Sunday , 18 April 2021
Home » দৈনিক সকালবেলা » অপরাধ ও দূর্নীতি » ৮ বছরের নাতনীকে ধর্ষণের চেষ্টা- বিচার চাইলেন দাদা
৮ বছরের নাতনীকে ধর্ষণের চেষ্টা- বিচার চাইলেন দাদা

৮ বছরের নাতনীকে ধর্ষণের চেষ্টা- বিচার চাইলেন দাদা

নরসিংদী প্রতিনিধি: নরসিংদী জেলার শিবপুর উপজেলার দক্ষিন কামালপুর গ্রামের দিতীয় শ্রেণীর ছাত্রী ৮ বছরের তানিয়া আক্তাররকে গত ৩ অক্টোবর ধর্ষণের চেষ্টাকারীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবী করেছেন দাদা মো. মোগল ভুইয়া। মঙ্গলবার (৬ অক্টোবর) জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে নাতনী তানিয়াকে নিয়ে তিনি এ নির্যাতনের বিচার দাবী করেন। তিনি বলেন, ৫ সেপ্টেম্বর স্থানীয় থানায় মামলা করা হলেও এখন পর্যন্ত আসামী গ্রেফতার হয় নাই। থানা থেকে প্রাথমিক তথ্য বিবরণী যা অতিরিক্ত চীফ জুডিযসিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট আদালতে জমা দেয়া হয়েছে তাতে মো. শামিম ভুইয়া (পিতা : মো. মোন্তাজ ভুইয়া) কে আসামী করে একটি প্রতিবেদন দাখিল করা হয়।

এসময় শিশু তানিয়াকে ধর্ষণ চেষ্টাকারীর গ্রেফতার ও দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবী জানিয়েছেন বাংলাদেশ জাতীয় মানবাধিকার সমিতির চেয়ারম্যান মো. মঞ্জুর হোসেন ঈসা। তিনি একমাসেও আসামী গ্রেফতার না হওয়ায় গভীর উদ্বেগ ও উৎকন্ঠা প্রকাশ করে স্থানীয় প্রশাসনকে কার্যকর পদক্ষেপ গ্রহন করার আহ্বান জানান। সংগঠনের চেয়ারম্যান শিবপুর উপজেলার ইউএনও মোহাম্মদ কবিরুল ইসলাশ খানের সাথে মোবাইলে কথা বললে তিনি আশ্বস্থ করেন নারী ও শিশু নির্যাতনের বিষয়ে সরকার ও প্রশাসন কঠোর অবস্থানে রয়েছে। এবিষয়ে কোন ছাড় নাই। তিনি আসামীর গ্রেফতার ও শাস্তির বিষয়ে সকল প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের আশ্বাস প্রদান করেন। এবিষয়ে মামলার তদন্ত কর্মকর্তা আলমগীর হোসেন মানবাধিকার সমিতিকে অবগত করেন যে, আসামী মো. শামিম ভুইয়াকে গ্রেফতারের সর্বোচ্চ চেষ্টা চলছে। কয়েকদফা অভিযান চালানো হয়েছে। আসামি পলাতক থাকায় গ্রেফতারের লক্ষ্যে সকল প্রচেষ্টা অব্যাহত রয়েছে।

ঘটনার বিচারের দাবীতে দাদা মো. মোগল ভুইয়া’র দাবীর প্রতি একাত্মতা ঘোষণা করে বাংলাদেশ ন্যাশনাল আওয়ামী পার্টি-বাংলাদেশ ন্যাপ মহাসচিব এম. গোলাম মোস্তফা ভুইয়া বলেন, দেশে নারী ও শিশুর ওপর সহিংসতা থেমে নেই। নির্যাতন প্রতিরোধে সরকারী-বেসরকারী নানা উদ্যোগের মধ্যেই সহিংসতার ঘটনা ঘটছে। ঘরে-বাইরে, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান-কর্মস্থলে, রাস্তা-ঘাটসহ সর্বত্রই নারী ও শিশুর ওপর ঘটছে সহিংসতা। শিশু থেকে বৃদ্ধ, নির্যাতনের শিকার হচ্ছেন সব বয়সের নারী। এমনকি পাশবিকতার হাত থেকে রেহাই পাচ্ছে না ছেলে শিশুরাও। আইনের শাসন প্রতিষ্ঠায় সরকারকে এবিষয়ে কঠোর পদক্ষেপ গ্রহন করতে হবে। এসময় আরো উপস্থিত ছিলেন জাতীয় মানবাধিকার সমিতির দপ্তর উপ-কমিটির সদস্য মারুফ সরকার ও শহিদুল ইসলাম।

About Syed Enamul Huq

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*