ব্রেকিং নিউজ
Home » দৈনিক সকালবেলা » বিভাগীয় সংবাদ » খুলনা বিভাগ » চাঁদার দাবিতে সাংবাদিক লাল্টুর ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে সন্ত্রাসীদের হামলা

চাঁদার দাবিতে সাংবাদিক লাল্টুর ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে সন্ত্রাসীদের হামলা

কুষ্টিয়া প্রতিনিধি: কুষ্টিয়ায় চাঁদার দাবিতে “দৈনিক আজকের আলো” পত্রিকার ফটো সাংবাদিক লাল্টুর ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে সন্ত্রাসী হামলা চালিয়েছে সন্ত্রাসীরা। এ সময় তারা দোকান কর্মচারী অাব্দুর রশিদকে দোকান থেকে বের করে দিয়ে দোকানে তালা মেরে যায়। শুক্রবার(০৪ সেপ্ট‌েম্বর) দুপুরে কুমারখালী উপজেলার দবির মোল্লাগেট সংলগ্ন স্থানে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় সাংবাদিক  লাল্টু বাদী হয়ে কুমারখালী থানায় অভিযোগ  দায়ের করেছেন। 
অভিযোগ সুত্রে জানা যায়, লাহিনী বটতলার মৃত দাবাড়ে খন্দকারের দুই ছেলে এলাকার  চ‌িহিৃত সন্ত্রাসী ও এক সময়ের জেএমবি’র কমান্ডার খ ্যাত খন্দকার সাজেদুর রহমান, খন্দকার মোজাফফর  রহমান, একই এলাকার মৃত মুন্দিরের ছেলে ফরহাদ হোসেন (২৭) এবং আমানুর রহমান (৪৫)সহ তাদের ক্যাডার বাহিনী গত বৃহস্পতিবার সকাল ১০ টার দিকে সাংবাদিক লাল্টুর ব্যবসা প্রতিষ্ঠান দবির মোল্লার রেলগেট সংলগ্ন বাঁশ, খড়ি,গ্যাস সিলিন্ডারের দোকানে গিয়ে ৫০ হাজার টাকা চাঁদা দাবি করে। লাল্টু চাঁদার টাকা দিতে অস্বীকৃতি জানালে  সন্ত্রাসীরা লাল্টুকে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করে প্রান নাশের হুমকি প্রদান করে বলে তুই যদি আগামীকাল( শুক্রবার)  সকাল ১০টার মধ্যে চাঁদার টাকা না দিস তাহলে রক্তারক্তির ঘটনা ঘটাবো।  শুক্রবার সকাল ১১ টার  দিকে  পুনরায় লাল্টুর দোকানে গিয়ে তাকে না পেয়ে সন্ত্রাসী খন্দকার সাজেদুর রহমান তার  ব্যবহৃত  মুঠোফোন(০১৭০৩৮১৭২০৮) থেকে লাল্টুর ব্যবহৃত মুঠোফোনে ফোন দিয়ে চাঁদার দাবি করে। লাল্টু পুনরায় চাঁদা দিতে অস্বীকৃতি  জানালে সন্ত্রাসীরা লাল্টুর দোকানের কর্মচারী আব্দুর রশিদকে জোরপূর্বক দোকান থেকে বের করে দিয়ে তাদের নিয়ে আসা তালা দিয়ে দোকানের শাটার নামিয়ে দোকানে তালা লাগিয়ে বন্ধ করে দেয়। 
সাংবাদিক লাল্টু জানান, বর্তমানে অামি প্রাণভয়ে দিন অতিবাহিত করছে। চাঁদার টাকা না পেয়ে সন্ত্রাসীরা যে কোন সময় অামার বড় ধরনের ক্ষতি করতে পারে।
এদিকে নাম প্রকাশ্যে অনিচ্ছুক স্থানীয় কয়েকজন জানান, খন্দকার সাজেদুর রহমান নিষিদ্ধ সন্ত্রাসী সংগঠন কুষ্টিয়া জেলা জেএমবির কমান্ডার। তার বিরুদ্ধে গুম,খুন,চাঁদাবাজি,টেন্ডারবাজী সহ একাধিক অভিযোগ রয়েছে। কয়েক বছর আগে সে পুলিশের হাতে গ্রেফতার হয়েছিলো এবং পুলিশ তার নিকট থেকে নামে বেনামে উত্তোলন করা প্রায় ২৫০ টি মোবাইলের সিম কার্ড উদ্ধার  করেছিলো। এ বিষয়ে কুমারখালী থানার ওসি(তদন্ত) মামুনার রশিদ জানান,এ ধরনের অভিযোগ পেয়েছি। তদন্ত চলছে। জড়িতদের বিরুদ্ধে অাইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।এদিকে  তাদের বিরুদ্ধে সংবাদ পরিবেশন করলে প্রতিবেদককে প্রাণনাশের হুমকি দিয়েছে সন্ত্রাসীরা। এ ব্যাপারে পত্রিকার পক্ষ থেকে  সন্ত্রাসীদের বিরুদ্ধে  থানায় অভিযোগ দেয়ার প্রস্তুতি চলছে।

About Syed Enamul Huq

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*