শ্যামলীতে সড়ক অবরোধ করে পোশাক শ্রমিকদের বকেয়া বেতন দাবী

আবারো পোশাক শ্রমিকেরা বকেয়া বেতনের দাবিতে সড়ক অবরোধ করে। রাজধানীর শ্যামলীর মিরপুর সড়কে অবস্থান নেওয়ায় সড়কে যানচলাচল বন্ধ হয়ে গেছে। বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ৯টা থেকে সড়ক অবরোধ শুরু হয়। বকেয়া বেতনের দাবিতে ডায়নামিক গ্রুপের ক্রিয়েটিভ ফ্যাশনের সামনের সড়কে শ্রমিকরা অবস্থান নেন।যানচলাচল বন্ধ হলেও এটা তাদের ন্যায্য দাবী। গাবতলী থেকে ফার্মগেট এবং আশপাশের সব সড়কে তীব্র যানজটের সৃষ্টি হয়। সড়কের দুপাশে আটকা পড়েছে কয়েকশ গাড়ি। এতে দুর্ভোগে পড়েন অফিসগামী মানুষসহ জনসাধারণ। দুপাশে প্রায় ৮০০ শ্রমিক অবস্থান নিয়েছেন। দুই ঘণ্টারও বেশি সময় ধরে ধর্মঘট চলছে।

ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের ট্রাফিক বিভাগের (পশ্চিম) দায়িত্বরত কর্মকর্তা কেএম শহিদুল ইসলাম বলেন, ক্রিয়েটিভ ফ্যাশন নামে পোশাক কারখানার শ্রমিকরা সড়কে অবস্থান নিয়েছেন। আমরা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনার চেষ্টা করছি।বিক্ষুব্ধ শ্রমিকরা জানান, দীর্ঘদিন ধরে তাদের বেতনভাতা বন্ধ। বারবার দাবি জানিয়েও বেতন হচ্ছে না। তাই তারা সড়কে অবস্থান নিয়েছেন।আদাবরের রিং রোড এলাকার এই কারখানার শ্রমিকদের অভিযোগ, ওই প্রতিষ্ঠানে তাদের তিন মাসের বেতন বাকি। নতুন বছরে ইনক্রিমেন্টও দেয়া হচ্ছে না তাদের। সেই সঙ্গে দেয়া হচ্ছে ছাঁটাইয়ের হুমকি। এ অবস্থার পরিপ্রক্ষিতে বকেয়া বেতন আদায়ে মালিকপক্ষকে বাধ্য করতে সড়ক অবরোধ করে রেখেছেন তারা।বলার অপেক্ষা রাখে না যে,যারা দিন রাত কঠোর পরিশ্রম করে পোশাক তৈরি করেন আর সেই পোশাক নিম্নবিত্ত,মধ্যবিত্ত,সর্বোপরি শিল্পপতিরা গায়ে জড়িয়ে দামী গাড়ীতে চড়ে বেড়ান এবং দেশ- বিদেশ সফর করেন তাদের লজ্জিত হওয়া উচিত।এই তৈরি পোশাক খাত থেকে প্রচুর বৈদেশিক মূদ্রা অর্জন করে বাংলাদেশ।দেশ-বিদেশে যেন আর সুনাম ক্ষুণ্ণ না হয় এখনই সময় যথাযথ পদক্ষেপ নেওয়ার।