Saturday , 6 March 2021
Home » জাতীয় » সবসময় দেশ ও জাতির স্বার্থকে মাথায় রেখে সংবাদ পরিবেশন করতে হবে- মোহাম্মদ ইসতাক হোসেন

সবসময় দেশ ও জাতির স্বার্থকে মাথায় রেখে সংবাদ পরিবেশন করতে হবে- মোহাম্মদ ইসতাক হোসেন

সকালবেলা অনলাইনঃ বাংলাদেশ চলচ্চিত্র ও প্রকাশনা অধিদপ্তরের মোহাম্মদ ইসতাক হোসেন বলেছেন, সবসময় দেশ ও জাতির স্বার্র্থকে মাথায় রেখে সংবাদ পরিবেশন করতে হবে। কেননা সত্যি ঘটনা ও অনেকক্ষেত্রে দেশের জন্য বড় কোন অমঙ্গল বয়ে আনতে পারে।

তিনি শুক্রবার বিকেলে রাজধানীর মিরপুরের পল্লবীস্থ ভুতের বাড়ি রেস্টুরেন্টে আয়োজিত দৈনিক সকালবেলার প্রতিনিধি সম্মেলন’১৯ এ প্রধান অতিথির বক্তব্যে একথা বলেন। দৈনিক সকালবেলা’র সম্পাদক সৈয়দ এনামুল হকের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত এ সম্মেলনে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বোম্বে সুইটসের উপদেষ্টা ডি ডি ঘোষাল এবং সম্মানিত অতিথি বাংলাদেশ সংবাদপত্র কর্মচারী ফেডারেশনের সভাপতি মতিয়ুর রহমান তালুকদার। অনুষ্ঠানের স্বাগত ভাষণ দেন দৈনিক সকালবেলা’র নির্বাহী সম্পাদক অধ্যক্ষ নিলুফার আক্তার। বিশিষ্ট সংবাদ উপস্থাপক রেহেনা পারভীনের সঞ্চালনায় প্রতিনিধিদের মধ্যে আখতার হোসাইন, সাইফুল ইসলাম, তানজিম হোসেন, কামরুজ্জামান রতন প্রমুখ সংক্ষিপ্ত বক্তব্য প্রদান করে।

এসময় প্রধান অতিথি তার বক্তব্যে আরও বলেন, সংবাদের পিছনের সংবাদ খুঁজে আনাটা জরুরি। যদিও এই কাজে ঝুঁকি ও চ্যালেঞ্জ দুটিই রয়েছে। তবুও পাঠকের চাহিদার কথা বিবেকনায় রেখে এই ঝুঁকিপূর্ণ কাজটি সাংবাদিকদের করতে হয়। এসময় তিনি পত্রিকার সম্পাদকের দৃষ্টি আকর্ষন করে বলেন, সম্মেলনে অংশগ্রহণকারী আপনার সাংবাদিকদের অংশগ্রহণে আমি অনুপ্রাণিত হয়েছি। আপনি ইচ্ছে করলে এ প্রতিনিধিদের নিয়ে সংক্ষিপ্ত সময় নয়, দিনব্যাপী এ ধরণের আয়োজন করতে পারেন। যাতে তারা তাদের সুবিধা অসুবিধার কথা তুলে ধরতে পারেন। তাছাড়া আপনি চাইলে পিআইবিতে এই সাংবাদিকদের নিয়ে স্বল্পকালীন প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা করা যেতে পারে।

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে ডি ডি ঘোষাল দৈনিক সকালবেলা’র সম্পাদকের ভূয়সী প্রসংশা করে বলেন, এ পত্রিকার সম্পাদক আমার অত্যন্ত শ্রদ্ধাভাজন। উনি অত্যন্ত সৎ মানুষ। সুদীর্ঘ ২৩ বছর তার নিরলস প্রচেষ্টায় এই পত্রিকাটি ধরে রেখেছেন যা আসলেই অনুকরণীয় দৃষ্টান্ত । আমি হয়তো কিছুই করতে পারিনি তবুও সম্পাদকের আমন্ত্রণে বার বার আসি।
তিনি আরও বলেন, গণমাধ্যমের সাথে আমার যোগাযোগ ১৯৭২ সাল থেকে।এই খাতে আমার অল্পবিস্তর গবেষণা আছে। দৈনিক সকালবেলাতো বটেই এই ধরণের পত্রিকা যে কত অর্থনৈতিক দৈন্যদশায় ভুগে তা আমি জানি। কিন্তু পদ্ধতিগত কারণে হয়তো আমরা কিছু করতে পারিনা। তাই আগামীতে এই পত্রিকার পাশে থাকবো এই আশাবাদ আমার থাকলো।

সম্মনিত অতিথি তার বক্তব্যে বলেন, সাংবাদিকদের কল্যানে অচিরেই নবম ওয়েজবোর্ড বাস্তবায়ন হবে। এ ব্যাপারে সংস্লিষ্ট কর্তৃপক্ষদের দ্রুত হস্তক্ষেপ কামনা করেন।
তিনি প্রতিনিধিদের উদ্দেশ্যে বলেন, বিজ্ঞাপন হলো সংবাদপত্রের প্রাণ। আপনারা বেশি বেশি বিজ্ঞাপন দিবেন এতে পত্রিকার পাশাপাশি আপনারাও উপকৃত হবেন।

দৈনিক সকালবেলার সম্পাদক তার সভাপতির বক্তব্যে অংশগ্রহণকারী সকল সাংবাদিকদের ধন্যবাদ জানিয়ে বলেন, বস্তুনিষ্ঠ সত্য সংবাদ পরিবেশন করলে সমাজ ও জাতি উপকৃত হবে। একজন ভালো রিপোর্র্টারের রিপোর্র্ট পত্রিকার সার্কুলেশন বৃদ্ধিতে গুরুত্বপূর্র্ণ ভূমিকা পালন করে। তিনি অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি, বিশেষ অতিথি এবং সম্মানিত অতিথিদের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন এবং অংশগ্রহণকারী সকল সাংবাদিকদের ধন্যবাদ জ্ঞাপন করে অনুষ্ঠানের সমাপ্তি ঘোষণা করেন।

About Sakal Bela

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*