ব্রেকিং নিউজ
Home » জাতীয় » বিএনপির ভিশন ২০৩০ ডিপফ্রিজেই আছে : সেতুমন্ত্রী
বিএনপির ভিশন ২০৩০ ডিপফ্রিজেই আছে : সেতুমন্ত্রী
--ফাইল ছবি

বিএনপির ভিশন ২০৩০ ডিপফ্রিজেই আছে : সেতুমন্ত্রী

অনলাইন ডেস্ক:

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক, সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, আমাদের ভিশন হচ্ছে শেখ হাসিনার ভিশন, বিএনপির ভিশন নয়। গত নির্বাচনের আগে হঠাৎ ঢাকঢোল পিটিয়ে ২০৩০ ভিশন দিয়েছে। এ ভিশন কোথায়? সেটা এখন ডিপফ্রিজে আছে। এটা হলো নির্বাচনকে সামনে রেখে পলিটিক্যাল স্ট্যান্টবাজি। বিএনপির ভিশন ২০৩০ ফ্রিজের মধ্যে ছিল, ডিপফ্রিজেই এখন আছে। এটা ডিপফ্রিজ থেকে আর আলোর মুখ দেখবে না।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ৭৫তম জন্মদিন উপলক্ষে আজ শুক্রবার ‘বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা শেখ হাসিনার উন্নয়নের সংগ্রাম, নিরবচ্ছিন্ন স্বপ্নের মহাসড়কে খুলনা থেকে চট্টগ্রাম’ শীর্ষক এক সেমিনারে তিনি এসব কথা বলেন।

ওবায়দুল কাদের বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ভিশন ২০২১, ২০৪১ ও ২১০০, যখন যা করার দরকার তখন তিনি তাই করবেন। সব পরিকল্পনাই প্রধানমন্ত্রীর বিবেচনায় আছে। এটার কনসেপ্টটা তো বুঝতে হবে। বিএনপি কাউন্টার ভিশন হিসেবে ২০৩০ করেছিল। এটা কখনো আলোর মুখ দেখবে না।

তিনি বলেন, ফখরুল সাহেব যে বড়-বড় কথা বলেন ইলেকশন করবে কি দিয়ে, জনগণকে কি দেখাবে। বড় বড় প্রকল্পগুলো আগামী বছর যখন উদ্বোধন হবে তখন বিএনপি চোখে সর্ষে ফুল দেখবে। সারা বাংলাদেশের চেহারা তখন বদলে যাবে। নেতিবাচক রাজনীতি করে বিএনপি জনগণ থেকে বিচ্ছিন্ন হয়েছে।

তিনি আরো বলেন, নির্বাচন বয়কট করে আপনারা জনগণ থেকে আরো বিচ্ছিন্ন হয়ে যাবেন। এটাই বাস্তবতা, ইতিহাস বলে, ৭০ সালের ইয়াহিয়া খানের এলএফও লিগ্যাল ফেমওয়ার্কের সেই বাঁধাকে উপেক্ষা করে বঙ্গবন্ধু নির্বাচনে অংশ গ্রহণ করেছেন। অনেক না করছেন, ফল পাবেন না। যতই বাঁধা থাক জনগণ যেদিকে চাবে তারাই জিতবে। আজকে তাদের জনগণকে নিয়ে ভয় আছে। ডিপফ্রিজ থেকে ২০৩০ ভিশনটা একটু বাহির করেন।

অনুষ্ঠানের বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক উপ-কমিটির চেয়ারম্যান এবং বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের উপদেষ্টামণ্ডলীর সদস্য প্রফেসর ড. মো. হোসেন মনসুরের সভাপতিত্বে সঞ্চালনা করেন আইইবি.র ঢাকা কেন্দ্রের সম্পাদক ইঞ্জিনিয়ার কাজী খায়রুল বাশার।

অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য দেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক এবং উপ-কমিটির সদস্য সচিব ইঞ্জিনিয়ার মো. আবদুস সবুর। সেমিনারে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয় (বুয়েট) এর পুরকৌশল বিভাগের অধ্যাপক ড. ইঞ্জিনিয়ার এ. এফ. এম. সাইফুল আমিন।

এ ছাড়া আলোচক হিসেবে বক্তব্য রাখেন আইইবি’র প্রেসিডেন্ট প্রকৌশলী মো. নূরুল হুদা, বুয়েটের পুরকৌশল বিভাগের অধ্যাপক ড. ইঞ্জিনিয়ার মো. মিজানুর রহমান, সেতু কর্তৃপক্ষের প্রধান প্রকৌশলী কাজী মোহাম্মদ ফেরদৌস, সড়ক ও জনপদের অতিরিক্ত প্রধান প্রকৌশলী এ কে এম মনির হোসেন পাঠান।

About Syed Enamul Huq

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*