ব্রেকিং নিউজ
Home » দৈনিক সকালবেলা » বিভাগীয় সংবাদ » জেলার-খবর » নেশার টাকা না পেয়ে আত্মহত্যা!
নেশার টাকা না পেয়ে আত্মহত্যা!

নেশার টাকা না পেয়ে আত্মহত্যা!

মাদারীপুর জেলা প্রতিনিধিঃ
মাদারীপুরের কালকিনিতে নেশার টাকা না পেয়ে রুবেল সরদার (৩৪) নামে এক যুবক আত্মহত্যা করেছে।রোববার সকালে নিজ ঘরের ফ্যানের সঙ্গে ঝুলন্ত অবস্থায় তার লাশ উদ্ধার করে কালকিনি থানা পুলিশ। নিহত রুবেল কালকিনি উপজেলার কয়ারিয়া ইউনিয়নের বড়চর কয়ারিয়া গ্রামের খালেক সরদারের একমাত্র ছেলে।
সরোজমিন ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়,নিহত রুবেল মাদকাসক্ত ছিল। সে বিভিন্ন সময়ে নেশার টাকার জন্য পরিবারের সাথে কলহ সৃষ্টি করতো। ইতিপূর্বে মাদক থেকে নিরাময়ের জন্য তাকে দুই বারে মোট ৬ মাস ঢাকা রিহ্যাব সেন্টারে রাখা হয়। সেখান থেকে ফিরে এসে পুনরায় সে মাদকাসক্ত হয়ে পড়ে। সর্বশেষ গতকাল রাতে নেশার টাকার জন্য সে পরিবারের লোকজনের সাথে ঝগরা করে। পরে টাকা না পেয়ে সে একা একটি কক্ষে ঘুমাতে চলে যায়।ভোররাতে তার স্ত্রী মহিমা বেগম সেহরি খেতে উঠে ঘরের দরজা বন্ধ পেয়ে অনেক ডাকাডাকি করে সাড়া শব্দ না পাওয়ায় জানালা দিয়ে ফ্যানের সঙ্গে ঝুলন্ত অবস্থায় রুবেলকে দেখতে পায়। পরে আশেপাশের লোকজনকে ডাক দিলে তারা এসে দরজা ভেঙে রুবেলের লাশ উদ্ধার করে।
এ ব্যাপারে রুবেলের চাচতো ভাই সোহান সরদার বলেন, গতকাল নেশার টাকার জন্য পরিবারের সাথে রুবেলের ঝগরা হয়। পরে আমরা এসে রুবেলকে শান্ত করি। ভোররাতে রুবেলের স্ত্রীর চিৎকারে ঘুম থেকে উঠে এসে রুবেলকে ফ্যানের সঙ্গে ঝুলন্ত অবস্থায় দেখতে পাই। পরে আমরা দরজা ভেঙে রুবেলকে উদ্ধার করি। কিন্তু অনেকক্ষণ যাবৎ ফ্যানের সঙ্গে ঝুলে থাকায় অনেক আগেই তার মৃত্যু হয়।
রুবেলের চাচা আল-আমিন সর্দার বলেন, রুবেল অনেকটা বেপরোয়া ছিল। সে কারও কথা শুনতো না। নেশাগ্রস্ত হওয়ার কারণে মানসিকভাবে সে অনেকটা ভারসাম্যহীন হয়ে পড়ে। গতকাল রাতে নেশার টাকা না পেয়ে সে ফ্যানের সঙ্গে ঝুলে আত্মহত্যা করে।
এ ব্যাপারে কালকিন থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ইশতিয়াক আশফাক রাসেল জানান, আত্মহত্যার খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে।পরিবারের কারও কোনো অভিযোগ না থাকায় এখনো কোন মামলা দায়ের করা হয়নি। তবে অভিযোগ পেলে তদন্ত সাপেক্ষে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

About Syed Enamul Huq

Leave a Reply

WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com