Saturday , 5 December 2020
E- mail: news@dainiksakalbela.com/ sakalbela1997@gmail.com
Home » দৈনিক সকালবেলা » উপজেলার খবর » জন্মই যেন আজন্ম পাপঃ হরিজন সম্প্রদায়ে জন্ম বলেই!

জন্মই যেন আজন্ম পাপঃ হরিজন সম্প্রদায়ে জন্ম বলেই!

সকারবেলা অনলাইন ডেস্কঃ
জন্মই যেন আজন্ম পাপ। হরিজন সম্প্রদায়ের জন্ম নেয়ার কারণেই লেখা পড়া বন্ধ হতে চলেছে মৌলভীবাজারের কুলাউড়া শহরের ছোট্ট শিশু বিরাট বাসপরের।শিশুটি হরিজন সম্প্রদায়ের, এটাই তার অপরাধ।পড়ালেখা করে বড় হবে এমন স্বপ্ন নিয়ে বিরাট ভর্তি হয় স্থানীয় একটি বেসরকারি স্কুলে। কিন্তু ক্লাস শুরুর আগেই তার বাবা মনা বাসপরকে ডেকে ছেলেকে স্কুলে যেতে নিষেধ করে কর্তৃপক্ষ। তাই স্কুলে ভর্তি হওয়ার পরও ক্লাসে যেতে নিষেধ করে দেয় স্কুল কর্তৃপক্ষ। এমন ঘটনা ঘটেছে মৌলভীবাজারের কুলাউড়ায়।বিরাটের বাবার লিখিত অভিযোগের প্রেক্ষিতে মৌলভীবাজারের কুলাউড়ার উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা এ টি এম ফরহাদ চৌধুরী নির্দেশ দেন,বিরাট যেন ঠিকভাবে স্কুলে যেতে পারে সে বিষয়ে স্কুল কর্তৃপক্ষকে অবহিত করা হয়েছে। আপাতত স্কুলে গেলেও দেখা দিয়েছে শঙ্কা। স্কুল কর্তৃপক্ষ বলছে, শিশু বিরাটের স্কুলে আসাকে ইতিবাচক হিসেবে দেখছেন না অনেক অভিভাবক।প্রসংগত উল্লেখ্য যে, স্কুল কর্তৃপক্ষের কাছে অভিভাবক বড় নাকি ছাত্র? কোন সম্প্রদায়ের এটা বড় কথা নয়। লেখাপড়া করে বড় হবার স্বপ্ন নিয়েই তো সে স্কুলে ভর্তি হয়েছিল।কিন্ত তার সেই স্বপ্ন কি অকালেই ঝড়ে যাবে তথাকথিত অভিভাবকদের নেতিবাচক দৃষ্টিভঙ্ঘিতে? এরা কোন সম্প্রদায়ের অভিভাবক? এ ঘটনায় ক্ষুদ্ধ হরিজন সম্প্রদায়সহ সচেতন মানুষ।স্কুল পরিচালনা কমিটির সভাপতি বিপুল কুমার বৈদ্যের মহান দায়িত্ব হলো বিরাটের স্কুলে আসা নিশ্চিত করা।অগ্রদূত চাইল্ড কেয়ার হোমসের প্রধান শিক্ষক নিখিল বর্ধন বলেন, একজনের জন্য যদি অনেকেই স্কুল ছেড়ে চলে যায় তাহলে প্রতিষ্ঠান আর্থিকভাবে ক্ষতির সম্মুখীন হতে পারে।এমন ঘটনায় ক্ষুদ্ধ হরিজন সম্প্রদায়। তাদের অভিযোগ, শিক্ষা প্রতিষ্ঠানসহ প্রতিটি ক্ষেত্রে বৈষম্যের শিকার তারা। শিক্ষাঙ্গানসহ সমাজের প্রতিটি স্তরের বৈষম্য দূর করার দাবিও জানিয়েছেন হরিজন সম্প্রদায়ের এ মানুষগুলো।

About Sakal Bela

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*