Tuesday , 1 December 2020
E- mail: news@dainiksakalbela.com/ sakalbela1997@gmail.com
Home » দৈনিক সকালবেলা » উপজেলার খবর » ডজন খানকে মামলার আসামী বাহনিী প্রধান আলতাফ যখন আর্দশ মহাবদ্যিালয়রে অধ্যক্ষ
ডজন খানকে মামলার আসামী বাহনিী প্রধান আলতাফ যখন আর্দশ মহাবদ্যিালয়রে অধ্যক্ষ

ডজন খানকে মামলার আসামী বাহনিী প্রধান আলতাফ যখন আর্দশ মহাবদ্যিালয়রে অধ্যক্ষ

কুষ্টিয়া প্রতিনিধি:
সন্ত্রাসী বাহনিী প্রধান আলতাফ হোসনেরে নামে কুষ্টয়িাসহ পাশ্বর্বতী জলোয় সন্ত্রাস, ডাকাতী, অস্ত্রকারবারী ও খুনসহ ডজন খানকে মামলা রয়ছে।ে সে গুলোর অধকিাংশই আদালতে বচিারাধীন। আবার কছিু মামলায় সাজাপ্রাপ্ত হয়ওে অপরাধমূলক র্কমকান্ড চালয়িে যাচ্ছ।েশুধু তাই নয়, ভোল পাল্টয়িে মলিলাইন এলাকার সাধারণ মানুষদরে জম্মিি করে প্রতনিধিি হওয়ার চষ্টোয় আলতাফ। রাত হলইে তার চরিচনো রুপ। মলিলাইন কোর্য়াটার দখল করে বাসস্থান গড়লওে তনিি থাকনে শহররে অন্য এলাকায়।
খােঁজ নয়িে জানা গছে,েশহররে মলিপাড়া এলাকায় অবস্থতি আর্দশ মহাবদ্যিালয়রে অধ্যক্ষ আলতাফ হোসনে। তার বরিুদ্ধে ৩টি হত্যা মামলাসহ বভিন্নি অভযিোগে ১৩টি মামলা রয়ছে।ে সম্প্রতি আলতাফরে বরিুদ্ধে দায়রকৃত একটি অস্ত্র মামলায় কুষ্টয়িার আদালতে সওয়াল জবাব (র্আগুমন্টে) শুরু হয়ছেে বলে জানা গছে।ে তাছাড়া লাহনিী পাড়ার ভাটা মালকি মরিাজ হত্যা মামলার প্রধান আসামী এই আলতাফ।
স্থানীয়দরে অভযিোগ রয়ছেে এতগুলো মামলার আসামী কলজেে শক্ষিকতা করনে কভিাব।ে পারবিারকি সর্ম্পকরে জরেে প্রভাবশালী এক নতোর ছত্রছায়ায় সে বপেরোয়া। তবে এলাকায় প্রকাশ্যে কউে আলতাফ গংদরে বরিুদ্ধে মুখ খোলার সাহস পাননা। এমনকি কলজেরে শক্ষিকরাও তার বরিুদ্ধে কথা বলতে ভয় পায়। তার ভয়ে নজিদেরে সব সময় গুটয়িে রাখে এলাকার সাধারণ মানুষ ও শক্ষিকরা।
এদকিে অভযিোগ উঠছে,ে কুমারখালী উপজলোর লাহনিীপাড়ার বহুল আলোচতি ব্যবসায়ী মরিাজুল হক মরিাজ হত্যা মামলার প্রধান আসামী আলতাফ হোসনে ও তার সহযোগীরা মামলার সাক্ষীদরে মারধোরসহ প্রতনিয়িত হুমকি দয়িে আসছ।ে তাদরে ভয়ে মামলার সাক্ষীরা ভীত-সন্ত্রস্ত হয়ে পড়ছে।ে এ ঘটনায় মামলার সাক্ষীরা থানায় একটি মামলাসহ একাধকি সাধারণ ডায়রেীও করছেনে। এ ব্যাপারে কুষ্টয়িার পুলশি সুপাররে হস্তক্ষপে কামনা করছেে মরিাজুলরে পরবিার।
