুবককে কুপিয়ে জখম করে সন্ত্রাসীরা। গুরুতর আহতাবস্থায় প্রথমে বরগুনা জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। পরে অবস্থার অবনতি হলে আশঙ্কাজনক অবস্থায় তাকে বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়। সেখানে ভর্তির এক ঘণ্টা পর বিকেল সাড়ে তিনটার দিকে তার মৃত্যু হয়।
এদিকে রিফাতকে কুপিয়ে হত্যার ভিডিও দ্রুত সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়লে তা ভাইরাল হয়। ভিডিওটিতে দেখা যায় সন্ত্রাসী দুই যুবক ধারালো দা দিয়ে কোপাতে থাকে রিফাতকে। এ সময় রিফাত শরীফের স্ত্রী আয়েশা সিদ্দিকা মিন্নি সন্ত্রাসী দুই যুবককে বারবার প্রতিহত করার চেষ্টা করেও ব্যর্থ হন।
নিহত রিফাত শরিফের বাড়ি বরগুনা সদর উপজেলার ৬ নং বুড়িরচর ইউনিয়নের বড় লবনগোলা গ্রামে। তার পিতার নাম আ. হালিম দুলাল শরীফ। বাবা মায়ের একমাত্র ছেলে রিফাত।
ভিডিও চিত্র এবং প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা গেছে, ভিডিও চিত্রে যে দুজন সন্ত্রাসীকে কুপিয়ে জখম করতে দেখা গেছে তাদের একজনের নাম নয়ন বন্ড এবং রিফাত ফরাজী। তারা উভয়েই স্থানীয়ভাবে ছিনতাই ও মাদক ব্যবসাসহ নানা অপকর্মের সাথে সম্পৃক্ত রয়েছে। এসব ঘটনায় একাধিকবার পুলিশের হাতে গ্রেপ্তার হয়েছে বলেও বরগুনা থানা সূত্রে জানা গেছে।
নিহতের পারিবারিক সূত্র ও পুলিশ জানায়, নিহত রিফাত ২ মাস আগে নয়াকাটা মাইঠা এলাকার মো. কিশোরের মেয়ে আয়শা সিদ্দিকা মিনিকে বিয়ে করে। বিয়ের পর থেকে মিনিকে উত্ত্যক্ত এবং ফেসবুকে অশ্লীল ছবি পোস্ট করে কলেজ ব্রাঞ্চ রোডের ধানসিড়ি এলাকার আবুবকর সিদ্দিকের ছেলে নয়ন (২৫)। নয়ন মিনির সাবেক প্রেমিক দাবি করায় রিফাত ও নয়নের মধ্যে দ্বন্দ্বের শুরু হয়।
এ বিষয়ে বরগুনা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আবীর হোসেন মাহমুদ জানান, সিসি ক্যামেরার ফুটেজ দেখে খুনিদের সনাক্ত করা গেছে। শিগগিরই অপরাধীদের গ্রেপ্তার করতে সক্ষম হবে পুলিশ।

About Sakal Bela

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*