Friday , 18 September 2020
Home » দৈনিক সকালবেলা » বিভাগীয় সংবাদ » গ্রাম-বাংলা » পঞ্চগড়ে রড দিয়ে পিটিয়ে স্ত্রীকে হত্যা করল পাষন্ড স্বামী, অবশেষে গ্রেপ্তার

পঞ্চগড়ে রড দিয়ে পিটিয়ে স্ত্রীকে হত্যা করল পাষন্ড স্বামী, অবশেষে গ্রেপ্তার

অনলাইন ডেস্ক:
পঞ্চগড়ে জোসনা বেগম (২৫) নামে এক গৃহবধূকে লোহার রড দিয়ে পিটিয়ে হত্যা করল পাষন্ড স্বামী।স্বামী দেলোয়ার হোসেনকে (৩৫) গতকাল শনিবার সন্ধ্যায় গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। দাম্পত্য কলহের জেরে তাঁকে হত্যা করা হয়েছে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করছে পুলিশ।
গ্রেপ্তারকৃত দেলোয়ারের বাড়ি পঞ্চগড় সদর উপজেলার ধাক্কামারা ইউনিয়নের দোমনি সরকারপাড়া এলাকায়। তিনি ওই এলাকার মৃত মইনুদ্দীনের ছেলে।
পুলিশ ও স্থানীয়রা জানায়, প্রায় আট বছর আগে পঞ্চগড় সদর উপজেলার ধাক্কামারা ইউনিয়নের দোমনি সরকারপাড়া এলাকার মইনুদ্দীনের ছেলে দেলোয়ার হোসেনের সাথে পঞ্চগড় সদর ইউনিয়নের ডাবরভাঙ্গা এলাকার গিয়াস উদ্দিনের মেয়ে জোসনা বেগমের বিয়ে হয়। বিয়ের পর তাদের সংসার ভালোই চলছিল। তাদের ৪ বছরের একটি মেয়ে সন্তান রয়েছে।
গত কয়েক বছর ধরে তাদের দাম্পত্য ও পারিবারিক কলহ চলে আসছিল। কারণে অকারণে দেলোয়ার জোসনাকে মারধর করতো। দেলোয়ার বার বার তাকে তালাকের হুমকি দিতো। এ নিয়ে একাধিকবার শালিসও হয়েছে। শনিবার সকালে কথা কাটাকাটির জেরে দেলোয়ার লোহার রড দিয়ে জোসনার মাথায় বেশ কয়েকবার আঘাত করে। এতে মাথা মারাত্মকভাবে জখম হয়। অজ্ঞান হয়ে মাটিতে পড়ে যায় জোসনা। অবস্থা বেগতিক দেখে শ্বশুর বাড়ির লোকজন জোসনাকে প্রথমে পঞ্চগড় আধুনিক সদর হাসপাতালে নিয়ে যায়। তার অবস্থা আশঙ্কজনক হওয়ায় তাকে চিকিৎকরা দ্রুত রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তরের পরামর্শ দেন। পরে তাকে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হলে সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় দুপুরেই মারা যায় জোসনা। খবর পেয়ে পঞ্চগড় সদর থানা পুলিশ দেলোয়ারকে গ্রেপ্তার করে। এ ঘটনায় জোসনার পরিবারের পক্ষ থেকে থানায় হত্যা মামলার প্রক্রিয়া চলছে।
পঞ্চগড় সদর থানার ওসি আবু আক্কাস আহমদ বলেন, দাম্পত্য ও পারিবারিক কলহের জেরে ঝগড়ার এক পর্যায়ে দেলোয়ার তার স্ত্রী জোসনাকে লোহার রড দিয়ে মাথায় আঘাত করে। পরে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যায় সে। দেলোয়ারকে আমরা গ্রেপ্তার করেছি। এ বিষয়ে হত্যা মামলার প্রস্তুতি চলছে। ওই গৃহবধূর লাশ ময়নাতদন্ত শেষে তার পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হবে।

About Sakal Bela

পঞ্চগড়ে রড দিয়ে পিটিয়ে স্ত্রীকে হত্যা করল পাষন্ড স্বামী, অবশেষে গ্রেপ্তার

অনলাইন ডেস্ক:
পঞ্চগড়ে জোসনা বেগম (২৫) নামে এক গৃহবধূকে লোহার রড দিয়ে পিটিয়ে হত্যা করল পাষন্ড স্বামী।স্বামী দেলোয়ার হোসেনকে (৩৫) গতকাল শনিবার সন্ধ্যায় গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। দাম্পত্য কলহের জেরে তাঁকে হত্যা করা হয়েছে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করছে পুলিশ।
গ্রেপ্তারকৃত দেলোয়ারের বাড়ি পঞ্চগড় সদর উপজেলার ধাক্কামারা ইউনিয়নের দোমনি সরকারপাড়া এলাকায়। তিনি ওই এলাকার মৃত মইনুদ্দীনের ছেলে।
পুলিশ ও স্থানীয়রা জানায়, প্রায় আট বছর আগে পঞ্চগড় সদর উপজেলার ধাক্কামারা ইউনিয়নের দোমনি সরকারপাড়া এলাকার মইনুদ্দীনের ছেলে দেলোয়ার হোসেনের সাথে পঞ্চগড় সদর ইউনিয়নের ডাবরভাঙ্গা এলাকার গিয়াস উদ্দিনের মেয়ে জোসনা বেগমের বিয়ে হয়। বিয়ের পর তাদের সংসার ভালোই চলছিল। তাদের ৪ বছরের একটি মেয়ে সন্তান রয়েছে।
গত কয়েক বছর ধরে তাদের দাম্পত্য ও পারিবারিক কলহ চলে আসছিল। কারণে অকারণে দেলোয়ার জোসনাকে মারধর করতো। দেলোয়ার বার বার তাকে তালাকের হুমকি দিতো। এ নিয়ে একাধিকবার শালিসও হয়েছে। শনিবার সকালে কথা কাটাকাটির জেরে দেলোয়ার লোহার রড দিয়ে জোসনার মাথায় বেশ কয়েকবার আঘাত করে। এতে মাথা মারাত্মকভাবে জখম হয়। অজ্ঞান হয়ে মাটিতে পড়ে যায় জোসনা। অবস্থা বেগতিক দেখে শ্বশুর বাড়ির লোকজন জোসনাকে প্রথমে পঞ্চগড় আধুনিক সদর হাসপাতালে নিয়ে যায়। তার অবস্থা আশঙ্কজনক হওয়ায় তাকে চিকিৎকরা দ্রুত রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তরের পরামর্শ দেন। পরে তাকে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হলে সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় দুপুরেই মারা যায় জোসনা। খবর পেয়ে পঞ্চগড় সদর থানা পুলিশ দেলোয়ারকে গ্রেপ্তার করে। এ ঘটনায় জোসনার পরিবারের পক্ষ থেকে থানায় হত্যা মামলার প্রক্রিয়া চলছে।
পঞ্চগড় সদর থানার ওসি আবু আক্কাস আহমদ বলেন, দাম্পত্য ও পারিবারিক কলহের জেরে ঝগড়ার এক পর্যায়ে দেলোয়ার তার স্ত্রী জোসনাকে লোহার রড দিয়ে মাথায় আঘাত করে। পরে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যায় সে। দেলোয়ারকে আমরা গ্রেপ্তার করেছি। এ বিষয়ে হত্যা মামলার প্রস্তুতি চলছে। ওই গৃহবধূর লাশ ময়নাতদন্ত শেষে তার পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হবে।

About Sakal Bela

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*