পদ্মা ভাঙনে স্থায়ী সমাধানের দাবীতে প্রেস ক্লাবে ঢাকাস্থ গোয়ালন্দবাসীর মানববন্ধন

কামাল হোসেন, রাজবাড়ী প্রতিনিধিঃ রাজবাড়ী জেলাধীন গোয়ালন্দ উপজেলার দৌলতদিয়া ও দেবগ্রাম ইউনিয়ন সহ ৫ টি উপজেলার সবগুলো উপজেলায় পানি বৃদ্ধি ও তীব্র স্রোতে কেড়ে নিচ্ছে পদ্মা পাড়ে থাকা মানুষের মাথাগোঁজার ঠাঁই টুকু, সর্বনাশা পদ্মা নদীর এমন সর্বগ্রাসী রুপ মানুষের অস্তিত্বকে নদী গর্ভে বিলীন করে দিচ্ছে।

বর্তমানে গোয়ালন্দ উপজেলার দৌলতদিয়া ও দেবগ্রাম ইউনিয়ন দুটি সবচেয়ে ভয়াবহ নদী ভাঙ্গনের শিকার, এ ইউনিয়ন দুটির প্রায় অধিকাংশ বসতবাড়ী ও ফসলি জমি ইতোমধ্যে নদী গর্ভে বিলীন হয়ে গেছে। এভাবে ভাঙ্গতে থাকলে একদিন হয়তো বাংলাদেশের মানচিত্র থেকে বিলীন হয়ে যাবে গোয়ালন্দ উপজেলা নামক স্থানটি। নদী ভাঙন থেকে  রক্ষা পেতে স্থায়ী সমাধানের জন্য সরকারের উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষের দৃষ্টি আকর্ষণ করতে জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে ঢাকায় বসবাসরত গোয়ালন্দ উপজেলাবাসীর পক্ষ থেকে গতকাল এক মানববন্ধনের আয়োজন করা হয়।

মানববন্ধনে উপস্থিত বক্তারা বলেন নিজের জন্মস্থানের এমন দুর্দিনে গোয়ালন্দের অস্তিত্ব রক্ষার্থে  আয়োজিত এই মানববন্ধন।

উক্ত মানববন্ধনে উপস্থিত ছিলেন ঢাকায় বসবাসরত  গোয়ালন্দ উপজেলার চাকরীজীবি, ছাত্রসমাজ, গোয়ালন্দ ফাউন্ডেশন নামে সামাজিক সংগঠনসহ সর্বস্তরের জনসাধারণ।

উক্ত মানববন্ধনে সংক্ষিপ্ত বক্তব্য রাখেনঃ মো: জালাল মিয়াঁ সাবেক পরমানু কমিশনের চেযারম্যান, রফিকুল ইসলাম জাতীয় শিক্ষাক্রম ও পাঠ্যপুস্তক বোর্ডে কর্মরত, জহিরুল হক লাবলু জাদুঘর এমপ্লয়ি এসোসিয়েশনের সভাপতি, বেক্সিমকো ফার্মার ফজলুল হক ও ব্যবসায়ী হিরন মিয়াঁ।

মানববন্ধনে সকলের দাবি নদী ভাঙ্গন রোধে সরকার যেন অতি দ্রুত  প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহন করেন এবং ক্ষতিগ্রস্থদের পূর্ণবাসনে ব্যবস্থা করেন।