করোনায় বিপর্যস্ত ইরানে আকস্মিক বন্যা, ১২ জনের মৃত্যু, আহত ১৭ জন

--ছবি : সংগৃহীত

সকালবেলা আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ

করোনায় বিপর্যস্ত ইরানে আকস্মিক বন্যায় অন্তত ১২ জনের মৃত্যু হয়েছে। প্রবল বর্ষণের কারণে ১৯টি প্রদেশে সৃষ্ট এ বন্যায় আহত হয়েছেন আরও ১৭ জন।

বন্যার পানিতে আটকেপড়া মানুষের জন্য ক্ষতিগ্রস্ত রাস্তাগুলো মেরামতের কাজ দ্রুতগতিতে চলছে বলেও জানান তিনি।

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত এ দেশটিতে আকস্মিক বন্যা এখানকার মানুষের দুর্ভোগে নতুনমাত্রা যোগ করেছে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রাখতে ইরান সরকার রাষ্ট্রীয় জরুরি অবস্থা জারি করেছে।

ইরানের যেসব প্রদেশে বন্যা দেখা দিয়েছে, সেগুলো হচ্ছে- পূর্ব আজারবাইজান, বুশেহর, চাহারমাহাল-বাখতিয়ারি, দক্ষিণ খোরাসান, খোরাসান রাজাভি, উত্তর খোরাসান, খুজিস্তান, সেমনান, সিস্তান-বেলুচিস্তান, ফার্স, কাজভিন, কোম, কেরমান, কুহকিলুয়েহ-বুয়েরআহমান, গুলিস্তান, গিলান, মাজান্দারান, মধ্যপ্রদেশ ও হরমুজগান।

এদিকে ইরানের রেড ক্রিসেট সোসাইটির ত্রাণ ও উদ্ধার কমিটির প্রধান কর্মকর্তা মুর্তজা সালিমি জানিয়েছেন, তার কর্মীরা বন্যাদুর্গত ১৯টি প্রদেশে ব্যাপক উদ্ধার তৎপরতা শুরু করেছে।

সারা দেশের ৬১টি শহর ও গ্রাম এবং ৯টি পাহাড়ি এলাকায় ১০০টি উদ্ধারকারী দল পাঠানো হয়েছে বলে তিনি জানান।  ক্ষতিগ্রস্ত মানুষের মধ্যে জরুরি খাদ্য, ওষুধ ও ত্রাণ বিতরণ চলছে বলেও জানিয়েছেন রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটির এ কর্মকর্তা।

ইরানে যখন ব্যাপকভাবে করোনাভাইরাস ছড়িয়ে পড়েছে। ১৯৩৪ জন মারা গেছে করোনায়। সবশেষ ২৪ ঘণ্টায় ১২২ জনের মৃত্যু হয়েছে। আক্রান্ত ব্যক্তিদের চিকিৎসা ও নতুন করে ছড়িয়ে পড়া রোধ করতে ব্যাপক কর্মযজ্ঞ চলছে, তখন দেশটিতে বন্যা দেখা দিল।

খবরঃ তাসনিম নিউজ এজেন্সি