Tuesday , 24 November 2020
E- mail: news@dainiksakalbela.com/ sakalbela1997@gmail.com
Home » দৈনিক সকালবেলা » বিভাগীয় সংবাদ » জেলার-খবর » মৌলভীবাজারে ডাকাতি প্রতিরোধে পুলিশ-জনতার যৌথ পাহারা
মৌলভীবাজারে ডাকাতি প্রতিরোধে পুলিশ-জনতার যৌথ পাহারা
--প্রেরিত ছবি

মৌলভীবাজারে ডাকাতি প্রতিরোধে পুলিশ-জনতার যৌথ পাহারা

মৌলভীবাজার প্রতিনিধি:

শীতের মৌসুমে মৌলভীবাজারে ডাকাতির ঘটনা বেশি ঘটে থাকে। গত বৎসর কঠোর নজরদারি এবং জনগণের সাথে কাঁধ মিলিয়ে কর্মতৎপরতার কারণে সাতটি থানার মধ্যে ছয়টি থানায় কোন প্রকার ডাকাতি সংঘটিত হয়নি। শুধুমাত্র সদর থানায় দুটি ডাকাতি হয়েছিল। করোনার কারণে এবং গত বৎসর ডাকাতি করতে না পারায় বিভিন্ন গোপন সূত্রে জানা যায় ডাকাতদল এবার শীতের আগমন ঘটতে না ঘটতেই সঙ্ঘবদ্ধ হওয়ার চেষ্টা করছে। সেজন্য শুরু থেকেই জেলা পুলিশ ডাকাতি রোধে জোরদারভাবে ‘পুলিশ-জনতার যৌথ পাহারা’ কার্যক্রম নামে একটি উদ্যোগ নিয়েছে।
বৃহস্পতিবার (১৯ নভেম্বর) দিবাগত রাতে মৌলভীবাজারের বিভিন্ন এলাকায় পুলিশ সুপার ফারুক আহমদ স্থানীয় সাংবাদিকদের নিয়ে এই কার্যক্রম রাতভর ঘুরে দেখেন এবং পাহারায় থাকা পুলিশ সদস্য ও সাধারণ জনগণকে উৎসাহ দেন। এ সময় উপস্থিত ছিলেন- অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (প্রশাসন) আরিফুল ইসলাম, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (ডিএসবি) আবু নাসের মোহাম্মদ রিকাবদার, সদর সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার জিয়াউর রহমান, সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ইয়াছিনুল হক, ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (তদন্ত) পরিমল দেব, ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (অপারেশন) বদিউজ্জামানসহ স্থানীয় জনপ্রতিনিধি ও এলাকার যুবক-প্রবীণরা।
মধ্যরাতে সদর উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় ঘুরে দেখা যায়, গুরুত্বপূর্ণ রাস্তার মোড়ে ডাকাতি প্রতিরোধে পুলিশ-জনতা মিলে পাহারা দিচ্ছেন। এই উদ্যোগে নিজেদের নিরাপদ মনে করছেন সাধারণ মানুষ। তবে সাধারণ মানুষের বক্তব্য শুধু প্রচারের মধ্যে এধরণের কার্যক্রমকে সীমাবদ্ধ না রেখে প্রতিদিনই যাতে একাজের সঠিক তদারকি হয় তা নিশ্চিত করা প্রয়োজন।
চাঁদনীঘাট ইউনিয়নের ছড়াপাড় এলাকার লিটন মিয়া পাহারারত অবস্থায় জানান, তারা নিয়ম করে পুলিশের সাথে পাহারা দেন। তবে পুলিশ ছাড়াও তারা পাহারা দেন। সমস্যা হলে মোবাইল ফোনে পুলিশের সাথে যোগাযোগ রক্ষা করেন। তারা এলাকায় অপরিচিত কাউকে দেখলে তার তথ্য জানতে চান। সন্দেহ হলে টহল পুলিশকে খবর দিলে তারা সাথে সাথে আসেন।
পুলিশ সুপার ফারুক আহমদ বলেন, জনবল-যানবাহন সংকট দীর্ঘদিনের। তবে সেই সংকট কাটিয়ে উঠছে বাংলাদেশ পুলিশ। যে সমস্যাই থাকুক আমরা প্রতিজ্ঞাবদ্ধ। জনগণের নিরাপত্তার দেব। তাই সাধারণ জনগণকে পুলিশের সাথে সম্পৃক্ত করে ডাকাতি প্রতিরোধের জন্য বিশেষ ব্যবস্থা নিয়েছি। আমাদের প্রত্যাশা, এই উদ্যোগের সফলতা সাধারণ মানুষ পাবে এবং ডাকাতিমুক্ত মৌলভীবাজার হবে।

About Syed Enamul Huq

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*