Friday , 22 January 2021
E- mail: news@dainiksakalbela.com/ sakalbela1997@gmail.com
Home » জাতীয় » শুরু হলো ডিসেম্বর-বিজয়ের মাস
শুরু হলো ডিসেম্বর-বিজয়ের মাস

শুরু হলো ডিসেম্বর-বিজয়ের মাস

অনলাইন ডেস্ক:

ডিসেম্বর, অহংকার আর গৌরবের মাস। বিজয়ের মাসের প্রথম দিন আজ। ১৯৭১ সালের ডিসেম্বরেই সূচনা হয় বাঙালির নবজীবনের। ৯ মাসের রক্তক্ষয়ী যুদ্ধে পরাভূত হয় পাকিস্তানি সামরিক বাহিনী। বিশ্বের বুকে আবির্ভূত হয় একটি জাতি-রাষ্ট্র বাংলাদেশ। স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীর দ্বারপ্রান্তে দাঁড়িয়ে এই বাংলাদেশের আছে নানা অর্জন, আছে নানা চ্যালেঞ্জ। 

বাঙালির জাতীয়তাবোধের উন্মেষের সুদীর্ঘ ইতিহাসে অবিস্মরণীয় মাস ডিসেম্বর। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ডাকে সাড়া দিয়ে জনযুদ্ধে ঝাঁপিয়ে পড়েছিল এ দেশের মানুষ। ৯ মাসের সশস্ত্র সংগ্রাম আর ত্রিশ লাখ শহীদ ও দুই লাখ মা-বোনের সম্ভ্রমহানির বিনিময়ে আসে জাতীয় মুক্তি। পাকিস্তানি হানাদার বাহিনী আত্মসমর্পণ করেছিল ১৬ ডিসেম্বর। তবে এই ডিসেম্বর মাসেই স্বাধীনতাবিরোধী শক্তি তাদের এ দেশীয় দোসর রাজাকার-আলবদর-আল-শামস বাহিনীর সহযোগিতায় জাতির মেধা, শ্রেষ্ঠ সন্তান বুদ্ধিজীবী হত্যার নৃশংস যজ্ঞে মেতে উঠেছিল। পুরো জাতিকে মেধাহীন করে দেওয়ার এমন ভয়াবহ হত্যাযজ্ঞের নজির বিশ্ব ইতিহাসে আর নেই। এই কারণে বাঙালি বিজয়ের মাসটি উদযাপন করে একই সঙ্গে আনন্দ ও বেদনায়।

প্রতিবছর বিপুল উত্সাহ-উদ্দীপনা ও নানা অনুষ্ঠানে মাসজুড়ে বিজয়ের আনন্দ উদযাপন করে বাংলাদেশ। লাল-সবুজের পতাকা ওড়ে দেশের আনাচকানাচে। তবে এবার বৈশ্বিক মহামারি করোনাভাইরাস সংক্রমণের কারণে আনুষ্ঠানিক উত্সব আয়োজনে ছেদ পড়েছে। ১৬ই ডিসেম্বর সাভারে জাতীয় স্মৃতিসৌধে জাতির শ্রেষ্ঠ সন্তানদের বিনম্র শ্রদ্ধা জানানোর আয়োজনটি এবার বাতিল করা হয়েছে।

এবার বিজয় দিবস এসেছে এমন এক সময়ে, যখন দেশের অসাম্প্রদায়িক চেতনা ও ইতিহাস-ঐতিহ্যের বিরুদ্ধে শুরু হয়েছে গভীর ষড়যন্ত্র। অন্ধকারের শক্তি আবার মাথাচাড়া দিয়ে ওঠার অপচেষ্টা চালাচ্ছে। অপশক্তিকে মোকাবেলার ডাকও এসেছে। সাম্প্রদায়িক শক্তিকে প্রতিহত করার আহ্বানে আজ পয়লা ডিসেম্বর শাহবাগ থেকে মত্স্য ভবন পর্যন্ত মানববন্ধন ও সমাবেশ কর্মসূচি পালন করবে মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় লালিত সামাজিক-সাংস্কৃতিক সংগঠনগুলো। প্রতিবছরের মতো এবারও পদক্ষেপ বাংলাদেশ উদযাপন করবে ‘বিজয় মাসের প্রথম প্রহর’ ও ‘বিজয় মাসের প্রথম প্রভাত’। এবার অনুষ্ঠান হবে অনলাইনে।  

১ ডিসেম্বর ‘মুক্তিযোদ্ধা দিবস’
১ ডিসেম্বর পালিত হয় ‘মুক্তিযোদ্ধা দিবস’। বিভিন্ন সংগঠন জাতির শ্রেষ্ঠ সন্তান মুক্তিযোদ্ধাদের সম্মান জানিয়ে এই দিবসে বিভিন্ন কর্মসূচি পালন করে। মুক্তিযোদ্ধা দিবস উপলক্ষে জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল (জাসদ) কেন্দ্রীয় কমিটি সকাল ৯টা ৩০ মিনিটে ঐতিহাসিক সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে শিখা চিরন্তনে শ্রদ্ধা নিবেদন করবে। জাসদের সভাপতি হাসানুল হক ইনু এমপি ও সাধারণ সম্পাদক শিরীন আখতার এমপি মুক্তিযোদ্ধাদের প্রতি সম্মান জানাতে যথাযথ মর্যাদায় মুক্তিযোদ্ধা দিবস পালন করার জন্য দলের সব জেলা ও উপজেলা কমিটির প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন। জাসদ ঢাকা মহানগর পশ্চিম কমিটি সকাল ৮টায় মিরপুরে বীর মুক্তিযোদ্ধা কবরস্থানে পুষ্পস্তবক অর্পণ করে শ্রদ্ধা নিবেদন ও কবরস্থানের বাইরের চত্বরে আলোচনাসভার কর্মসূচি গ্রহণ করেছে।

বিজয়ের মাস ডিসেম্বরের প্রাক্কালে সম্প্রীতি বাংলাদেশ এক বিবৃতিতে বলেছে, অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশের পরিচয় মুছে ফেলার ষড়যন্ত্র শুরু হয়েছে। জনগণের সম্মিলিত শক্তি সব ষড়যন্ত্রের জাল ছিন্ন করে এনে দেবে নতুন মুক্তি—বিবৃতিতে এই আশাবাদ ব্যক্ত করা হয়েছে।

About Syed Enamul Huq

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*