ব্রেকিং নিউজ
Home » দৈনিক সকালবেলা » বিভাগীয় সংবাদ » জেলার-খবর » কেওয়াট খালি ভূমি অফিসের জিজ্ঞাসা, সংবাদ কেন ভূলুণ্ঠিত হবে?
কেওয়াট খালি ভূমি অফিসের জিজ্ঞাসা, সংবাদ কেন ভূলুণ্ঠিত হবে?
Exif_JPEG_420

কেওয়াট খালি ভূমি অফিসের জিজ্ঞাসা, সংবাদ কেন ভূলুণ্ঠিত হবে?

ময়মনসিংহ প্রতিনিধি:
সম্প্রতি পর্যবেক্ষণে গভীর ভাবে লক্ষ্য করা যাচ্ছে ময়মনসিংহ সহ বিভিন্ন জেলা উপজেলার সরকারি কর্মক্ষেত্রগুলোতে জনবল সংকট বৃদ্ধি পেয়েছে। যার ব্যাপকতা পরিলক্ষিত হচ্ছে বিশেষ করে সরকারি ভূমি অফিস গুলোতে।
ভূমি অফিসগুলোর বিশেষত্বই হচ্ছে প্রতিদিন কার্যদিবসে শত শত লোকজন,গ্রাহক সাধারণ মানুষ যারা অধিকাংশ তৃনমূল পর্যায় থেকে আসা।
জানা গেছে ভূমি অফিস একটি সরকারি স্পর্শকাতর অফিস অথচ লক্ষ্য করা গেছে,অধিকাংশ এই অফিসেই লোকবল যথেষ্ট কম। আর এই সুযোগটাই কাজে লাগায় বহিরাগত দালাল গোত্রের মানুষ এবং এই তথাকথিত দালাল ব্যক্তিরাই এই দুর্বলতাকে কাজে লাগায় অসংখ্য সাংবাদিক পরিচিতদের মাধ্যেমে।জানা গেছে ভূমি অফিসে লোকবল কম অন্যদিকে গ্রাহকদের সংখ্যা প্রতিদিনই চক্রকারে বাড়ছে।
দেখা গেছে, ময়মনসিংহের কেওয়াটখালি ভূমি অফিসের সহকারী ভূমি কর্মকর্তা শফিকুল ইসলাম সিরাজীর নাম উল্লেখ করে গুটি কয়েক ফেইসবুক এবং পত্রিকায় অনিয়ম দুর্নীতির কথা লেখা হয়েছে।কিভাবে লেখাটির সৃষ্টি এবং শফিকুল ইসলাম সিরাজীর নামটাই কীভাবে লেখায় জোড়ালো ভাবে এসে গেলো এই ব্যাপারে শফিকুল ইসলাম সিরাজী দ্বিধান্বিত।তিনি বিস্ময় প্রকাশ করেছেন।তিনি বলেছেন, আমরা শতশত লোকের প্রতিদিন সেবা দিতে গিয়ে নিজেরা অসীম সমুদ্রে হাবুডুবু খাচ্ছি অথচ আমি নিজেও কিছু জানলাম না,বুঝলাম না,আমার বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগ আনা হলো।অন্য দিকে ভূমি অফিসে আগত লোকদের সামাল দিতে গিয়ে আমি নাস্তানাবুদ। ময়মনসিংহ জেলা প্রশাসনের উচ্চ মহলের প্রতি অনুরোধ জ্ঞাপন করে বলছি,কই আমাদের বাক্কি ঝামেলা, শত লোকের কাজের মধ্যে কার কাজ আগে করবো এ ব্যাপারে সাংবাদিকরা তো দেখেন না।আমাদের সমস্যার কথা লেখা হয় না।
অনুসন্ধান করে জানা গেছে, বহিরাগত কিছু সুবিধাবাদী ব্যক্তি সাংবাদিকদের ব্যবহার করে অনাহত এবং অনভিপ্রেত ভাবে ভূমি অফিসে কিছু কর্মরতদের বাছাই করে তাদের বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগ টুকে দেয়।আর যার বিরুদ্ধে নিউজ হলো তিনি পড়ে যান মহা ফাপড়ে ফলে কাজের ক্ষতি হয় আর কর্মরত ওই ব্যক্তিটি একটি ঝামেলায় পড়ে যান। এটা কোনভাবেই কাম্য হতে পারে না।এই উপলব্ধি সবার মাঝে থাকা উচিত। সংবাদ কেন ভূলুণ্ঠিত হবে।

About Syed Enamul Huq

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com