লাহনিী পাড়ার একাধকি বাসন্দিা জানান, আলতাফ হোসনে এলাকার কুখ্যাত মানুষ। তার বরিুদ্ধে অভযিোগরে অন্ত নইে। আলতাফ তার নজি এলাকা কুষ্টয়িা-রাজবাড়ী সড়করে লাহনিীপাড়ায় পুলশিরে চকেপোষ্টে পুলশিরে হাতে অস্ত্রসহ আটক হয়। সইে মামলার বচিার প্রায় শষেরে দকি।ে রায় যে কোন দনি। সইে মামলা থকেে বাঁচতে মোটা অংকরে টাকা নয়িে বভিন্নি মহলে দৌড়-ঝাপ শুরু করছেে বলে সুত্রটি জানায়।
পুলশি ও স্থানীয় সুত্রে জানা যায়, ২০১৫ সালরে ৫ই আগষ্ঠ কুমারখালী পুলশিরে একটি দল মহাসড়করে নরিাপত্তার জন্য কুষ্টয়িা-রাজবাড়ী সড়করে লাহনিীপাড়ায় অস্থায়ী চকেপোষ্ট বসয়িে বভিন্নি যানবাহনে অবধৈ মালামাল ধরতে তল্লাশী চালায়। এ সময় কুষ্টয়িার দকিে আসা দ্রুতগামী একটি মোটরসাইকলে থামালে আলতাফ পালানোর চষ্টো করে র্ব্যথ হয়। সে সময় চরমপন্থী নতো আলতাফরে দহে তল্লাশী করে সক্রয়ি একটি লোহার তরৈি ওয়ান সুটারগান উদ্ধার কর।ে এ ঘটনায় কুমারখালী থানার পুলশি অফসিার এসআই মমনিুর রহমান বাদী হয়ে ১৮৭৮ অস্ত্র আইনে ১৯-এ ধারায় মামলা করনে। মামলা নং ৫, তারখি-০৬/০৮/২০১৫ ইং। মামলাটি এসআই জালাল তদন্ত করনে। প্রাথমকিভাবে সত্যতা প্রমান পাওয়াই আদালতে একই বছররে ৩০ অক্টোবর বজ্ঞি আদালতে র্চাজশীট প্রদান করনে। সশেন-১১৩/১৫। সুত্র আরো জানায়, অস্ত্র মামলায় নশ্চিতি জলে-জরমিানা হবে ভবেে বভিন্নি দপ্তরে সে তদবীর শুরু করে দয়িছে।ে যে কোন মূল্যে এ মামলা থকেে বাঁচতে মরয়িা হয়ে উঠছেে আলতাফ বাহনিীর প্রধান আলতাফ। মামলার নথি থকেে জানা যায়, আলতাফরে বরিুদ্ধে কুমারখালী জআির ১৪৬/১৪, কুমারখালী থানার মামলা নং ২(৬)২০১৫ ধারা ৩৬৪, ৩০২, ২০১, ৩৪ পনোল কোড, একই থানায় মামলা নং ৫, তারখি ৬/৮/১৫ইং ধারা-১৯এ অস্ত্র আইন,ে রাজবাড়ী সআির ৪৪৬/১৪, ধারা ৪০৬ পনোল কোড, একই থানায় মামলা ৯(৯)০৬ ধারা ৩০২,৩৪, কুষ্টয়িা সদর থানায় মামলা নং ৩৮(২)০৬ ধারা ৩৬৩, ৩০২, ৩৪ পনোল কোড, কুমারখালী থানায় মামলা নং ১৪(১২)১৪ ধারা ৪৪৭, ৩৭৯ পনোল কোড, একই থানায় মামলা নং ৬(২)১১ ধারা ১৪৩, ৪৪৭, ৩৪১, ৩৪২, ৩৭৯, ১১৪, ৫০৬, কুমারখালী থানায় জআির মামলা নং১৪২/৯৭, জআির ১৩/৯৮, জআির ১২/৯৯ ও সশেন ৬৩/৯২ মামলা গুলো বচিারধীন রয়ছে।ে এছাড়া র্সবশষে, ২০১৫ সালরে ৪ জুন সন্ধ্যায় নজিরে ইটভাটায় যাওয়ার জন্য বাড়ি থকেে বরে হন মরিাজুল। এরপর আর তনিি বাড়ি ফরিে আসনেন।