Friday , 22 January 2021
E- mail: news@dainiksakalbela.com/ sakalbela1997@gmail.com
Home » দৈনিক সকালবেলা » আইন ও আদালত » কুষ্টিয়ায় মৎসজীবী লীগ’র ওয়ার্ড সম্পাদক বিল্লাল গাঁজাসহ আটক
কুষ্টিয়ায় মৎসজীবী লীগ’র ওয়ার্ড সম্পাদক বিল্লাল গাঁজাসহ আটক
--প্রেরিত ছবি

কুষ্টিয়ায় মৎসজীবী লীগ’র ওয়ার্ড সম্পাদক বিল্লাল গাঁজাসহ আটক

কুষ্টিয়া প্রতিনিধি:

কুষ্টিয়া শহরের মিলবাজার এলাকা থেকে গাঁজাসহ বিল্লাল হোসেন (৩৫) নামে এক যুবককে আটক করেছে র‍্যাব। গতকাল বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে ৮টায় ৭৫০ গ্রাম গাঁজাসহ তাকে আটক করে। সে শহরের পূর্ব মিলপাড়া এলাকার মাহাম্মদ আলীর ছেলে। র‍্যাব-১২ কুষ্টিয়া ক্যাম্পের ভারপ্রাপ্ত কোম্পানি কমান্ডার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আবুল কাশেম এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, আটককৃত বিল্লাল হোসেন শহর ১০ নং ওয়ার্ড মৎসজীবী লীগের সাধারণ সম্পাদক। সে ইটভাটা এলাকার শীর্ষ সন্ত্রাসী ক্রস ফায়ারে নিহত হামিদুল-রাশিদুল বাহিনীর থ্রাড ইন কমান্ড ছিলেন।র‍্যাব জানায়, বৃহস্পতিবার রাতে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে শহরের মিলপাড়া এলাকায় মাদক অভিযান পরিচালনা করে র‍্যাব-১২, সিপিসি-১ কুষ্টিয়া ক্যাম্পের একটি অভিযানিক দল। অভিযানকালে ঘটনাস্থল থেকে বিল্লাল হোসেনকে ৭৫০ গ্রাম গঁাজাসহ হাতে নাতে আটক করে র‍্যাব। পরবর্তীতে তার বিরুদ্ধে মডেল থানায় মাদক মামলা দায়ের করা হয়।এলাকাবাসী জানায়, সর্বশেষ ক্রস ফায়ারে বাহিনী প্রধান হামিদুল নিহত হওয়ার পর বাহিনীর অন্য সদস্যরা গা ঢাকা দেয়। তখন বাহিনীর অস্ত্রভান্ডারের দায়িত্বে থাকা বিল্লাল ইটভাটা এলাকা থেকে পালিয়ে যায়। পরবর্তীতে ভোল পাল্টিয়ে পুনরায় তারা সংঘটিত হতে থাকে। এলাকাবাসী অভিযোগ করে বলেন, স্থানীয় কয়েকজন নেতার আশ্রয় প্রশয়ে তারা সংঘবদ্ধ হয়ে চর মিলপাড়া ও ইটভাটা এলাকায় তাদের অপরাধমূলক কর্মকান্ড পরিচালিত করতে থাকে।নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক স্থানীয়রা জানান, সন্ত্রাসীর তকমা ঘুচিয়ে বিল্লাল নিজেকে রাজনৈতিকভাবে প্রতিষ্ঠিত করতে উঠে পড়ে লাগে। শরনাপন্ন হয় শহর মৎসজীবী লীগের এক স্থানীয় নেতার। সর্বশেষ তিনি বিল্লালকে জোগাড় করে দেন শহর ১০ নং ওয়ার্ড মৎসজীবী লীগের সাধারণ সম্পাদক পদ। এরপর আর বিল্লালকে পিছে ফিরতে হয়নি। এদিকে র‍্যাবের অভিযানের সময় বিল্লালের সাথে থাকা শহর মৎসজীবী লীগের ঐ নেতা পালিয়ে যাওয়ার গুঞ্জন উঠলেও তিনি তা অস্বীকার করেন।এবিষয়ে কুষ্টিয়া জেলা মৎসজীবী লীগের সভাপতি সাইদুল ইসলাম বলেন, বিষয়টি আমার জানা নেই। তবে এটুকু বলতে পারি জেলা থেকে কমিটির অনুমোদন দেয়া হয়নি। ওয়ার্ড কমিটি গঠনের দায়িত্ব শহর কমিটিকে দেয়া হয়েছিল।

About Syed Enamul Huq

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*