Saturday , 24 July 2021
ব্রেকিং নিউজ
Home » দৈনিক সকালবেলা » উপজেলার খবর » বাইশারী-গর্জনিয়া সড়কের বেহাল দশা! দেখার কেউ নেই রামু-কক্সবাজার আসনে সংসদ সদস্য হস্তক্ষেপ কামনা
বাইশারী-গর্জনিয়া সড়কের বেহাল দশা! দেখার কেউ নেই রামু-কক্সবাজার আসনে সংসদ সদস্য হস্তক্ষেপ কামনা

বাইশারী-গর্জনিয়া সড়কের বেহাল দশা! দেখার কেউ নেই রামু-কক্সবাজার আসনে সংসদ সদস্য হস্তক্ষেপ কামনা

নাইক্ষ্যংছড়ি, বান্দরবান, প্রতিনিধি: ২২/০৬/২০২১ইং।
নাইক্ষ্যংছড়ির, বাইশারী-গর্জনিয়া সড়ক এখন আর সড়ক নেই। রাস্তা নয় মনে হয় যেন মরন ফাঁদ। দৈনিক কোনো না কোনো ঘটনা ঘটেই যাচ্ছে। বিগত এক যুগ যাবত সড়কটি মেরামত না করায় প্রতিদিন দুর্ঘটনার শিকার হচ্ছে পথচারী। তার পর ও জীবনের ঝুঁকি নিয়ে দীর্ঘ আট কিলোমিটার সড়ক পথ পাড়ি দিয়ে গন্তব্য স্থানে ছুটছে লোকজন। গত ২০ শে জুন এম্বুলেন্স যোগে মৃত লাশ নিয়ে বড়বিল যাওয়ার পথে রাজঘাট নামক স্থানে রাস্তার বেহাল দশার কারণে লাশ নামিয়ে কাঁধে করে নিয়ে যেতে হয়েছে।
শিক্ষা ও জমিদারী প্রথায় এগিয়ে রামু উপজেলা ২নং গর্জনিয়া ইউনিয়ন। এই ইউনিয়নে প্রায় ৫০ হাজার মানুষের বসবাস। উখিয়া, টেকনাফ সাবেক সংসদ সদস্য শাহাজাহান চৌধুরীর নানার বাড়িও এই ইউনিয়নে। অপরদিকে বর্তমান রামু-কক্সবাজার সংসদ সদস্য সাইমুন সরওয়ার কমলও দাবী করেন এটার আমার এলাকা। তবুও রাস্তাঘাট দেখলে মনে হয় এখানে কোন নির্বাচিত জনপ্রতিনিধি নেই।
অবহেলিত জনপদের রাস্তাটি তিন ইউনিয়নের লক্ষাধিক লোকের চলাচলের একমাত্র মাধ্যম। পুরো এলাকাটি উন্নয়ন ও কৃষি ফলনশীল। শুকনো মৌসুমে কোনো রকম চলাচল করলেও বর্ষা মৌসুম শুরু হলে দুঃখের আর সীমা থাকবে না। এসব কথা জানালেন স্থানীয় বাসিন্দা মোঃ আব্দুল আলিম, মোঃ বেলাল, মো জসিম, গর্জনিয়া ইউনিয়ন যুবদলের সাধারণ সম্পাদক সাইমুন হাসান মানু, জয়নাল আবেদীন, মোঃ নাজের, ছাত্রলীগ নেতা মুমিনুল হক মনু সহ অনেকে। পার্বত্য বান্দরবান জেলার বাইশারী ইউনিয়নের আওতায় এক কিলোমিটার এবং দীর্ঘ আট কিলোমিটার সড়কটির অবস্থান রামু উপজেলার গর্জনিয়া ইউনিয়ন হয়ে কচ্ছপিয়া ভায়া গর্জনিয়া বাজার।
ওই সড়ক দিয়ে দুটি উপজেলা সদর, নাইক্ষ্যংছড়ি ও রামু উপজেলা যাওয়ার একমাত্র রাস্তা। শুধু সংস্কারের অভাবে দিন দিন খান খন্দ বেড়ে যাচ্ছে। সড়কটি মেরামত জরুরি হয়ে পড়েছে। দীর্ঘ আট কিলোমিটার সড়ক পথে রাজঘাট, বড়বিল, পূর্ব জুমছড়ি, থোয়াইঙ্গাকাটা, থিমছড়ি, সিকদার পাড়া জুমছড়ি, শাহ মোহাম্মদের পাড়াসহ বিভিন্ন স্থানে করুণ দশায় পরিণত হয়েছে।
এ বিষয়ে স্থানীয় চেয়ারম্যান ছৈয়দ নজরুল ইসলাম সড়কটির করুণ পরিণতির কথা স্বীকার করে বলেন, তিনি বিষয়টি সমন্বয় সভায় উপস্থাপন করেছেন। অচিরেই কাজ শুরু করা হবে। তিন ইউনিয়নের লক্ষাধিক জনগণ সড়কটি জরুরি ভিত্তিতে মেরামতের জন্য রামু-কক্সবাজার আসনের সংসদ সদস্য আলহাজ্ব সাইমুন সরওয়ার কমল এমপির নিকট জোর দাবি জানান।

About Syed Enamul Huq

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*