Friday , 30 July 2021
ব্রেকিং নিউজ
Home » প্রচ্ছদ » আফগানিস্তানের ৫০ জেলা তালেবানদের দখলে
আফগানিস্তানের ৫০ জেলা তালেবানদের দখলে
--সংগৃহীত ছবি

আফগানিস্তানের ৫০ জেলা তালেবানদের দখলে

অনলাইন ডেস্ক:

মার্কিন সেনা প্রত্যাহারের সুযোগে আফগানিস্তানে নিজেদের প্রভাব বাড়াচ্ছে তালেবান। দেশটিতে নিযুক্ত জাতিসংঘের বিশেষ দূত দেবোরাহ লিয়ন্স গতকাল মঙ্গলবার নিরাপত্তা পরিষদে জানিয়েছেন, গত মে মাস থেকে আফগানিস্তানের মোট ৩৭০টি জেলার মধ্যে ৫০টিরও বেশি জেলা নিজেদের দখলে নিয়েছে তালেবানরা। লিয়ন্স বলেন, ‘কাছাকাছি সময়ে হোক বা দূর ভবিষ্যতে, সংঘর্ষ যতো বেশি বাড়বে, আরো অনেক বেশি দেশের জন্য সেটা নিরাপত্তাহীনতা সৃষ্টি করবে।’ প্রতিদিনই সরকারি বাহিনীর সঙ্গে তালেবানের সংঘর্ষের ঘটনা ঘটছে। নিরাপত্তা পরিষদের কাছে এই পরিস্থিতিকে ‘বিপজ্জনক’ বলে উল্লেখ করেছেন জাতিসংঘের বিশেষ প্রতিনিধি ডেবোরাহ লিয়ন্স।

তিনি বলেন, ‘সংঘাত বেড়ে যাওয়ার মানে হলো কাছের এবং দূরের অন্য অনেকগুলো দেশেরও নিরাপত্তাহীনতা বেড়ে যাওয়া।’ যুক্তরাষ্ট্র ও ন্যাটো আগামী ১১ সেপ্টেম্বরের মধ্যে তাদের সকল সেনা আফগানিস্তান থেকে সরিয়ে নেওয়ার ঘোষণা দিয়েছে। পেন্টাগনের মুখপাত্র জন কিরবি আফগানিস্তানের পরিস্থিতিকে ‘গতিশীল’ বলে বর্ণনা করেছেন। তালেবানের আধিপত্য বেড়ে যাওয়ার পরেও সেনা প্রত্যাহারের সিদ্ধান্তে কোনো পরিবর্তন আনেনি পেন্টাগন। তবে প্রত্যাহারের ‘গতি ও সুযোগ’ পরিবর্তনের পরিস্থিতি এখনও রয়েছে। নিউইয়র্কে জাতিসংঘের ১৫ সদস্যের নিরাপত্তা পরিষদকে ডেবোরাহ বলেন, কট্টরপন্থী তালেবানের সাম্প্রতিক অগ্রযাত্রা একটি ‘চরম সামরিক অভিযানের’ ফলাফল।

তিনি বলেন, ‘যে জেলাগুলো তারা দখলে নিয়েছে সেগুলো বিভিন্ন প্রাদেশিক রাজধানীকে ঘিরে রয়েছে। এর মানে হলো যখন বিদেশি বাহিনী চলে যাবে তখনই রাজধানীগুলো দখলে নেয়ার জন্য তালেবান তাদের অবস্থান তৈরি করছে।’

এদিকে তাজিকিস্তানের সঙ্গে আফগানিস্তানের প্রধান সীমান্ত শির খান বন্দর দখল করে নিয়েছে দেশটির সশস্ত্র সংগঠন তালেবান। গতকাল মঙ্গলবার এক প্রাদেশিক কর্মকর্তার বরাত দিয়ে আলজাজিরা এ তথ্য জানিয়েছে। প্রতিবেদনে বলা হয়, তালেবানের আক্রমণের মুখে আফগান বাহিনীর সদস্যরা শির খান বন্দর সংলগ্ন নিরাপত্তা চৌকি থেকে পালিয়েছে। এমনকি অনেকে সীমান্ত পার হয়ে তাজিকিস্তানে অবস্থান নিয়েছেন।

শির খান বন্দর আফগানিস্তানের সীমান্তবর্তী কুন্দুজ শহর থেকে প্রায় ৫০ কিলোমিটার উত্তরে অবস্থিত। মার্কিন সামরিক বাহিনীসহ বিদেশি সেনাদের চলমান প্রত্যাহার প্রক্রিয়ার মধ্যেই এই ঘটনাকে তালেবানের সর্বোচ্চ অর্জন হিসেবে দাবি করছে অনেকে।

সূত্র: বিবিসি।

About Syed Enamul Huq

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*