ব্রেকিং নিউজ
Home » প্রচ্ছদ » ‘পথেই যাদের আবাস, পথেই যাদের বসবাস’
‘পথেই যাদের আবাস, পথেই যাদের বসবাস’

‘পথেই যাদের আবাস, পথেই যাদের বসবাস’

ইবি প্রতিনিধি: অক্টোবরের ২ তারিখ আজ। জাতীয় পথশিশু দিবস আজ। আমাদের দেশের শিশুদের রক্ষা ও তাদের অধিকার প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে প্রতিবছর আজকের এইদিনে শিশু দিবস পালিত হয়। দেশের বেশিরভাগ লোকই দরিদ্র সীমার নিচে বসবাস করে। দরিদ্রতার কারণে সঠিকভাবে শিশুদের গড়ে তুলতে পারে না। তাদের সংসারে অভাব অনটন লেগেই থকে। তারা ছেলে-মেয়েদের ঠিকমত খাবার, বাসস্থান, বস্ত্র, চিকিৎসা ও অন্যান্য মৌলিক অধিকার, সুযোগ-সুবিধা প্রদানে ব্যর্থ হয়। এর ফলে দিন থেকে দিন যতই অতিক্রম করছে ততই পথশিশুদের সংখ্যা বৃদ্ধি পাচ্ছে। রাস্তার পাশে, স্টেশনের ধারে, শহরের বিভিন্ন অলিগলিতে তাকালে হাজার হাজার পথশিশু দেখতে পাওয়া। এদের করুণ অবস্থার দিকে দৃষ্টি দিলে চোখে পানি এসে যায়। এই শিশুরা কারোনা কারোও সন্তান কারোনা না কারোও আত্বীয়-স্বজন। 
পথশিশুরা শিশুরা জীবনের প্রতিটি ধাপে বিভিন্ন ধরনের অবহেলা ও বঞ্চনার শিকার হয়। এদের মাঝে কেউ কেউ  কাগজ কুড়ায়, কেউ ভিক্ষাবৃত্তি করে, কেউ কলকারখানায় কাজ করে, কেউবা পাচারের শিকার হয়, কেউ অন্নের অভাবে চুরি করতে বাধ্য হয়। এই শিশুদের তীব্র শীতের মাঝে গরম পোশাক দেখা যায় না। প্রায় স্থানেই দেখা যায় রাস্তার মোড়ে, স্টেশনে কুকুরের সাথে তারা রাত কাটায়।  
আমাদের দেশের বিভিন্ন শহরে হাজার হাজার পথশিশু রয়েছে। পথই যাদের আবাস। পথেই যাদের বসবাস। জন্মের পর থেকেই যারা জীবন যুদ্ধের সঙ্গে পরিচিত। রোদ-বৃষ্টি, গরম-শীত যাদের কাছে সমান। পরনে কাপড় আছে কি নেই তা তাদের কাছে মুখ্য নয়। সকালে ঘুম থেকে উঠেই মায়ের হাতে তৈরী খাবার দিয়ে নাস্তা করার পরিবর্তে তারা মানুষের বকুনি খায়। যখন অন্য শিশুরা পাঠশালায় জ্ঞান অন্বেষণে ব্যস্ত তখন এরা নিজদের ক্ষুণিবৃত্তির অনুসন্ধানে লিপ্ত। ছিন্নবস্ত্র পরিহিত বা বস্ত্রহীন এরাই পথ শিশু নামে সর্বত্র পরিচিত। 
জন্মের সময় প্রতিটি শিশু তার নাগরিক অধিকার নিয়ে জন্মায়। আজ যে শিশু ভালোভাবে কথা বলতে শেখেনি তাকেও জীবিকার তাগিদে ভিক্ষা করতে হচ্ছে। তার কাছে জীবনের মানে হলো ক্ষুধা নিবারণের জন্য পথে পথে ভিক্ষাবৃত্তি করে বেঁচে থাকার লড়াই। এদের এই দুরবস্থার জন্য দায়ী আমাদের পরিবার, সমাজ ও রাষ্ট্রীয় ব্যবস্থা।
দেশে সুবিধাবঞ্চিত পথশিশু আছে সাড়ে ১১ লাখ। এই শিশুদের মধ্য অনেকের মা বাবা নেই, কারো মা বাবার বিচ্ছেদ হওয়ায় শিশুরা পথে পথে ঘুড়ে বেড়ায়,  অনেকেই বাড়ি থেকে পালিয়ে যায়, অনেকে পাচারের শিকার হয় এছাড়াও অনেকে তার নিজস্ব পরিচয় জানেনা। পথ শিশুদের রক্ষা ও তাদের অধিকার প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে প্রতিবছর আমাদের দেশে পালিত হয় পথ শিশু দিবস। জাতিসংঘ এবং এর অঙ্গ সংগঠন ‘ইউনিসেফ’ শিশু অধিকার ও তাদের স্বাস্থ্য রক্ষায় যথাসাধ্য চেষ্টা করে যাচ্ছে।
স্বাধীন দেশে পথশিশুদেরও সমান সুযোগ-সুবিধা নিয়ে বড় হওয়ার অধিকার আছে। খাদ্য, বস্ত্র, বাসস্থান, শিক্ষা, চিকিৎসা এ মৌলিক চাহিদাগুলো যথোপযুক্তভাবে পাওয়ার অধিকার রয়েছে। পথশিশুদের অধিকার বাস্তবায়নে আমরা নিজেদের পক্ষ থেকে যে যতটুকু পারি ততটুকু দিয়েই নিজের অবস্থান থেকে তাদের পাশে দাঁড়াব। 

About Syed Enamul Huq

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*