ি কয়কে মাস পরে ওই ইটভাটার পাশ থকেে মরিাজুলরে কঙ্কাল উদ্ধার করে পুলশি। মরিাজুল নখিােঁজ হওয়ার দুদনি পর ৬জুন তার স্ত্রী সখি খাতুন বাদি হয়ে কুমারখালী থানায় একটি মামলা করনে। এ মামলায় সন্দহেভাজন আসামী হসিবেে লাহনিীপাড়ার আলতাফ হোসনেসহ কয়কেজনরে নাম উল্লখে করনে। পরে পুলশি তদন্তে এই নর্মিম হত্যাকান্ডরে সঙ্গে আলতাফ হোসনে ও তার ভাই শাহজাহানসহ বশে কয়কেজনরে জড়তি থাকার তথ্য বরেয়িে আস।ে এই মামলায় র্বতমানে জামনিে রয়ছেনে আসামীরা। ইতমিধ্যে আদালতে চাঞ্চল্যকর এই মামলাটরি সাক্ষ্য গ্রহণ শুরু হয়ছে।ে
সুত্র জানায়, এই মামলার সাক্ষরিা সুষ্ঠু পরবিশেে সাক্ষ্য দতিে পারলে আসামী আলতাফ গংদরে পার পাওয়ার কোন সুযোগ নইে। তাদরে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি হবে এটা অনকেটায় নশ্চিতি। এ শাস্তি থকেে রক্ষা পতেে মাঠে নমেছেনে আলতাফ হোসনে গংরা। এদকি,ে আলতাফ গংদরে বরিুদ্ধে অভযিোগ এখানওে শষে নয়। আলতাফরে নতেৃত্বে ওই চক্রটি লাহনিী এলাকায় রলেওয়রে ১০/১২টি বৃহদকার জলাশয় অবধৈ দখলে রখেে মাছ চাষ করে আসছ।ে এতে বপিুল পরমিান রাজস্ব থকেে বঞ্চতি হচ্ছে রলে বভিাগ। এদকিে অবধৈ দখলমুক্ত করতে চলতি বছররে জুলাই মাসে রলেওয়রে পাকশী বভিাগীয় ভূসম্পত্তি র্কমর্কতার র্কাযালয় হতে ইজারা দরপত্র আহ্বান করা হয়। দরপত্রে অংশ নয়িে এসব পুকুরে ইজারা পয়েছেনে স্থানীয় কয়কেজন মৎস্যচাষী। কন্তিু ইজারা পলেওে জলাশয়গুলোর দখল ছাড়নেি আলতাফ গংরা। এতে প্রকৃত ইজারাদার পয়সা খরচা করে ইজারা নলিওে ওই জলাশয়গুলোতে মাছ চাষ করতে পারছনেনা। রলেওয়ে র্কতৃপক্ষ এ জলাশয়রে দখল প্রকৃত ইজারাদারদরে বুঝয়িে দওেয়ার তাগদি দলিওে তা আমলে নয়েনি আলতাফ হোসনেরা। এদকিে এত অভযিোগ আর মামলার বোঝা যার ঘাড়ে সইে আলতাফ হোসনে লাহনিীপাড়ার স্বনামধন্য মীর মোশাররফ হোসনে মাধ্যমকি বদ্যিালয় পরচিালনা পরষিদরে সভাপতরি পদ জোর করে দখল করে রখেছেনে বলে অভযিোগ পাওয়া গছে।ে
এছাড়া তনিি কুষ্টয়িার মোহনিী মলিরে কোন শ্রমকি-র্কমচারী না হয়ওে অবধৈভাবে ওই মলিরে কোর্য়াটারে বসবাস করে আসছনে র্দীঘদনি থকে।ে এ ব্যাপারে জানতে তাদরে সাথে মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলওে সম্ভব হয়নি

About Syed Enamul Huq

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*