গ্রামে অজানা প্রাণীর পায়ের ছাপ, বাঘের আতঙ্কে ভুগছে ঝাড়গ্রাম

স্টাফ রিপোর্টার, ঝাড়গ্রাম: গ্রামে অজানা প্রাণীর পায়ের ছাপ, খামার থেকে উধাও ভেড়া! লালগড়ের স্মৃতি উস্কে এখন বাঘের আতঙ্কে ভুগছেন ঝাড়গ্রামবাসী। গত শুক্রবার থেকে এভাবেই ভয়ে ভয়ে দিন কাটাচ্ছেন তারা। ঘটনায় ইতিমধ্যেই বন দফতরকে খবর দিয়েছেন গ্রামবাসীরা বলে জানা গিয়েছে। সমগ্র জেলা জুড়ে সতর্কতা জারি করেছে বন দফতর। রবিবার ঘটনাস্থল পরিদর্শনে যান খড়গপুরের ডিভিশনাল অফিসার। এলাকায় তৈরি হয়েছে প্রাণহানির আতঙ্ক।

শুক্রবার নিখোঁজ হয়ে যান গ্রামের দু’জন। খামার থেকে উধাও হয়ে যায় বেশ কয়েকটি ভেড়া। এই সমস্ত ঘটনা প্রত্যক্ষ করতেই গ্রামের খোঁজ পড়ে যায়। ছানবিন করতে করতে গ্রামবাসীরা লক্ষ্য করেন অজানা প্রাণীর পায়ের ছাপ! এই ছাপের সঙ্গে লালগড়ের বাঘের পায়ের ছাপের মিল রয়েছে বলে অনুমান গ্রামবাসীদের। ফলে আতঙ্ক ছড়িয়ে পশ্চিমের জেলাটিতে।

উল্লেখ্য, গত বছর পশ্চিম মেদিনীপুরের লালগড়ে বাঘের আতঙ্কে শোরগোল পড়ে যায় সমগ্র রাজ্যে। গত বছর মার্চের শুরুর দিকে লালগড়ে রয়্যাল বেঙ্গলের দেখা মেলে। ট্র্যাপ ক্যামেরায় ধরা পড়ে বাঘের ছবি। তারপর থেকেই বাঘ ধরতে জঙ্গল জুড়ে চলে ড্রোন তল্লাশি। পাতা হয় খাঁচা। কিন্তু বাঘের দেখা মেলেনি। বরং কোন কোন দিন কোন কোন জায়গায় বাঘের পায়ের ছাপ দেখতে পাওয়ার খবর আসে। বাঘের হামলায় জখম হন ডুমরকোটার নন্দলাল সোরেন ও টিকারামপুর গ্রামের পন্ডা মুর্মু।

কিন্তু অবশেষে বন দফতরের পাতা ফাঁদে ধরা পড়ে বাঘটি। পশ্চিম মেদিনীপুরের বাঘঘোড়ার জঙ্গলে ধরা পড়ে বাঘটি। বাঘঘোড়ার জঙ্গলে ঢোকে একদল শিকারি। তখনই বাঘের হামলায় জখম হন তিন শিকারি। শিকারিদের তাড়া খেয়ে বাঘটি একটি গর্তে পড়ে যায়। বাঘ গর্তে পড়তেই, সেটিকে জাল দিয়ে ঘিরে ফেলেন শিকারিরা।

The post গ্রামে অজানা প্রাণীর পায়ের ছাপ, বাঘের আতঙ্কে ভুগছে ঝাড়গ্রাম appeared first on Kolkata24x7 | Read Latest Bengali News, Breaking News in Bangla from West Bengal’s Leading online Newspaper.