Tuesday , 29 September 2020
Home » দৈনিক সকালবেলা » পাচঁফোড়ন »  ভোট বর্জনের ঘোষণা হিন্দু মহাজোটের

 ভোট বর্জনের ঘোষণা হিন্দু মহাজোটের

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ 
ঢাকা সিটি করপোরেশন নির্বাচনের তারিখ পরিবর্তন করা না হলে, ভোট বর্জনের ঘোষণা দিয়েছে বাংলাদেশ জাতীয় হিন্দু মহাজোট।
আজ (শুক্রবার) রাজধানীর সেগুনবাগিচায় বাংলাদেশ ক্রাইম রিপোর্টার্স অ্যাসোসিয়েশন মিলনায়তনে এক সংবাদ সম্মেলনে সংগঠনের নেতারা বলেছেন,  তফসিল অনুযায়ী ৩০ জানুয়ারিই যদি ভোটের আয়োজন করা হয়, তাহলে সেদিন সকাল ৮টায় জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে সরস্বতী পূজা করে রাজপথে অঞ্জলি নিয়ে কালো পতাকা মিছিল করবে তারা।
পূজার দিনে ভোটের তারিখ রাখার মধ্য দিয়ে নির্বাচন কমিশন হিন্দু সম্প্রদায়ের আস্থা হারিয়েছে বলেও মন্তব্য করেছেন হিন্দু মহাজোটের মুখপাত্র পলাশ কান্তি দে।
এ সময় এক লিখিত বক্তব্যে তিনি বলেন, আমরা ৩০ জানুয়ারির ঢাকা সিটির ভোট বর্জন করছি। কোনো হিন্দু ভাই ভোট কেন্দ্রে যাবেন না। কোনো প্রচারে অংশ নেবেন না।
তিনি আরো বলেন, যারা একটি গোষ্ঠীকে বাদ দিয়ে নির্বাচন করতে চায়, তারা সাংবিধানিক কোনো পদে থাকতে পারে না। আমরা প্রধান নির্বাচন কমিশনারের পদত্যাগ দাবি করছি।
“আমরা সকল রাজনৈতিক দলের মেয়র প্রার্থী ও কাউন্সিলরদের অনুরোধ করছি আমাদের দাবির প্রতি একাত্মতা প্রকাশ করার জন্য।”
এই কমিশন দিয়ে নিরপেক্ষ ও  সুষ্ঠু ভোট আশা করা যায় না মন্তব্য করে পলাশ বলেন, “যারা একটি বৃহৎ সম্প্রদায়কে ভোট দান থেকে বিরত রাখতে চায়, তাদের উদ্দেশ্য ভালো না, তারা মুজিববর্ষের বাংলাদেশকে বিতর্কিত করতে চায়।”
নির্বাচন কমিশনের এই অনঢ় অবস্থান কেন? সেই প্রশ্ন তুলে শ্যামল কুমার বলেন, “নির্বাচনের তারিখ পরিবর্তনের জন্য আন্দোলন শুরু হয়েছে। মেয়র প্রার্থী সকলেই তারিখ পরিবর্তনের পক্ষে কথা বলেছেন। সেতুমন্ত্রীও বলেছেন। এখন যেখানে শান্তি-শৃঙ্খলা বিঘ্ন হওয়ার মত পরিস্থিতি দেখা দিয়েছে, ধর্মীয় সেন্টিমেন্টের ব্যাপার। এখন প্রধান নির্বাচন কমিশনার এতো হার্ডলাইনে কেন? নির্বাচনের তারিখ কী আসমানি বিধান নাকি যে ওই তারিখেই হতে হবে। অবশ্যই পরিবর্তন করা যাবে’’।
পূজার দিনে ভোটের তারিখ রাখার মধ্যে দিয়ে মুজিববর্ষ উদযাপনকে কলুষিত করার চেষ্টা চলছে বলেও অভিযোগ করেন মহাজোটের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি প্রভাস চন্দ্র মণ্ডল।
এ সময় তারিখ পরিবর্তন না করা হলে কঠোর থেকে কঠোর কর্মসূচি আসবে বলেও জানান তিনি।
সম্মেলনে অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, হিন্দু মহাজোটের সহ-সভাপতি ডিসি রায়, রণজিত মৃধা, যুগ্ম মহাসচিব সমীর সরকার, অখিল মণ্ডল, ফণি ভূষণ হালদার প্রমুখ।  
 

About Sakal Bela

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

error: Content is protected !!