Thursday , 18 July 2024
E- mail: news@dainiksakalbela.com/ sakalbela1997@gmail.com
ব্রেকিং নিউজ
কড়াকড়ি ভেতরে,গাদাগাদি বাইরে,  উধাও স্বাস্থ্যবিধি

কড়াকড়ি ভেতরে,গাদাগাদি বাইরে, উধাও স্বাস্থ্যবিধি

অনলাইন ডেস্ক:

দ্বিতীয় দফায় করোনাভাইরাসের সংক্রমণের ঊর্ধ্বগতির মধ্যেই গতকাল শুক্রবার রাজধানী ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে মেডিক্যাল কলেজের এমবিবিএস কোর্সে ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়েছে। পরীক্ষাকেন্দ্রের ভেতর স্বাস্থ্যবিধির কড়াকড়ি থাকলেও গাদাগাদি করেই কেন্দ্রে ঢুকেছেন শিক্ষার্থীরা; কেন্দ্রের গেটে ও বাইরে ছিল অভিভাবকের ব্যাপক ভিড়। অনেকের মুখে ছিল না মাস্ক, মানা হয়নি সামাজিক দূরত্বও।

গতকাল সকাল ১০টা থেকে ১১টা পর্যন্ত দেশের বিভিন্ন স্থানে ৫৫টি কেন্দ্রে এই ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়। এ বছর সারা দেশে এক লাখ ২২ হাজার ৮৭৪ জন শিক্ষার্থী এ পরীক্ষায় অংশ নেওয়ার আবেদন করেছিলেন; এর মধ্যে শুধু ঢাকায় ১৫টি কেন্দ্রে পরীক্ষার্থী ছিলেন ৪৭ হাজার।

করোনার কারণে পরীক্ষার কেন্দ্রে শিক্ষার্থীদের প্রবেশে ছিল বেশ কড়াকড়ি। মাস্ক পরা বাধ্যতামূলক করার পাশাপাশি কেন্দ্রে ঢোকার সময় গায়ের তাপমাত্রা পরীক্ষা, সাবান দিয়ে হাত ধোয়া বা স্যানিটাইজ করার ব্যবস্থা ছিল। কিন্তু কেন্দ্রের বাইরে ছিল একেবারেই ভিন্ন চিত্র। গেটের সামনে শিক্ষার্থীদের সঙ্গে আসা অভিভাবকদের প্রচণ্ড ভিড়ে সামাজিক দূরত্ব মানার কোনো বালাই ছিল না। কোথাও কোথাও পুলিশ চেষ্টা করেও সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখার ব্যবস্থা করতে পারেনি। পরীক্ষা চলাকালে বাইরে যেমন অভিভাবকদের ভিড় ছিল, পরীক্ষা শেষে শিক্ষার্থীরা যখন বেরিয়ে আসছিলেন তখন আর কোনোভাবেই ভিড় সামলানো যায়নি।

ঢাকায় ইডেন মহিলা কলেজের সামনে অপেক্ষমাণ এক পরীক্ষার্থীর অভিভাবক বলেন, ‘কেউ স্বাস্থ্যবিধি মানছে না। সবাই ভিড় করতেছে। আসলে এরা বুঝতেই চাচ্ছে না করোনার ভয়াবহতা।’

গাদাগাদির মধ্যে দাঁড়িয়ে থাকা আরেক অভিভাবক জানালেন, ‘কোথাও কেউ সামাজিত দূরত্ব রেখে দাঁড়াচ্ছে না। বরং একে অন্যের সঙ্গে গল্প করছে কাছে বসে।’

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়, ঢাকা কলেজ, টিচার্স ট্রেনিং কলেজ, গার্হস্থ্য অর্থনীতি কলেজ, গভর্নমেন্ট ল্যাবরেটরি হাই স্কুল, বেগম বদরুন্নেসা কলেজ কেন্দ্রের সামনেও দেখা গেল অভিভাবকদের প্রচণ্ড ভিড়। করোনার ঊর্ধ্বগতির মধ্যে এভাবে  পরীক্ষা নেওয়ায় অনেক অভিভাবকই ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন। তাঁদের  প্রশ্ন, ‘জীবন ঝুঁকির মধ্যে ফেলে দিয়ে এভাবে পরীক্ষা নেওয়ার খুব দরকার ছিল?’

চট্টগ্রাম, রাজশাহী, ময়মনসিংহ, বগুড়া, কুমিল্লা, ফরিদপুর, রংপুরসহ বিভিন্ন এলাকায় একই চিত্র ছিল বলে জানা যায়।

About Syed Enamul Huq

Leave a Reply