Thursday , 29 July 2021
ব্রেকিং নিউজ
Home » দৈনিক সকালবেলা » বিভাগীয় সংবাদ » জেলার-খবর » কুষ্টিয়ার একজন মানবিক চিকিৎসক করোনাযোদ্ধা ডাঃ তাপস কুমার সরকার
কুষ্টিয়ার একজন মানবিক চিকিৎসক করোনাযোদ্ধা ডাঃ তাপস কুমার সরকার

কুষ্টিয়ার একজন মানবিক চিকিৎসক করোনাযোদ্ধা ডাঃ তাপস কুমার সরকার

কুষ্টিয়া প্রতিনিধি :

কুষ্টিয়ার করোনাযোদ্ধা ক্ষ্যাত ডাঃ এ এসএম মুসা কবীরের পরেই যার অবস্থান তিনি হলেন কুষ্টিয়া ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার মানবিক চিকিৎসক করোনাযোদ্ধা ডাঃ তাপস কুমার সরকার। সাম্প্রতিক সময়ে মহামারি করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত রোগীদের দিনরাত পরিশ্রম করে  মৃত্যুর ভয় না করে মানুষের সেবার লক্ষ্যে চিকিৎসা প্রদান করে চলেছেন। ডাঃ তাপস কুমার সরকার একজন স্কুল শিক্ষক ও বীর মুক্তিযোদ্ধার সন্তান। ১৯৮৮ সালে তিনি কুষ্টিয়া জেলা স্কুল থেকে এস এসসি পাশ করে মাধ্যমিক শেষ করেছেন। ১৯৯৯ সালে তিনি চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল থেকে মেডিকেল কোর্সের পড়াশুনা  শেষ করে ডাক্তারী সার্টিফিকেট লাভ করেছেন। ২০০৮ সালে তিনি কুষ্টিয়া ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসক হিসেবে চাকরী লাভ করেন।২০১৯ সালে তিনি কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালের ভারপ্রাপ্ত তত্বাবধায়কের দায়িত্বে ছিলেন। তিনি একজন ভালো চিকিৎসক হিসেবে বিভিন্ন চিকিৎসক সংগঠনের স্বনামধন্য পদের অধিকারী হয়েছেন। তিনি বাংলাদেশ মেডিকেল এসোসিয়েশন  বিএমএ কুষ্টিয়া জেলা শাখার যুগ্ন- সাধারণ সম্পাদক এবং স্বাধীনতা চিকিৎসক পরিষদ কুষ্টিয়া জেলা শাখার যুগ্ন-সাধারন সম্পাদক হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন।ডাঃ তাপস কুমার সরকার চাকরী জীবন থেকেই অসহায় নিরীহ মানুষের চিকিৎসক হিসেবে নিষ্ঠার সাথে চিকিৎসা সেবা প্রদান করে আসছেন। ২০২০ সাল থেকে সারা বিশ্বের ন্যায় বাংলাদেশেও  মহামারি করোনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাবের মধ্যে করোনার ব্যাপক সংক্রমন শুরু হয়েছে। সীমান্তবর্তী জেলা হিসেবে কুষ্টিয়াতেও ব্যাপক হারে করোনায় মানুষ আক্রান্ত হয়েছে। কুষ্টিয়া জেলায় করোনা আক্রান্ত রোগীদের চিকিৎসা সেবা শুধুমাত্র সরকারি হাসপাতাল ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতাল ছাড়া অন্য কোথাও নেই। ২০২০ সালের করোনার প্রথম ঢেউয়ের ছেয়ে ২০২১ সালে করোনা ভাইরাসের দ্বিতীয় ঢেউয়ে করোনায় আক্রান্ত ও মৃত্যুর সংখ্যা অনেক বেশি। বর্তমানে কুষ্টিয়া জেলায় করোনা সংক্রমন ও করোনায় আক্রান্ত হয়ে মানুষের মৃত্যুর হআর বেড়ে যাওয়ায় ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালটি করোনা ডেডিকেটেড হাসপাতাল বলে ঘোষনা করা হয়েছে। হাসপাতালটির আবাসিক মেডিকেল অফিসার হবার কারনে ডাঃ তাপস কুমার সরকারের চিকিৎসা সেবার চাপ অনেক বেড়ে গিয়েছে। প্রতিদিন নতুন করে করোনায় আক্রান্ত রোগীদের চিকিৎসা সেবা প্রদান করা এবং পূর্বে ভর্তি হওয়া রোগীদের চিকিৎসা সেবা প্রদান করতে গিয়ে দিনরাত পরিশ্রম করছেন তিনি। প্রতিদিন কুষ্টিয়া জেলায় গড়ে ১০০ জনেরও বেশি আক্রান্ত হচ্ছে। যার ফলে রোগী হাসপাতালে বৃদ্ধি হচ্ছে দিন দিন। ডাঃ তাপস কুমার সরকার সব পরিস্থিতি সামাল দিয়ে প্রত্যেক রোগীকে চিকিৎসা সেবা প্রদান করে চলেছে। অনেক রোগী মারা যাচ্ছে, অনেক রোগী স্বাসকষ্টে ভুগছে। হাসপাতালের এক মাথা থেকে অন্য মাথা পর্যন্ত শুধুই করোনা রোগীকে চিকিৎসা সেবা প্রদান করছেন তিনি। চোখের সামনে এতগুলো আক্রান্ত রোগীর কষ্টকর পরিস্থিতি দেখেও এখনো পর্যন্ত পিছু পা হেটেনি তিনি। তিনি মৃত্যুকে উপেক্ষা করে সংক্রমন হওয়ার ভয় না করে দিন রাত মিলিয়ে প্রায় ২৪ ঘন্টায় করোনায় আক্রান্ত রোগীদের পাশে থেকে চিকিৎসা সেবা প্রদান করে চলেছেন।এ বিষয়ে ডাঃ তাপস কুমার সরকারের সাথে সাক্ষাত করলে তিনি বলেন,আমি মানুষের চিকিৎসা সেবা প্রদান করার জন্য ডাক্তার হয়েছি। যঅতক্ষন এ দেহে প্রান রবে ততক্ষন আমি মানুষের সেবায় নিয়োজিত থাকবো। 

About Syed Enamul Huq

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*