Friday , 25 September 2020
Home » জীবনযাপন » সাহিত্য » কবিতা » কবি ও সাংবাদিক মাশুক চৌধুরীর দাফন সম্পন্ন

কবি ও সাংবাদিক মাশুক চৌধুরীর দাফন সম্পন্ন

অনলাইন প্রতিবেদক:

বাংলাদেশ প্রতিদিনের প্রধান বার্তা সম্পাদক কবি ও সাংবাদিক মাশুক চৌধুরীর দাফন সম্পন্ন হয়েছে।
বুধবার সকাল ৭টায় হাজীপাড়ায় প্রথমদফা এবং উত্তর মাদারটেক বায়তুল্লাহ জামে মসজিদে দিতীয় দফা নামাজে জানাজা অনুষ্ঠিত হয়। জানাজা শেষে মাদারটেক কবরস্থানে দাফন সম্পন্ন হয়।

এর আগে মঙ্গলবার দিবাগত রাতে রাজধানীর একটি হাসপাতালে তিনি ঠাণ্ডাজনিত রোগে ইন্তেকাল করেন মাশুক চৌধুরী (ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিলো ৭৩ বছর।

গত ১৬ জুন অসুস্থ হয়ে শাহজাহানপুরে প্যান প্যাসিফিক হাসপাতাল ভর্তি হন কবি ও সাংবাদিক মাশুক চৌধুরী। করোনা পরীক্ষার পর তার রিপোর্ট নেগেটিভ আসে। এরপর নিউমোনিয়া ধরা পড়ে এই বিশিষ্ট কবি ও সাংবাদিকের। মাশুক চৌধুরীর ছোট ভাই আশরাফুল হায়দার চৌধুরী জানান, মঙ্গলবার রাত ১২টায় তার অবস্থার অবনতি ঘটে। চিকিৎসকরা আইসিইউ’র জন্য অন্য হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার পরামর্শ দেন। সেখান থেকে তাকে রাশমনো হাসপাতালে নেওয়া হয়। কিন্তু রাত দেড়টায় চিকিৎসকরা তাকে মৃত ঘোষণা করেন।
মাশুক চৌধুরী ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে বাংলা বিভাগে পড়াশোনা শেষ করে সাংবাদিকতা পেশায় যোগ দেন। তিনি দৈনিক সংবাদ, দৈনিক খবর, দৈনিক দেশসহ বিভিন্ন পত্রিকায় কাজ করেছেন। বাংলাদেশ প্রতিদিন তার সর্বশেষ কর্মস্থল। মাশুক চৌধুরীর প্রকাশিত কাব্যগ্রন্থের মধ্যে বিখ্যাত কয়েকটির নাম, ‘মুক্তিযুদ্ধ প্রিয়তমা আমার’, ‘নির্বাচিত কবিতা’, ‘স্বর্গের রেপ্লিকা’, ‘অত্যাগসহন’ ও ‘নদীর নাম দুঃসময়’।
মাশুক চৌধুরীর মৃত্যুতে জাতীয় প্রেস ক্লাব সভাপতি সাইফুল আলম এবং সাধারণ সম্পাদক ফরিদা ইয়াসমিন গভীর শোক প্রকাশ করেছেন এবং শোকসন্তপ্ত পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদনা জানান।

About Sakal Bela

কবি ও সাংবাদিক মাশুক চৌধুরীর দাফন সম্পন্ন

অনলাইন প্রতিবেদক:

বাংলাদেশ প্রতিদিনের প্রধান বার্তা সম্পাদক কবি ও সাংবাদিক মাশুক চৌধুরীর দাফন সম্পন্ন হয়েছে।
বুধবার সকাল ৭টায় হাজীপাড়ায় প্রথমদফা এবং উত্তর মাদারটেক বায়তুল্লাহ জামে মসজিদে দিতীয় দফা নামাজে জানাজা অনুষ্ঠিত হয়। জানাজা শেষে মাদারটেক কবরস্থানে দাফন সম্পন্ন হয়।

এর আগে মঙ্গলবার দিবাগত রাতে রাজধানীর একটি হাসপাতালে তিনি ঠাণ্ডাজনিত রোগে ইন্তেকাল করেন মাশুক চৌধুরী (ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিলো ৭৩ বছর।

গত ১৬ জুন অসুস্থ হয়ে শাহজাহানপুরে প্যান প্যাসিফিক হাসপাতাল ভর্তি হন কবি ও সাংবাদিক মাশুক চৌধুরী। করোনা পরীক্ষার পর তার রিপোর্ট নেগেটিভ আসে। এরপর নিউমোনিয়া ধরা পড়ে এই বিশিষ্ট কবি ও সাংবাদিকের। মাশুক চৌধুরীর ছোট ভাই আশরাফুল হায়দার চৌধুরী জানান, মঙ্গলবার রাত ১২টায় তার অবস্থার অবনতি ঘটে। চিকিৎসকরা আইসিইউ’র জন্য অন্য হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার পরামর্শ দেন। সেখান থেকে তাকে রাশমনো হাসপাতালে নেওয়া হয়। কিন্তু রাত দেড়টায় চিকিৎসকরা তাকে মৃত ঘোষণা করেন।
মাশুক চৌধুরী ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে বাংলা বিভাগে পড়াশোনা শেষ করে সাংবাদিকতা পেশায় যোগ দেন। তিনি দৈনিক সংবাদ, দৈনিক খবর, দৈনিক দেশসহ বিভিন্ন পত্রিকায় কাজ করেছেন। বাংলাদেশ প্রতিদিন তার সর্বশেষ কর্মস্থল। মাশুক চৌধুরীর প্রকাশিত কাব্যগ্রন্থের মধ্যে বিখ্যাত কয়েকটির নাম, ‘মুক্তিযুদ্ধ প্রিয়তমা আমার’, ‘নির্বাচিত কবিতা’, ‘স্বর্গের রেপ্লিকা’, ‘অত্যাগসহন’ ও ‘নদীর নাম দুঃসময়’।
মাশুক চৌধুরীর মৃত্যুতে জাতীয় প্রেস ক্লাব সভাপতি সাইফুল আলম এবং সাধারণ সম্পাদক ফরিদা ইয়াসমিন গভীর শোক প্রকাশ করেছেন এবং শোকসন্তপ্ত পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদনা জানান।

About Sakal Bela

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

error: Content is protected !!