Wednesday , 23 June 2021
ব্রেকিং নিউজ
Home » জাতীয় » যে কোন নির্বাচন এলেই বিএনপি চিৎকার শুরু করে, নির্বাচনে হারার আগেই হেরে যায় —- সড়ক পরিবহন ও সেতু মন
যে কোন নির্বাচন এলেই বিএনপি চিৎকার শুরু করে, নির্বাচনে হারার আগেই হেরে যায় —- সড়ক পরিবহন ও সেতু মন

যে কোন নির্বাচন এলেই বিএনপি চিৎকার শুরু করে, নির্বাচনে হারার আগেই হেরে যায় —- সড়ক পরিবহন ও সেতু মন

মুন্সীগঞ্জ সংবাদদাতা:

যে কোন নির্বাচন এলেই বিএনপি চিৎকার শুরু করে, নির্বাচনে হারার আগেরই হেরে যায়। মির্জা ফকরুল সাহেবকে আমি জিজ্ঞাসা করতে চাই বগুড়া থেকে আপনি নির্বাচনে কিভাবে জয় পেলেন? আপনি কি কারচুপি করেছেন, তিনি আরো বলেন. মির্জা ফখরুল বলেছেন সরকারের নাকি জনসমর্থন ছিলো না। আমি জানতে চাই জনসমর্থণ আছে কিনেই, তার মানদন্ড টা কি, সে অভিন্ন মাত্রাটিতে আপনাদের জনসমর্থণ দেখেছেন? জাতীয় নির্বাচনসহ অন্যান্য নির্বাচনের দিখে তাকালে আপনাদের অবস্থান স্পষ্ট। সকল নির্বাচনেই বিএনপি জনগনের কাছ থেকে প্রত্যাখান হয়েছে। সোমবার বেলা সাড়ে ১১ টায় মুন্সীগঞ্জের শ্রীনগরে সড়ক ও জন পথের পরিদর্শণ বাংলো “পদ্মা” উদ্বোধন কালে সরাসরি তার বাস ভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে তিনি এসব কথা বলেন। এ সময় তিনি বলেন জাতীয় সংসদের ৫ টি শুন্য আসনের উপ-নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছে। পার্টির সভাপতি ও মনোনয়ন বোর্ডের চেয়ারপার্সন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে গতকাল দলের সংসদীয় সভা অনুষ্ঠিত হয়। ১৪১ জন প্রার্থী আমাদের প্রার্থী ফরম জমা দিয়েছেন। একটি আসনে প্রার্থী ঘোষণা করেছি, বাকিগুলো সিডিউল ঘোষণা করা হলে চুরান্ত সিদ্ধানের দায়িত্ব প্রধানমন্ত্রী শেক হাসিনার। এছাড়া সিটি কর্পোরেশনের উদ্দেশে তিনি বলেন, মশকনিধন কার্যক্রম জোরদার পরিস্কার পরিচ্ছন্নতার অভিযানে আহবান জানান। “পদ্মা” বাংলো উদ্বোধন কালে ভিডিও কনফারেন্সে যুক্ত ছিলেন সড়ক পুরবহন ও যোগাযোগ বিভাগের সচিব মো. নজরুল ইসলাম, এছাড়া বাংলো উদ্বোধনে মুন্সীগহ্জের শ্রীনগরে উপস্থিত ছিলেন স ও জ’র অতিরিক্ত প্রধান প্রকৌশলী সবুজ উদ্দিনের পরিচারণায় সড়ক ও জনপথ বিভাগের প্রধান প্রকৌশলী কাজী শাহরিয়ার হোসেন ও স ও জ’র জেলা নির্বাহী প্রকৌশলী খন্দকার গোলাম মোস্তফা। ঢাকা-মাওয়া এক্সপ্রেসওয়ের পাশে মুন্সীগঞ্জের শ্রীনগরে সড়ক ওজনপথের পরিদর্শণ বাংলো “পদ্মা” অত্যাধুনিক ও দৃষ্টিনন্দন দুই তলা বিশিষ্ট ৬৪০বর্গফুটের ভবন সহ নির্মাণ ব্যায় হয়েছে ৭ কোটি ৮ লাখ ৭১ হাজার টাকা। এতে রয়েছে ২ টি ভিভিআইপি শয়ন কক্ষ, ২ টি ভিআইপি শয়ন কক্ষ, একটি সুপ্রসস্থ লবি। নীচ তলায় রয়েছে ১ টি সাধারণ শয়ন কক্ষ, একটি সভা কক্ষ, একটি ডাইনিং রুম ও রন্ধনশালা। এটির কাজ শুরু হয় ২০১৭ সালের সেপ্টেম্বর মাসে শেষ হয় চলতি বছরের মার্চ মাসে। ১ একর ভূমিতে এটি নির্মাণ করা হয়েছে

About Syed Enamul Huq

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*