ব্রেকিং নিউজ
Home » শিক্ষাসংস্কৃতি » ক্যাম্পাস » শিক্ষামন্ত্রীর কাছে ৮ দফা দাবি শিক্ষার্থীদের
শিক্ষামন্ত্রীর কাছে ৮ দফা দাবি শিক্ষার্থীদের

শিক্ষামন্ত্রীর কাছে ৮ দফা দাবি শিক্ষার্থীদের

অনলাইন ডেস্ক:

শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যের পদত্যাগ দাবিতে আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের সঙ্গে বৈঠকের পর শিক্ষামন্ত্রী দীপু মনি বলেছেন, শিক্ষার্থীদের দাবির কথা তিনি বিশ্ববিদ্যালয়ের আচার্য রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদকে অবহিত করবেন। কারণ তিনি উপাচার্যকে নিয়োগ কিংবা অপসারণ করেন।

শিক্ষামন্ত্রী গতকাল শুক্রবার (১২ ফেব্রুয়ারি) সিলেট সার্কিট হাউসে শাহজালাল বিশ্ববিদ্যালয়ের আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের সঙ্গে প্রায় সাড়ে তিন ঘণ্টা বৈঠক করেন। সন্ধ্যা ৬টার দিকে গণমাধ্যমের সঙ্গে কথা বলেন মন্ত্রী।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল, শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব (বিশ্ববিদ্যালয়) এ কে এম আফতাব হোসেন প্রামাণিক, বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশনের পরিচালক (জনবল : পরিকল্পনা ও উন্নয়ন) ফেরদৌস জামান প্রমুখ।

শাহজালাল বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের আমন্ত্রণে সিলেট এসেছেন জানিয়ে শিক্ষামন্ত্রী বলেন, ‘কিছুদিন আগে বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষার্থীদের একটা আন্দোলন হয়েছে। সে সময় আমরা শিক্ষার্থীদের সঙ্গে কথা বলেছি। তারা আমাকে সিলেটে আসার আমন্ত্রণ জানিয়েছিল। সেই আমন্ত্রণে আমরা আজ এসেছি। ’

মন্ত্রী বলেন, ‘শিক্ষার্থীদের ১১ জনের একটি প্রতিনিধিদল এসেছে। ওই ঘটনায় তাদের যা যা বক্তব্য আছে তারা বর্ণনা করেছে। তাদের দাবি-দাওয়া নিয়ে আলাপ হয়েছে। আমরা তাদের কথাগুলো বুঝতে চেষ্টা করেছি। ’

শিক্ষামন্ত্রী বলেন, ‘তাদের যে দাবি আছে, পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার মান, শিক্ষকতার মান, শিক্ষার সার্বিক পরিবেশ কিভাবে উন্নত করা যায়, সেসব তারা নিজেরাই চিন্তা করে বেশ কিছু প্রস্তাব দাঁড় করিয়েছে। তাদের দাবিগুলোর বেশ কিছু পূরণ করা হয়েছে। বাকি যেগুলো আছে তা সক্রিয় বিবেচনায় নিয়ে যত দ্রুত সম্ভব পূরণের উদ্যোগ নেব। ’

আলোচনা ভালো হয়েছে জানিয়ে মন্ত্রী বলেন, ‘আমরা চাই, দ্রুততম সময়ের মধ্যে বিশ্ববিদ্যালয় স্বাভাবিক পরিস্থিতিতে ফিরে আসুক। আমাদের সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে কয়েক দিনের মধ্যেই শ্রেণিকক্ষে পাঠদান শুরু হবে। আমরা বিশ্ববিদ্যালয়ে যাব, প্রশাসনের সঙ্গে কথা বলব। আমরা চাই, এখানেও একই অবস্থা বিরাজ করুক। যত দ্রুত সম্ভব স্বাভাবিক পরিস্থিতি যেন শাহজালাল বিশ্ববিদ্যালয়ে ফিরে আসে, সে জন্য সবাই মিলে একযোগে কাজ করব। ’

শিক্ষার্থীদের আট দফা : আন্দোলনকারী শিক্ষার্থীদের অন্যতম সমন্বয়ক পদার্থবিজ্ঞান বিভাগের শিক্ষার্থী শাহরিয়ার আবেদীন বৈঠকের আগে শিক্ষামন্ত্রীকে তাঁদের আট দফা দাবির কথা জানিয়েছেন। দাবিগুলো হলো : শাবিপ্রবির উপাচার্য ফরিদ উদ্দিন আহমদের পদত্যাগ, ক্লাস-পরীক্ষা চালু, শিক্ষার্থীদের বিরুদ্ধে হওয়া মামলা প্রত্যাহার, আড়াই শতাধিক শিক্ষার্থীর বন্ধ থাকা মোবাইল ব্যাংকিং অ্যাকাউন্ট চালু, পুলিশের গুলিতে আহত শিক্ষার্থী সজল কুণ্ডুকে এককালীন আর্থিক সহযোগিতা ও তার জন্য নবম গ্রেডের চাকরি নিশ্চিত করা, মুহম্মদ জাফর ইকবাল ও ইয়াসমিন হককে ইমেরিটাস অধ্যাপক হিসেবে নিয়োগ দেওয়া, সব বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষণা খাতে বাজেট বাড়ানো, পরীক্ষা পদ্ধতিতে কোডিং সিস্টেম কার্যকর করা, শিক্ষক নিয়োগে পিএইচডি এবং ডেমো ক্লাসের ভিত্তিতে নিয়োগপ্রক্রিয়া চালু।

