রায়পুরে লেংড়া বাজার থেকে পানপাড়া সড়কে জনদুর্ভোগ চরমে।

বিশেষ প্রতিনিধি
লক্ষ্মীপুরের রায়পুরের জিরো পয়েন্ট থেকে কাপিলাতলি ও লেংড়া বাজার থেকে পানপাড়া সড়ক যান এবং জন চলাচলের অযোগ্য জন দুর্ভোগ চরমে।
 রায়পুরের জিরো পয়েন্ট থেকে কাপিলাতলি পর্যন্ত প্রায় সাড়ে সাত কি:মি এবং লেংড়া বাজার থেকে পানপাড়া পর্যন্ত সাত কি: মিটার সড়ক যান এবং জন চলাচলের অযোগ্য হয়ে পড়েছে। সড়ক দু’টির কোথায়ও কোথায়ও ১০ থেকে ১৫ হাত অন্তর অন্তর বড় বড় গর্তের সৃষ্টি হয়েছে। সড়ক গুলোতে প্রতিদিন শত শত যান এ হাজার হাজার মানুষ যাতায়াত করে থাকে। বর্ষা মৌসুমে যারা চলাচল করে থাকে তাদের বক্তব্য এ নাকাল অবস্হা থেকে কখন কবে নিষ্কৃতি পাবেন তা আল্লাহই জানেন।
       সড়ক দু’টোর এ অবস্হা চলে চলে আসছে বছরের পর বছর। প্রায়ই এতে কোন না কোন দুর্ঘটনার সংবাদ পাওয়া যাচ্ছে। এ সড়ক গুলো দিয়ে যানতো দূরের কথা মানুষ চলাচলের অযোগ্য।
যেসব স্হানে বড় বড় গর্তের সৃষ্টি হয়েছে,তাতে ময়লা -অার্বজনা জমে বিভিন্ন রোগের জীবানুর সৃষ্টির ফলে নানাহ রোগের জন্ম হচ্ছে।  বর্ষা মৌসুমে ময়লার অাবর্জনায় তা বেশি বেশি সৃষ্টি হচ্ছে।
  যারা অসুস্থ কিংবা প্রসব ব্যথার রোগীরা যানে চলাচল করে থাকে। এতে যারা রিকসায় যাতায়াত করেন। তাদের করুন অবস্হা জনপ্রতিনিধিদের চোখে পড়ছেনা। অনেক প্রসব ব্যথার রোগী পথেই প্রসব ব্যথা ওঠে যন্ত্রনায় কাতরাচ্ছেন।  এ দিকে রিকসা চালক ভাইরা ১০ টাকার ভাড়া ২০ থেকে ৩০ টাকা আদায় করছে। দূর দূরান্তের মানুষ নিরুপায় হয়ে যানে চলাচল করেন, গুণতে হয় কাড়ি কাড়ি টাকা। এতে রিকসা জীবীদের পোয়াবারো।  সাধারণ মানুষসহ সর্বস্তরের মানুষ জনপ্রতিনিধি ও সংশ্লিষ্টের দৃষ্টি আকর্ষন করেছেন।