Monday , 19 April 2021
Home » প্রচ্ছদ » রাজধানীর নিম্ন এবং উচ্চবিত্তদের জন্য আলাদা পানির দাম নির্ধারণের পরিকল্পনা
রাজধানীর নিম্ন এবং উচ্চবিত্তদের জন্য আলাদা পানির দাম নির্ধারণের পরিকল্পনা

রাজধানীর নিম্ন এবং উচ্চবিত্তদের জন্য আলাদা পানির দাম নির্ধারণের পরিকল্পনা

অনলাইন ডেস্ক:

রাজধানীর নিম্ন আয়ের এবং উচ্চবিত্তদের জন্য আলাদা আলাদা পানির দাম নির্ধারণের পরিকল্পনা করছে ঢাকা ওয়াসা। গতকাল দুপুরে কারওয়ান বাজারের ওয়াসা ভবনে ‘নিম্ন আয় এলাকার আদর্শ গ্রাহক সম্মাননা স্মারক-২০২০’ বিতরণী অনুষ্ঠানে এ কথা জানান ওয়াসার ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) তাকসিম এ খান।

ঢাকা ওয়াসা, ওয়াটারএইড বাংলাদেশ এবং দুস্থ স্বাস্থ্যকেন্দ্রের (ডিএসকে) যৌথ উদ্যোগে আয়োজিত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন স্থানীয় সরকার বিভাগের সিনিয়র সচিব হেলালুদ্দীন আহমদ। ধনী ও গরিবদের জন্য আলাদা আলাদা পানির বিল নির্ধারণকে সমর্থন করে তিনি বলেন, ‘ঢাকায় দুই কোটিরও বেশি মানুষের বসবাস। তাদের বিরাট অংশই নিম্ন আয়ের মানুষ। তাদেরও পানি দরকার। তাদের কাছে নদীর পানি পরিশোধন করে পৌঁছে দেওয়া হচ্ছে এবং তারা সেটার বিল নিয়মিত প্রদান করে। যার প্রমাণ আজকের এই আদর্শ গ্রাহক সম্মাননা স্মারক প্রদান অনুষ্ঠান। কিন্তু অনেক বিত্তবান মানুষেরও পানির বিল বাকি থাকে। এই অনুষ্ঠানের মাধ্যমে সেসব বিল ফাঁকি দেওয়া মানুষের একটু হলেও লজ্জা বোধ হতে পারে।’

সভাপতির বক্তব্যে ওয়াসার এমডি প্রকৌশলী তাকসিম এ খান বলেন, ‘ঢাকা ওয়াসা নগরের বস্তিগুলোতে বৈধ পানি সুবিধা দিয়ে আসছে। বস্তির অনেক মানুষেরই হোল্ডিং নম্বর নেই, তার পরেও তাদের ওয়াসা পানি দিচ্ছে। সবাইকে নিরাপদ পানি পৌঁছে দিতে সরকার ভর্তুকি দিচ্ছে। তবে দুঃখের বিষয় হচ্ছে এই সুবিধাটি ধনীরাও পাচ্ছে।’ তিনি আরো বলেন, ‘আমরা চিন্তা-ভাবনা করছি, এলাকাভিত্তিক পানির দাম নির্ধারণ করব। নিম্ন আয়ের মানুষদের জন্য পানির দাম এক হবে, আবার ধনীদের জন্য এরচেয়ে একটু বেশি হবে।’

ওয়াটারএইড বাংলাদেশের কান্ট্রি ডিরেক্টর হাসিন জাহান বলেন, ‘একটা সময়ে ঢাকার বস্তিগুলোতে পানির নিয়ন্ত্রণ ছিল মাস্তানদের হাতে। সেখান থেকে বস্তিবাসীকে কিভাবে বৈধ পানির আওতায় আনা যায় সেটা নিয়ে ওয়াটারএইড ও ঢাকা ওয়াসা কাজ শুরু করে। এরই ধারাবাহিকতায় আজ সেসব নিম্ন আয়ের মানুষ বৈধভাবে পানি পাচ্ছে। তারা নিয়মিত পানির বিল পরিশোধ করে আজ সম্মাননা পাচ্ছে।’

২০১৯ সাল থেকে ‘নিম্ন আয় এলাকার আদর্শ গ্রাহক সম্মাননা স্মারক-২০২০’ বিতরণী অনুষ্ঠানের আয়োজন করে আসছে ঢাকা ওয়াসা, ওয়াটারএইড বাংলাদেশ ও ডিএসকে। অনুষ্ঠানের মাধ্যমে ২৫ জন গ্রাহককে সম্মাননা স্মারক দেওয়া হয়। অনুষ্ঠানে অন্যদের মধ্যে স্থানীয় সরকার বিভাগের অতিরিক্ত সচিব (পানি সরবরাহ অনুবিভাগ) মুহাম্মদ ইব্রাহিম, ডিএসকের নির্বাহী পরিচালক ডা. দিবালোক সিংহসহ ঢাকা ওয়াসা, ওয়াটারএইড বাংলাদেশ ও ডিএসকের বিভিন্ন পর্যায়ের কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

About Syed Enamul Huq

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*