Sunday , 28 February 2021
E- mail: news@dainiksakalbela.com/ sakalbela1997@gmail.com
Home » দৈনিক সকালবেলা » পাচঁফোড়ন » পাপিয়ার ১২৯ দিনের হোটেল বিলই ৩ কোটি ২৩ লাখ টাকা

পাপিয়ার ১২৯ দিনের হোটেল বিলই ৩ কোটি ২৩ লাখ টাকা

অনলাইন ডেক্স:  টানা ৪ মাস ৯ দিন গুলশানের একটি পাঁচ তারকা হোটেলের চারটি কক্ষ (একটি প্রেসিডেনশিয়াল স্যুটসহ) ভাড়া নিয়েছিলেন শামীমা নূর পাপিয়া। গত বছরের ১৩ অক্টোবর থেকে চলতি বছরের ২২ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত হোটেলটির কক্ষ ভাড়া, খাবার, আনুষঙ্গিক খরচসহ তিনি মোট বিল পরিশোধ করেছেন ৩ কোটি ২৩ লাখ টাকা। প্রতিদিন হোটেলের বিল বাবদ গড়ে খরচ করেছেন আড়াই লাখ টাকা। রিমান্ডে জিজ্ঞাসাবাদে পাপিয়া এই তথ্য দিয়েছেন বলে তদন্তসংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা জানান।
তদন্তসংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, জিজ্ঞাসাবাদে পাপিয়া বলেছেন, গত বছরের ১২ সেপ্টেম্বর তাঁকে গুলশানের একটি পাঁচ তারকা হোটেলে খেতে নিয়ে যান যুব মহিলা লীগের এক নেত্রী। সেখানকার পরিবেশ দেখে তিনি মুগ্ধ হন। পরে আরেক দিন স্বামী মফিজুর রহমান ওরফে সুমনকে নিয়ে তিনি (পাপিয়া) হোটেলটির ভিআইপি স্যুটে থাকা-খাওয়াসহ বিভিন্ন খরচ সম্পর্কে জানতে যান। এরপর গত ১৩ অক্টোবর ওই পাঁচ তারকা হোটেলের চারটি স্যুট ভাড়া নেন। টানা ১২৯ দিন তিনি ও তাঁর সহযোগীরা বিভিন্ন সময়ে হোটেলটিতে অবস্থান করেন। ২২ ফেব্রুয়ারি ৩ কোটি ২৩ লাখ টাকা বিল পরিশোধ করে হোটেল ছেড়ে চলে যান তাঁরা। একটি গোয়েন্দা সংস্থার লোকজন তাঁদের অনুসরণ করছেন, এটি বুঝতে পেরেই হোটেল ছেড়ে দেন তাঁরা।
হোটেল কর্তৃপক্ষের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, একটি স্যুটের প্রতিদিনের ভাড়া ৫০ হাজার টাকার বেশি। আর পাপিয়া জিজ্ঞাসাবাদে বলেছেন, হোটেলের বিল একসঙ্গে নয়, বিভিন্ন সময়ে পরিশোধ করেছেন নগদ টাকায়।অবশ্য বিমানবন্দর থানায় র‍্যাব-১-এর সিনিয়র ওয়ারেন্ট অফিসার মো. সাইফুল ইসলামের করা মামলায় বলা হয়, পাপিয়া ও সুমন গুলশানের পাঁচ তারকা হোটেলের ৪টি স্যুট ভাড়া নিয়ে মোট ৫১ দিন থেকেছেন। এতে তাঁদের বিল হয় ২ কোটি ৮ লাখ ৯২ হাজার টাকা। পাপিয়া হোটেলের কর্মীদের প্রতিদিন ৮ থেকে ১০ হাজার টাকা বকশিশ দিতেন। অর্থের উৎস সম্পর্কে তাঁরা জিজ্ঞাসাবাদে র‍্যাবকে জানান, দীর্ঘদিন ধরে পাপিয়া ও সুমন দম্পতি অস্ত্র, মাদক, চোরাচালান, জাল নোটের কারবার, চাঁদাবাজি, তদবির-বাণিজ্য, জায়গাজমি দখল-বেদখল ও অনৈতিক বাণিজ্যের মাধ্যমে অর্থবিত্তের মালিক হন।

About Sakal Bela

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*