২৬ দিন পর দপ্তরে উপাচার্য : সিলেট সার্কিট হাউসে আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের প্রতিনিধিদলের সঙ্গে দীর্ঘ আলোচনা শেষে সন্ধ্যার পর শাহজালাল বিশ্ববিদ্যালয়ে যান শিক্ষামন্ত্রী। গোলচত্বরে শিক্ষার্থীদের সঙ্গে কথা বলা শেষে তিনি যান প্রশাসনিক ভবন-২-এ। সেখানে উপাচার্য ও শিক্ষকদের সঙ্গে বৈঠক করেন তিনি। বৈঠকে যোগ দিতে ২৬ দিন পর নিজ বাসভবন থেকে বের হন উপাচার্য ফরিদ উদ্দিন আহমদ। সেখানে সংক্ষিপ্ত বৈঠক শেষে গণমাধ্যমের সঙ্গে আর কথা বলেননি শিক্ষামন্ত্রী। তিনি বিমানবন্দরের উদ্দেশে রওনা দেন। উপাচার্যও গণমাধ্যমের মুখোমুখি হননি।

শিক্ষার্থীদের কাছে উপাচার্যের দুঃখ প্রকাশের আহ্বান শিক্ষামন্ত্রীর : শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের ওপর পুলিশের হামলার ঘটনায় শিক্ষার্থীদের কাছে উপাচার্য ফরিদ উদ্দিন আহমদকে দুঃখ প্রকাশ করার আহ্বান জানিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী। গতকাল সন্ধ্যায় শিক্ষামন্ত্রীর সঙ্গে উপাচার্য ও শিক্ষকদের বৈঠককালে এই আহ্বান জানান শিক্ষামন্ত্রী। মন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠক শেষে গণমাধ্যমকর্মীদের বিষয়টি জানান শাহজালাল বিশ্ববিদ্যালয়ের কোষাধ্যক্ষ আনোয়ারুল ইসলাম।

তিনি বলেন, ‘শিক্ষামন্ত্রী বলেছেন, এই ঘটনা আপনার নির্দেশে ঘটুক আর না ঘটুক, বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান হিসেবে এর দায়-দায়িত্ব আপনার। সে জায়গায় আমি হলে দুঃখ প্রকাশ করতাম। আপনি সবার কাছে দুঃখ প্রকাশ করবেন। শিক্ষামন্ত্রীর কথার পর উপাচার্য তা-ই করেছেন। ’

শিক্ষামন্ত্রীর সঙ্গে আলোচনা থেকে ফলপ্রসূ সিদ্ধান্ত আসবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করে গত রাত ৯টায় সংবাদ সম্মেলন আন্দোলনকারী শিক্ষার্থী ইয়াসির সরকার বলেছেন, আমাদের বেশির ভাগ দাবির ব্যাপারে ফলপ্রসূ আলোচনা হয়েছে। এ ছাড়া আন্দোলনের পরবর্তী কর্মসূচির বিষয়ে শনিবার (আজ) বিকেল ৪টায় সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।

নবনিযুক্ত প্রক্টরের পদত্যাগ দাবি : গত বৃহস্পতিবার নতুন প্রক্টর হিসেবে নিয়োগ পান ইংরেজি বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ইশরাত ইবনে ইসমাইল। তাঁর পদত্যাগ দাবি করেছেন শিক্ষার্থীরা। সংবাদ সম্মেলনে  ইয়াসির সরকার বলেন, নবনিযুক্ত প্রক্টরের বিরুদ্ধে সম্প্রতি এক শিক্ষার্থীর যৌন নিপীড়নের ঘটনায় উপস্থিত থেকেও এক ব্যক্তিকে বাঁচাতে গিয়ে সেই নিপীড়নের ঘটনা অস্বীকার করার অভিযোগ রয়েছে। আমরা বিষয়টি শিক্ষামন্ত্রীকে অবহিত করেছি। শিক্ষামন্ত্রী এ বিষয়টি দ্রুত দেখবেন বলেছেন।

শিক্ষামন্ত্রী দীপু মনি গতকাল সকাল ৯টায় বাংলাদেশ বিমানের একটি ফ্লাইটে সিলেট এসে পৌঁছান। সকাল ১১টায় সিলেট সার্কিট হাউসে সিলেট জেলা ও মহানগর আওয়ামী লীগ নেতাদের সঙ্গে মতবিনিময় করেন তিনি। পরে তিনি শাহজালাল (রহ.) ও শাহপরান (রহ.)-এর মাজার জিয়ারত করেন।

সূত্র: কালের কন্ঠ অনলাইন

About Syed Enamul Huq

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com