মোবাইল ফোনের জন্য ৩য় শ্রেণির শিক্ষার্থী আপনের আত্মহত্যা

অনলাইন ডেস্ক:

কুড়িগ্রামের ফুলবাড়ীতে মোবাইল ফোনের জন্য ৩য় শ্রেণির শিক্ষার্থী আপন আত্মহত্যা করেছে।নিহত ওই শিক্ষার্থীর নাম আপন মিয়া (১১)। সে ওই গ্রামের আইনুল ইসলামের একমাত্র ছেলে ও গোরক মন্ডল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের তৃতীয় শ্রেণির শিক্ষার্থী।রোববার সন্ধ্যা ৬টায় উপজেলার গোরক মন্ডল গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।পারিবারিক ও স্থানীয় সূত্র থেকে জানা যায়, প্রায় এক সপ্তাহ আগে বাবার কাছে মোবা্ইল কেনার বায়না ধরে আপন মিয়া। বাবা আইনুল কয়েকদিন পরে মোবাইল কিনে দিবেন বলে জানান। কিন্তু মোবাইল ফোনের টাকা যোগাড় করতে পারেননি বাবা আইনুল ইসলাম।এজন্য বাবা-মায়ের সাথে অভিমান করে রোববার সন্ধ্যায় সকলের অগোচরে আপন নিজ ঘরের আড়ের সাথে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করে। নাওডাঙ্গা ইউপি চেয়ারম্যান মুসাব্বের আলী মুসা ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।ফুলবাড়ী থানার ওসি রাজীব কুমার রায় জানান, আমরা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছি। প্রাথমিকভাবে এটি আত্মহত্যাই মনে হচ্ছে। এ ব্যাপারে একটি অপমৃত্যু মামলা দায়ের করা হয়েছে।