Wednesday , 21 April 2021
Home » প্রচ্ছদ » রাজধানীতে জাতীয় বেতন স্কেল বাস্তবায়নের দাবিতে গ্রাম পুলিশের মানববন্ধন
রাজধানীতে জাতীয় বেতন স্কেল বাস্তবায়নের দাবিতে গ্রাম পুলিশের মানববন্ধন
--সংগৃহীত ছবি

রাজধানীতে জাতীয় বেতন স্কেল বাস্তবায়নের দাবিতে গ্রাম পুলিশের মানববন্ধন

অনলাইন ডেস্ক:

জীবনমান উন্নয়নে বাজারদরের সঙ্গে সামঞ্জস্যপূর্ণ বেতন প্রদান ও জাতীয় বেতনস্কেল বাস্তবায়নসহ পাঁচ দাবিতে রাজধানীতে মানববন্ধন করেছে বাংলাদেশ গ্রাম পুলিশ কর্মচারী ইউনিয়ন। 

আজ শনিবার (২ জানুয়ারি) বেলা সাড়ে ১১টার দিকে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে সংগঠনের পক্ষ থেকে এই কর্মসূচি পালন করা হয়। এ সময় সরকারের কাছে পাঁচ দাবি তুলে ধরা হয়।

দাবিগুলো হলো গ্রাম পুলিশদের জীবনমান উন্নয়নে বাজারদরের সঙ্গে সামঞ্জস্যপূর্ণ বেতন প্রদান ও জাতীয় বেতনস্কেলের অন্তর্ভুক্তকরণ, সরকারি অন্য বাহিনীর ন্যায় রেশনিং এবং ঝুঁকি ও চিকিৎসা ভাতার ব্যবস্থা, গ্রাম পুলিশদের জন্য ইউনিয়ন পরিষদকে প্রশাসনিক ইউনিট হিসেবে ঘোষণা, এককালীন অবসর ভাতা দফাদার ৮ লাখ ও  মহালদার ৭ লাখ টাকা নির্ধারণের ঘোষণা এবং অন্য বাহিনীর ন্যায় একটি কেন্দ্রীয় অধিদপ্তর প্রতিষ্ঠা ও প্রশিক্ষণের মাধ্যমে যোগ্য ও দক্ষ বাহিনী হিসেবে গড়ে তোলা।

মানববন্ধনে নেতৃবৃন্দ বলেন, বর্তমান আকাশচুম্বি বাজার দরের সঙ্গে গ্রাম পুলিশের একজন দফাদারের ৭ হাজার এবং মহলদারের ৬ হাজার ৫০০ টাকা দিয়ে একটা পরিবার চলতে পারে না। এছাড়া, নির্ধারিত বেতন-ভাতার বাইরে রেশন, চিকিৎসাসহ অন্য কোনো সুযোগ-সুবিধা নেই। সরকারি অংশটুকু পেলেও ইউনিয়ন পরিষদ প্রদত্ত অংশ এবং যাতায়াত ভাতা অনেক ক্ষেত্রে আমরা পাচ্ছি না। নিত্যপণের বাজারদরের সঙ্গে সামঞ্জস্যহীন বেতন-ভাতা তাঁদের জীবন বিষিয়ে তুলেছে।

বক্তারা আরো বলেন, গত ৫০ বছরে বাংলাদেশের ক্ষমতা হাত বদল হয়েছে বহুবার, কিন্তু গ্রাম পুলিশের দিকে কেউ তাকাননি। প্রায় ৪০ বছর ধরে এভাবেই এ বাহিনীর সদস্যদের জীবন চলছে। তাঁরা মর্যাদা নিয়ে মানুষের মতো বাঁচতে চান। বর্তমান সরকার ক্ষমতা আসার পর গত দেড় দশক ধরে বলে আসছে বাংলাদেশ আজ উন্নয়নশীল দেশের কাতারে উন্নীত হয়েছে। এ সত্য মেনে নিয়ে বলতে হয়, গ্রাম পুলিশের সদস্যরা নিম্ন আয়ের মানুষেও উন্নীত হতে পারেননি।

এ অবস্থায় গ্রাম পুলিশদের মর্যাদা প্রতিষ্ঠার জন্য সরকারের কাছে পাঁচ দফা দাবি মেনে নেওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন  সংগঠনটির নেতারা।

সংগঠনের সভাপতি বাবু ভবেন্দ্রনাথ বিশ্বাসের সভাপতিত্বে মানববন্ধনে বক্তব্য দেন সংগঠনের প্রধান সমন্বয়কারী শাহজাহান কবীর জহির, শ্রমিক কর্মচারী ঐক্য পরিষদ নেতা নাইমুল আহসান জুয়েল, রাজেকুজ্জামন রতন, সংগঠনের কেন্দ্রীয় সহ-সভাপতি আবুল কাসেম, ইস্কান্দার আলী, শাহজাহান সরদার, সাধারণ সম্পাদক দেলোয়ার হোসেন প্রমুখ। 

About Syed Enamul Huq

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*