Saturday , 19 June 2021
ব্রেকিং নিউজ
Home » দৈনিক সকালবেলা » আইন ও আদালত » খালেদার বিদেশযাত্রা- আইন মন্ত্রণালয়ের মতামত এখন স্বরাষ্ট্রে
খালেদার বিদেশযাত্রা- আইন মন্ত্রণালয়ের মতামত এখন স্বরাষ্ট্রে
--ফাইল ছবি

খালেদার বিদেশযাত্রা- আইন মন্ত্রণালয়ের মতামত এখন স্বরাষ্ট্রে

অনলাইন ডেস্ক:

বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে চিকিৎসার জন্য বিদেশে নেওয়ার আবেদনের বিষয়ে আইন মন্ত্রণালয়ের মতামত স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে পাঠানো হয়েছে।

আজ রবিবার (৯ মে) সকালে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে পাঠানো হয় আইন মন্ত্রণালয়ের মতামত।আইন, বিচার ও সংসদ বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের পাবলিক রিলেশন্স অফিসার ড. মো. রেজাউল করিম স্বাক্ষরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে চিকিৎসার জন্য বিদেশে পাঠানোর আবেদনের বিষয়ে আইনমন্ত্রী আনিসুল হকের অভিমত সম্বলিত নথি আইন ও বিভাগের সচিবের দপ্তর থেকে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে পাঠানো হয়েছে।

বিভিন্ন সূত্রে জানা গেছে, সরকারের অনুমতি পেলেই উন্নত চিকিৎসার জন্য লন্ডনের উদ্দেশ্যে যাত্রা করবেন বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া। তাঁর পরিবার ও বিএনপির পক্ষ থেকে এ জন্য প্রয়োজনীয় প্রস্তুতি নিয়ে রাখা হয়েছে। তবে সরকারের অনুমতি পেতে দেরি হওয়ায় বিএনপিতে কিছুটা উদ্বেগ-উৎকণ্ঠা সৃষ্টি হয়েছে।

খালেদা জিয়াকে বিদেশে নিতে অনুমতি চেয়ে তাঁর পরিবারের আবেদনটি গতকাল শনিবার (৮ মে) আইন মন্ত্রণালয়ে ছিল। সাজাপ্রাপ্ত হওয়ায় তাঁকে বিদেশে যেতে দেওয়ার বিষয়ে আইনগত মতামত নিতেই আবেদনটি স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় থেকে আইন মন্ত্রণালয়ে পাঠানো হয়। আজ রবিবার সকালে আইনমন্ত্রী আনিসুল হকের অভিমত সম্বলিত নথি স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে পাঠানো হয়েছে।

সরকার নির্বাহী আদেশে সাজাপ্রাপ্ত কোনো ব্যক্তিকে বিদেশ যেতে অনুমতি দিতে পারে কি-না, এজন্য আদালতের অনুমতির প্রয়োজন আছে কি-না- এমন আলোচনা চলছে। আইন বিশেষজ্ঞদের অভিমত, ফৌজদারি কার্যবিধি অনুযায়ী খালেদা জিয়াকে বিদেশ যেতে দেওয়ার বিষয়ে সরকারের সিদ্ধান্তই চূড়ান্ত। তবে দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) আইনজীবী বলছেন, আদালতের মতামত নিতে হবে।

অন্যদিকে খালেদা জিয়ার পাসপোর্টও গতকাল পর্যন্ত সংশ্লিষ্ট সূত্রগুলোর মতে, পাসপোর্ট ও সরকারের অনুমতি একই সূত্রে গাঁথা। অনুমতির ‘সবুজ সংকেত’ গেলে পাসপোর্টও সঙ্গে সঙ্গেই দেওয়া হবে।

পাশাপাশি ব্রিটিশ ভিসা খালেদা জিয়ার জন্য কোনো কঠিন বিষয় নয় বলে মনে করছে বিএনপি। দলটির দায়িত্বশীল সূত্রগুলো থেকে জানা গেছে, খালেদা জিয়ার চিকিৎসার জন্য ব্রিটিশ সরকারের পাশাপাশি ঢাকায় ব্রিটিশ হাইকমিশনের সঙ্গে সার্বক্ষণিকভাবে যোগাযোগ রাখছে তাঁর দল। দলটির শীর্ষ পর্যায়ের একাধিক নেতা এবিষয়ে সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিদের সঙ্গে কথা বলেছেন। লন্ডনে বসবাসরত বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানও এ জন্য তৎপর রয়েছেন বলে জানা গেছে।

দুর্নীতির দুটি মামলায় ২০১৮ সালের ৮ ফেব্রুয়ারি থেকে কারাবন্দি ছিলেন খালেদা জিয়া। দেশে করোনা সংক্রমণ শুরু হলে পরিবারের সদস্যদের আবেদনে সাজা ছয় মাসের জন্য স্থগিত রেখে তাঁকে গত বছর ২৫ মার্চ মুক্তি দেয় সরকার। এরপর খালেদা জিয়া রাজধানীর গুলশানের ভাড়া বাসা ‘ফিরোজা’য় ওঠেন। তাঁর মুক্তির মেয়াদ আরো বাড়ানো হয়েছে।

সম্প্রতি করোনা সংক্রমণ ধরা পড়ার পর গত ২৭ এপ্রিল রাজধানীর এভারকেয়ার হাসপাতালে ভর্তি করা হয় খালেদা জিয়াকে। উন্নত চিকিৎসার জন্য তাঁকে বিদেশ নিতে সরকারের অনুমতির অপেক্ষায় রয়েছে তাঁর পরিবার ও বিএনপি। 

About Syed Enamul Huq

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*