ব্রেকিং নিউজ
Home » দৈনিক সকালবেলা » বিভাগীয় সংবাদ » জেলার-খবর » ব্রাহ্মণবাড়িয়া নার্সিং ইনস্টিটিউটে ফুড ফেয়ার অনুষ্ঠিত
ব্রাহ্মণবাড়িয়া নার্সিং ইনস্টিটিউটে ফুড ফেয়ার অনুষ্ঠিত

ব্রাহ্মণবাড়িয়া নার্সিং ইনস্টিটিউটে ফুড ফেয়ার অনুষ্ঠিত

ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা প্রতিনিধি:
বিপুল উৎসাহ ও উদ্দীপনার মধ্য দিয়ে  ব্রাহ্মণবাড়িয়া নার্সিং ইনস্টিটিউটের ২০১৯ ও ২০২০ শিক্ষাবর্ষের শিক্ষার্থীর আয়োজনে বার্ষিক ফুড ফেয়ার অনুষ্ঠিত হয়েছে।
ফাস্টফুড ও ঘরোয়া খাবারের সমারোহে আয়োজিত ফুড ফেয়ার ঘিরে উৎসবমুখর হয়ে উঠেছিল ব্রাহ্মণবাড়িয়া নার্সিং ইনস্টিটিউট মিলনায়তন।
সোমবার (২২ নভেম্বর) দুপুর থেকে বিকেল পর্যন্ত নার্সিং ইনস্টিটিউট মিলনায়তনে এ ফুড ফেয়ার অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়।
ব্রাহ্মণবাড়িয়া নার্সিং ইনস্টিটিউটের প্রিন্সিপাল সালাউদ্দিন মাধবরের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জেলা সিভিল সার্জন ডা. মুহাম্মদ একরাম উল্লাহ।
তিনি দুপুর দেড়টার দিকে ফিতা কেটে ফুড ফেয়ার উদ্বোধন ঘোষণা করেন। এরপর মেলায় অংশ নেওয়া ৬টি স্টল ঘুরে দেখেন ও শিক্ষার্থীদের উৎসাহ দেন।
ফুড ফেয়ার অনুষ্ঠানে ৬টি গ্রুপে ২০১৯ ও ২০২০ শিক্ষাবর্ষের ৭০জন শিক্ষার্থী প্রায় ৩শতাধিক বাহারী খাবার উপস্থাপন করেন। ট্রেডিশনাল ফুড গ্রুপে ৫০ রকমের খাবার, কালচারাল পিঠা গ্রুপে ৩৫ রকমের খাবার, প্রোটিন গ্রুপে ৪৫ রকমের খাবার, ভিটামিন ও ফ্যাট (ডায়নামিক) গ্রুপে ৭০ রকমের খাবার, কার্বোহাইড্রেট গ্রুপে ৪৫ রকমের খাবার ও ট্রেডিশনাল ভর্তা গ্রুপে ৫৫ রকমের ভর্তা উপস্থাপন করা হয়।
বিভিন্ন দেশি-বিদেশি খাবার ছাড়াও ছিলো বিভিন্ন ধরনের শীতকালিন পিঠা, ফুচকা, চটপটি ও বাহারি রকমের ভর্তা থেকে শুরু করে ফাস্টফুডের বিভিন্ন আইটেম।
পিঠার রাজ্যে ছিলো পুলি পিঠা, ফুল পিঠা, নকশি পিঠা, পাটিসাপটাসহ অতিথিদের মন কারতে সঙ্গে ছিলো বাংলার ঐতিহ্যবাহী নারকেলের নাড়ু ও বাহারী রকমের ভর্তা।
এ বিষয়ে জেলা সিভিল সার্জন ডা. মুহাম্মদ একরাম উল্লাহ ফুড ফেয়ার পরিদর্শন করে বলেন, বিপুল উৎসাহ ও উদ্দীপনায় অনুষ্ঠিত অনুষ্ঠানে এসে আমি সত্যি আনন্দিত। ২০১৯  ও ২০২০ শিক্ষাবর্ষের শিক্ষার্থীদের এই উদ্যোগকে স্বাগত জানাই। শিক্ষার্থীদের তৈরি করা প্রতিটি খাবার স্বাস্থ্যসম্মত। চিকিৎসা সেবার পাশাপাশি নার্সিং শিক্ষার্থীদের এসব শিক্ষামূলক কাজে উদ্বুদ্ধ করতে হবে৷ তাহলেই নার্সিং শিক্ষার্থীদের মনন ও জ্ঞান বিকশিত হবে।
অনুষ্ঠানে অন্যান্যদের মধ্যে আরও উপস্থিত ছিলেন ব্রাহ্মণবাড়িয়া ২৫০ শয্যাবিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালে গাইনি বিভাগের জুনিয়র কনসালটেন্ট ডা. ফৌজিয়া আখতার, গাইনী চিকিৎসক ডা. জিনান রেজা, ডা. শারমীন হক স্বর্ণা, ডা. লুৎফুর নাহার লুৎফা, শারমিন হক সুমি ও শিশু চিকিৎসক ডা. নুরুন নাহার ও হাসপাতালের মেডিসিন বিশেষজ্ঞ ডা. মারুফ আহমেদসহ নার্সিং ইনস্টিটিউটের অন্যান্য নার্সিং ইনস্ট্রাক্টরগণ প্রমূহ।
অনুষ্ঠানে ব্রাহ্মণবাড়িয়া নার্সিং ইনস্টিটিউটের শিক্ষার্থীরা আমন্ত্রিত অতিথিদের মধ্যে বিভিন্ন ধরনের শিক্ষার্থীদের তৈরি করা খাবার প্রদর্শন করা হয়।

About Syed Enamul Huq

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com